kalerkantho


বিজ্ঞানের চোখে একা থাকার ৫ বাস্তবিক সুবিধা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৮:৪৭



বিজ্ঞানের চোখে একা থাকার ৫ বাস্তবিক সুবিধা

বিশ্ব ভালোবাসা দিবস গত হয়েছে বেশি দিন পেরোয়নি। এ দিবস উপলক্ষে অনেক একাকী মানুষ সঙ্গী-সঙ্গিনীর সাথে জুড়ে যান। কিন্তু এরই মধ্যে বিজ্ঞানীরা একাকী থাকার সুফলের বয়ান দিলেন। অনেকের মতে, একা থাকলে অনেক দিক থেকেই দারুণ স্বার্থপর হয়ে ওঠা যায়। কেবল নিজের খেয়াল রাখা, নিজের লক্ষ্য পূরণে ব্যস্ত থাকা এবং নিজের সুখের চিন্তা ছাড়া আর কাজ কি? কিন্তু সম্প্রতি বিজ্ঞান বলছে, স্বার্থপরতার বিষয় নয়। সত্যিকার অর্থেই একাকী থাকার অনেক সুফল রয়েছে। সমাজের চোখে হয়তো একা মানুষটির জীবন একটা ট্র্যাজেডি। তার স্বামী বা স্ত্রী নেই। কিন্তু গবেষণা তা মানতে নারাজ। এখানে একাকীদের সাহস জোগাতেই যেন গবেষণার কথা তুলে ধরলেন বিজ্ঞানীরা। জেনে নিন একা থাকার কয়েকটি বাস্তবমুখী সুবিধার কথা।

১. আরো কাছের বন্ধু হবে
সঙ্গী-সঙ্গিনীর দেখা পেলে বন্ধুরা কেমন যেন দূরের হয়ে যায়। আবার সম্পর্কে ভেঙে গেলে আপনার কাছেই হয়তো ফিরে আসে। আপনিও যখন কারো সঙ্গে জুড়ে যাবেন, তখন বন্ধুদের থেকে দূরে চলে যাবেন। কিন্তু গবেষণায় বলছে, যদি একাকী থাকেন তো সব বন্ধু আপনাকেই সবচেয়ে কাছের বন্ধু বলে মনে করবে। আপনিও তাদের সর্বোচ্চ বন্ধুত্ব পাবেন।   তাদের পরিবার ও স্বজনদের মধ্যে আপনিই হবেন সবচেয়ে কাছের।

২. আপনিই সবচেয়ে ফিট
এক গবেষণায় দেখা যায়, ব্রিটেনের অসংখ্য মানুষ ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও বিশেষজ্ঞের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যায়াম করতে ব্যর্থ হন। এদের ৭৩ শতাংশই বিবাহিত। কিন্তু বিচ্ছেদ ঘটেছে বা একাকী কিংবা কখনোই বিয়ে করেননি এমন মানুষদের প্রায় সবাই ব্যায়ামের কাজে যথেষ্ট সময় পান। ২০১৩ সালের আরেক গবেষণায় বলা হয়, সদ্য বিবাহিত সুখী দম্পতিদের ওজন বৃদ্ধির সম্ভাবনা প্রবল থাকে পরবর্তী চার বছরের মধ্যে।

৩. কর্মক্ষেত্রে আরো বেশি তৃপ্ত থাকবেন
যখন আপনি একা, তখন ক্যারিয়ারের পেছনে অনেক সময় ব্যয় করতে পারবেন। এর জন্য নিজেকে দোষী মনে হবে না। সুখবোধ চরমে পৌঁছবে। গবেষণায় বলা হয়, একাকী মানুষরা তার নিজ কর্মক্ষেত্রে অন্যদের চেয়ে অনেক বেশি সুখী থাকেন। কারণ তারা অর্থপূর্ণ কাজ করার পেছনে যথেষ্ট সময় ও চিন্তা ব্যয়ের সুযোগ পেয়ে থাকেন।

৪. অনেক পয়সা বাঁচবে
বাড়তি পয়সা খরচ হবে না আপনার। সঙ্গে কেউ নেই হতো খরচও কম। নিজের জন্যই খরচ করতে পারবেন। দুজনের ঘোরাঘুরি বা ডিনার করতে যাওয়ার খরচ নাই। কাজেই দেখবেন, অনেক পয়সা বেঁচে যাবে।

৫. ঘুম ভালো হবে
এক বিছানা আপনার একার জন্য। সেখানে শান্তিমতো ঘুমাতে পারবেন। পাশে অন্য কেউ কোনভাবেই আপনার ঘুমের ব্যাঘাত ঘটাতে পারবে না। কিংবা দুজনের ঘুমের দুই সময়ের কারণে আপনার বিপত্তি ঘটবে না। সূত্র: ইনডিপেনডেন্ট

 


মন্তব্য