kalerkantho


ওজন নিয়ন্ত্রণে সহায়ক যত ফল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২১:০২



ওজন নিয়ন্ত্রণে সহায়ক যত ফল

বিষয়টি যখন ওজন নিয়ন্ত্রণ, তখন পুষ্টিকর অনেক ফল থেকেই দূরে থাকা জরুরি। আবার এমন অনেক ফলও রয়েছে যা দারুণ পুষ্টিকর এবং আপনার ওজন কমানোর প্রক্রিয়াতেও বাধার সৃষ্টি করে না। বরং উপকারই করে। যারা ওজন কমাতে খাদ্য বাছাই করছেন, তারা নিশ্চিন্তে এই ফলগুলো নিয়মিত খেতে পারেন।

১. কলা : এ ক্ষেত্রে প্রথমেই কলার নাম বলতে আগ্রহী বিশেষজ্ঞরা। যারা নিয়মিত ব্যায়াম করছেন বা ওজন কমাতে চাইছেন, তাদের প্রতিদিন একটা করে কলা খাওয়া উচিত। পটাশিয়ামপূর্ণ এই পুষ্টিকর ফলটি ব্যায়ামের পর আপনাকে দারুণ এনার্জি প্রদান করে। ক্লান্তি দূর হয়ে যাবে সঙ্গে সঙ্গে।

২. পেঁপে : ফাইবার ও পানিতে পূর্ণ এই ফল। সকালের শুরুটা সুন্দর করে দিতে পারে পাকা পেঁপে। ওজন বাড়ায় না।

তাই নিয়মিত নিশ্চিন্তে খেতে পারেন।

৩. কিউয়ি : রক্তের ট্রাইগ্লিসারিনের মাত্রা কমিয়ে আনতে সহায়তা করে। এতে আছে প্রচুর ভিটামিন সি এবং ভিটামিন কে। এতে চিনির মাত্রাও কম। সকাল ও বিকালের খাবার হিসাবে দারুণ এক জিনিস। ওজন কমানোর কার্যক্রমে মোটেও ঝামেলা করে না।

৪. স্ট্রবেরি : উচ্চমাত্রার অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট রয়েছে এতে। আরো আছে মিনারেল এবং ভিটামিন যা চেহারায় বয়সের ছাপ পড়তে দেয় না। বিপাকক্রিয়া সুষ্ঠু করে। ওজন কমাতেও সহায়তা করে এই ফল।

৫. কমলা : ভিটামিন সি-তে পরিপূর্ণ এই সিট্রাস ফল। এ ছাড়া অন্যান্য সমস্যাতে বেশ কাজের। ওজন কমাতে সহায়ক।

৬. আপেল : চিনির মাত্রা খুবই কম। আছে উচ্চমাত্রার ফাইবার এবং খনিজ উপাদান। ওজন বাড়ানোর পেছনে এর কোনো ভূমিকা নেই।

৭. পেয়ারা : আরকটি ফল যাতে আছে উচ্চমাত্রার ফাইবার। গ্লাইসেমিক ইনডেক্সে রয়েছে নিচের দিকে। ফিটনেসের আয়োজনে এটা আপনার সঙ্গী হতে পারে।

৮. তরমুজ : গ্রীষ্মের এক স্বস্তিদায়ক ফল। এর ৯০ শতাংশই পানি। পেটকে পরিপূর্ণ করে দেয়। ওজন বাড়াতে কোনো ভূমিকা নেই তার। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

 


মন্তব্য