kalerkantho


প্রতিদিনের যে ভুলের জন্য নষ্ট হচ্ছে আপনার শরীর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



প্রতিদিনের যে ভুলের জন্য নষ্ট হচ্ছে আপনার শরীর

প্রতিদিন আমরা এমন কিছু কাজ করি, যার কারণে শরীর নষ্ট হতে শুরু করে। আর সবথেকে ভয়ঙ্কর বিষয় হল সে বিষয়ে আমাদের খেয়ালও থাকে না।

ফলে একটা করে দিন কেটে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শরীরের ভেতরকার অনেক কিছু বদলে যেতে শুরু করে, যা এক সময় ডেকে আনে নানান জটিল রোগকে। কিছুক্ষেত্রে সমাজিকতার চাপে এইসব কাজকে আমাদের প্রশ্রয় দিতে হলেও নিজের শরীরের প্রতি আমাদের যে একটা দায়িত্ব আছে সেটাকে কি আমরা কোনও ভাবে অস্বীকার করতে পারি? তাই তো আজ এই লেখায় আপনাদের সচেতন করতে সেইসব বিষয়গুলি সম্পর্কে আলোচনা করা হল, যা আমদের একেবারেই করা উচিত নয়।

 
১. পর্যপ্ত পরিমাণ পানি পান না করা : শরীরকে সচল রাখতে নিদির্ষ্ট পরিমাণ পানি পান করা জরুরি। তবু আমরা অনেকেই সেই পরিমাণ পানি পান করি না। ফলে নানা ভাবে শরীর খারাপ হতে শুরু করে। তাই তো একথা ভুলে গেলে চলবে না যে পানি আমাদের শরীরকে ডিহাইড্রেশনের হাত থেকে রক্ষা করে। সেই সঙ্গে ত্বক ও চুলকে ভালো রাখতে, শরীরে ফলুইডের মাত্রা ঠিক রাখতে, হজম ক্ষমতাকে উন্নত করতে এবং শরীরের তাপমাত্রা স্বাভাবিক রাখতেও সাহায্য করে।  

২. মাত্রাতিরিক্ত মদ খাওয়া : সারা সপ্তাদের কাজের পর একটু আরাম পেতে আমাদের অনেকেই মাত্রাতিরিক্ত মদ পান করে থাকি। ভাবি সপ্তাহে দুদিন মদ পান করলে আর কী ক্ষতি হবে!  আসলে একথা আমরা ভুলে যাই যে অতিরিক্ত মদ খেলে শরীরে মজুত এনার্জি কমতে শুরু করে।

ফলে কাজ করার ক্ষমতা কমে যায়। শুধু তাই নয়, এমন অভ্যাসের কারণে লিভার এবং ত্বকও খারাপ হতে শুরু করে। প্রসঙ্গত, একাধিক গবেষণায় একথা প্রমাণিত হয়েছে যে অতিরিক্ত মদ পান করলে গভীর ঘুম আসতে চায় না। ফলে কেউ যদি প্রায় দিনই মদ খান তাহলে ধীরে ধীরে ঘুম খারাপ হতে শুরু করে, যার প্রভাব পড়ে শরীরে।  

৩. সারাদিন ধরে মোবাইল ফোনের ব্যাবহার : এই ধরনের অভ্যাসের শিকার কি আপনিও? তাহলে আজ থেকেই সাবধান হোন। না হলে কিন্তু বিপদ! একাধিক কেস স্টাডি করে দেখা গেছে, যারা দিনের বেশিরভাগ সময় ফোনের জগতে কাটান, তাদের ঘুম ঠিক মতো হয় না। আর একথা তো সকলেরই জানা যে ঘুম ঠিক মতো না হলে নানান ধরনের জটিল রোগ শরীরে বাসা বাঁধতে শুরু করে। শুধু তাই নয়, ফোনে কথা বলার সময় আমাদের খেয়াল না থাকলেও আমরা এমনভাবে ফোন ধরি বা ঘারের পজিশন এমন থাকে যে তার প্রভাবে নানা অসুবিদা দেখা দিতে শুরু করে স্পাইনাল কর্ডে। তাই তো আপনাদের কাছে অনুরোধ ফোনের ব্যাবহার একটু কমান। না হলে কিন্তু এক সময়ে গিয়ে আপনাকেই ভুগতে হবে।  

৪. রাতে দেরি করে ঘুমাতে যাওয়া : আজকাল সবারই রাতে শুতে যেতে দেরি হয়। ঘরির কাঁটা যতক্ষণ না ১২টার ঘর পার হচ্ছে, ততোক্ষণ যেন আমাদের চোখের পাতা এক হতেই চায় না। এই অভ্যাস কিন্তু খুব খারাপ। কথাতেই আছে না। তাড়াতাড়ি শুতে যাও, তাড়াতাড়ি ওঠো। তাতে শরীর ভালো থাকে, নচেৎ দেখা দেয় নানা রোগ। প্রসঙ্গত, দেরি করে শুতে গেলে গভীর ঘুমের পরিমাণ কমে যায়। ফলে ক্লান্তি গ্রাস করতে থাকে আমাদের। আর ক্লান্ত শরীরে যে বিশ্ব জয় সম্ভব নয়, সেকথা নিশ্চয় বলে দিতে হবে না! 

৫. ভাজাভজি বেশি খাওয়া : একাধিক দেশি বিদেশি গবেষণায় দেখা গেছে জাঙ্ক ফুড খাওয়ার অভ্যাস থেকে ওজন বৃদ্ধি সহ নানা ধরনের মরণ রোগ হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। তাই তো এমন ধরনের খাবার খাওয়া কমান। পরিবর্তে শরীরের গঠনে সহায়ক এমন খাবার খাওয়া শুরু করুন। একথা ভুলে যাবেন না যে স্বাস্থ্যই সম্পদ। এই সম্পদ যদি কমতে শুরু করে তাহলে কিন্তু সুখ জানলা দিয়ে পালাবে। তাই সাবধান! 

৬. সপ্তাহের শেষে কেবল শরীরচর্চা করা : কয়েক জন আছেন যারা কেবল শনি বা রবিবার শরীরচর্চা করেন। এমনটা করলে কিন্তু শরীরের ভালো হওয়ার থেকে খারাপ হয় বেশি। কারণ সারা সপ্তাহ ইনঅ্যাকটিভ থাকার পর হঠাৎ করে শরীরের উপর খুব চাপ দিলে তার প্রভাব পরে পেশিতে এবং কোমরে। ফলে দীর্ঘদিন ধরে এমন করলে শরীর তো ভালো হই না, উলটে নানা শারীরিক অসুবিধা দেখা দিতে শুরু করবে। তাই সপ্তাহে প্রতিদিন শরীরচর্চা করুন, অল্প হলেও করুন। তাতে দেখবেন শরীর ভালো হতে শুরু করবে।


মন্তব্য