kalerkantho


সুইমিং পুল বোঝাই মূত্র, কী করবেন?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ মার্চ, ২০১৭ ১১:০২



সুইমিং পুল বোঝাই মূত্র, কী করবেন?

সাঁতার কাটতে গিয়ে অনেকেই পাবলিক সুইমিং পুল ব্যবহার করি। সাঁতার কাটার সময় অল্পবিস্তর পানি মুখেও প্রবেশ করে।

কিন্তু সুইমিং পুলে যারা গোসল করেন তাদের হয়ত জানা নেই, এখানে পানিতে থাকে বিপুল পরিমাণ মূত্র। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ফক্স নিউজ।
আপনি যদি পাবলিক সুইমিং পুলে সাঁতার কাটেন তাহলে এর পানির একটি বিশেষ স্বাদের সঙ্গে পরিচিত হবেন। এটি প্রধানত ক্লোরিনের স্বাদ, যা পানিতে মেশানো হয়। এছাড়া এ পানিতে আপনি স্বাদ পাবেন মানুষের মূত্রেরও!
সাঁতার কাটতে যারা পানিতে নামেন তাদের অধিকাংশই সবার অগোচরে পানিতে মূত্রত্যাগ করেন। যদিও বিষয়টি অন্যরা জানতে পারছে না বলে মনে করেন তারা। আর এ অভ্যাসটি অধিকাংশ মানুষেরই রয়েছে।
একটি সাধারণ পাবলিক সুইমিং পুলের পানিতে ৭৫ লিটার মূত্র থাকে বলে জানা গেছে পরীক্ষায়। আর এর পেছনে রয়েছে মানুষের এ পানিতে মূত্রত্যাগের অভ্যাস। কারণ, পানিতে নামলে মূত্রত্যাগ থেকে বিরত থাকেন, এমন মানুষ কমই রয়েছে।
সম্প্রতি এক গবেষণাতেও বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে। এ গবেষণাপত্রের প্রধান লেখক লিন্ডসে ব্ল্যাকস্টক বলেন, ‘আমাদের গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে মানুষ পাবলিক সুইমিং পুলে ও হট টাবে মূত্রত্যাগ করে। ’ আর এ বিষয়টি অনুসন্ধানে কানাডারার ৩১টি সুইমিং পুলের পানি পরীক্ষা করেন গবেষকরা।
এ বিষয়টি স্বীকার করেছেন মার্কিন অলিম্পিস সাঁতারু রায়ান লচেট ও মাইকেল ফেলপস। স্বর্ণবিজয়ী এ সাঁতারু বলেন, ‘আমার মনে হয় সবাই সুইমিং পুলে মূত্রত্যাগ করে। আর সে জীবাণুগুলো ধ্বংস করে ক্লোরিন। তাই এটি ক্ষতিকর নয়। ’
সুইমিং পুলের মূত্র কী ক্ষতিকর?
তবে গবেষকরাও এ বিষয়টির সঙ্গে একমত নন। তাদের মতে, সুইমিং পুলের মূত্র স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করছে। এর কারণ হিসেবে জানা যায় মূত্রের ইউরিক এসিড ও ক্লোরিন একত্রে মিলে বিষাক্ত উপাদান তৈরি করে, যার নাম কিয়ানোজেন ক্লোরাইড (সিএনসিআই) ও ট্রাইক্লোরামাইন (এনসিআই৩)। এর মধ্যে প্রথম সিএনসিআই মানুষের কেন্দ্রীয় নাভার্স ব্যবস্থা, ফুসফুস ও হৃৎযন্ত্রের ক্ষতি করে। এছাড়া এনসিআই৩ ফুসফুসের মারাত্মক ক্ষতি করে। এছাড়া অন্য এক গবেষণায় দেখা গেছে, এ মূত্র পরবর্তীতে চোখের ও দেহের আরও কিছু অঙ্গের ক্ষতি করে।
সুইমিং পুলের এ মূত্র মোটেই হালকাভাবে দেখার উপায় নেই বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এক্ষেত্রে সুইমিং পুলে মূত্রত্যাগের এ অভ্যাস যেন সবাই বাদ দেয় সেজন্য জনসচেতনতা তৈরি ও ক্ষতিকর বিষয়গুলো সবাইকে জানানোর ওপর গুরুত্ব দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। এছাড়া সুইমিং পুলের পানি নিয়মিত পরিবর্তনও গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হয়ে উঠেছে।


মন্তব্য