kalerkantho


পিম্পল? ছেলেদের জন্য পরামর্শ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ মার্চ, ২০১৭ ১৯:৩৪



পিম্পল? ছেলেদের জন্য পরামর্শ

কী ছেলে কী মেয়ে, পিম্পল জিনিসটাকে কেউ-ই মেনে নিতে পারেন না। এ এক মানসিক পেরেশানির নাম।

ব্রন বা পিম্পল বা একনি থেকে মুক্তি পেতে কতো গবেষণা, পরামর্শ আর পথ্যের প্রয়োগই না ঘটে। বিশেষ করে পিম্পল দূর করার চিন্তা কেবল মেয়েদের ক্ষেত্রেই করা হয়। পুরুষরাও কিন্তু এ বিষয়ে পরামর্শ  চান। এখানে বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, পুরুষদের পিম্পলমুক্ত থাকার কিছু মৌলিক নিয়মের কথা।

১. ঘন ঘন মুখ ধোয়া
এ কাজটি কেবল ঘন ঘন করলেই হবে না, সুষ্ঠুভাবে সময় নিয়ে করতে হবে। কেবল মুখে পানি ছিটালেই মুখ ধোয়া হয় না। ভালোমতো মুখের চারদিকে পানি দিয়ে ধুতে হবে। অন্তত দিনে ৩-৪ বার মুখ ধুতে হবে। প্রতিবারই বেশ কিছুক্ষণ ধরে ধুয়ে যাবেন।

যেমন মুখে ধুলোবালি একবারেই না থাকে। ময়লাই একনির প্রধান কারণ।

২. পর্যাপ্ত পানি পান
বেশ কিছু গবেষণায় বেরিয়ে এসেছে যে, দেহকে বিষমুক্ত করার অন্যতম প্রধান উপাদান পানি। বিশুদ্ধ খাবার পানি খেতে হবে পর্যাপ্ত। দেহ বিষমুক্ত থাকলেই পিম্পল উঠবে না। প্রদাহও দূর হবে।

৩. টুথপেস্ট
পিম্পলের জন্য বাড়ির সেরা পথ্যের একটি। পিম্পলের ওপর টুথপেস্ট দিয়ে রাখুন। এতে আছে সামান্য পরিমাণ হাইড্রোজেন পারঅক্সাইড। এটি অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান যা ব্রনের ব্যাকটেরিয়াকে মেরে ফেলে।

৪. লেবুর রস
এটিও কিন্তু পিম্পলের বেশ কার্যকর ওষুধ। সিট্রাস জাতীয় এই ফলের রস প্রোফাইল্যাকটিক হিসাবে কাজ করে এবং জীবাণু মেরে ফেলে। একনি উঠলে বিভিন্ন জীবাণু তাতে চুলকানির সৃষ্টি করে। লেবুর রস মুক্তি দেবে।

৫. পুদিনা পাতার রস
আপনি কি জানেন যে, পুদিনার পাতার রস অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি গুণসম্পন্ন। কাজেই পিম্পল তাড়াতে এটি বেশ উপকারী। ব্রনের  চুলকানি দূর করাসহ আবরা হওয়া থেকে রক্ষ করে পুদিনা পাতার রস।

৬. টমেটো
এটি ত্বককে পরিষ্কার রাখে। বাড়তি তেলও দূর করে এটি। টমেটোতে রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট যা ত্বককে রক্ষা করে। ত্বকের পিএইচ মাত্রা বজায় রাখে টমেটো।

৭. ডিমের সাদা অংশ
বহু পুরনো এক পথ্য। বলা হয়, ডিমের সাদা অংশ লাগানো হলে একনি চলে যায়। এতে আছে ভিটামিন এবং অ্যামাইনো এসিড। তাই ডিমের সাদা অংশ পিম্পলের জীবাণু মেরে ফেলে এবং ক্ষতিগ্রস্ত কোষের যত্ন নেয়। মুখের ময়লা পরিষ্কারেও বেশ কাজের এটি।

৮. বরফ
এটি একনির লালচে ভাবকে নিমিষেই দূর করে দিতে পারে। জ্বালাপোড়াও কমিয়ে দেয় বরফ। মুখে রক্তের প্রবাহ বৃদ্ধি করে এই পদ্ধতি। সেই সঙ্গে ময়লা ও তেলও পরিষ্কার করে। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

 


মন্তব্য