kalerkantho


সাবধান : পিঠের ব্যথায় রয়েছে মৃত্যুঝুঁকি!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৭:৪৩



সাবধান : পিঠের ব্যথায় রয়েছে মৃত্যুঝুঁকি!

পিঠের বা মেরুদণ্ডের ব্যথায় আক্রান্ত হলে তাকে হেলাফেলা করেন অনেকেই। কিন্তু সম্প্রতি গবেষকরা জানিয়েছেন, মেরুদণ্ডের ব্যথাকে কোনো অবস্থাতেই হেলাফেলা করা উচিত নয়। আপনার যদি মেরুদণ্ডের, বিশেষত মেরুদণ্ডের নিচের দিকে ব্যথা থাকে তাহলে দ্রুত বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিন। কারণ মেরুদণ্ডের ব্যথার কারণে মৃত্যুঝুঁকি বাড়ে ১৩ শতাংশ। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।
বিশ্বের প্রায় ৭০০ মিলিয়ন মানুষের মেরুদণ্ডের ব্যথায় ভোগে। গবেষকরা জানিয়েছেন মেরুদণ্ডের ব্যথায় ভোগা এ ধরনের ব্যক্তিদের অনেকেই সারা বিশ্বেই এ ব্যথার কারণে অক্ষম হয়ে পড়েন। এছাড়া তাদের অন্য সাধারণ মানুষের তুলনায় অকালে মৃত্যুর সম্ভাবনা বেড়ে যায়।
এ বিষয়ে গবেষণাটি করেছেন অস্ট্রেলিয়ার গবেষকরা। আর গবেষণাপত্রটির প্রধান লেখক ইউনিভার্সিটি অব সিডনির গবেষক ম্যাথিও ফার্নান্দেজ বলেন, ‘পিঠের ব্যথাকে মৃত্যুর একটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ হিসেবে ধরা হয়। এটি মানুষের জীবনের ব্যাপ্তির ওপরেও প্রভাব ফেলে।


এ বিষয়ে ইউনিভার্সিটি অব সিডনির অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর পাউলো ফেরেইরা বলেন, ‘এটি গুরুত্বপূর্ণ আবিষ্কার কারণ, বহু মানুষ মনে করেন ব্যাক পেইন জীবনের জন্য হুমকি নয়। ’
তবে গবেষকরা এখানে পরিসংখ্যানের ব্যবহার করে মৃত্যুর সম্ভাবনা তুলে ধরলেও ঠিক কী কী কারণে এ মৃত্যুহার বাড়ছে সে সম্পর্কে স্পষ্টভাবে জানাননি। এটি হতে পারে দুর্বল স্বাস্থ্যের কারণে কিংবা দেহের কোনো একটি অংশের সঠিকভাবে কাজ না করার কারণে। এটি বয়স্কদের মৃত্যুহার বৃদ্ধির ঝুঁকিও অনেকাংশে বাড়ায়।
তাহলে পিঠের ব্যথায় আক্রান্ত হলে কী করা উচিত? এ প্রসঙ্গে গবেষকরা বলছেন নানা কারণে পিঠের ব্যথা হতে পারে। কারণ যাই হোক না কেন, তা চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে সঠিকভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। এছাড়া সুস্থ জীবনযাপনের মাধ্যমেও ঝুঁকি কমানো সম্ভব।
এ বিষয়ে গবেষণাটির ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে জার্নাল অব পেইনে।


মন্তব্য