kalerkantho


শিরদাঁড়া সোজা না রাখলে ঘনিয়ে আসছে যে বিপদ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



শিরদাঁড়া সোজা না রাখলে ঘনিয়ে আসছে যে বিপদ

স্কুল ব্যাগের ভারে ঝুঁকে হাঁটে পড়ুয়া৷ বিলাসবহুল জীবনযাত্রায় অভ্যস্ত, মাথা নীচু করে মোবাইল কম্পিউটার ঘাটছে সবাই৷ এখনই জীবনযাপনে পরিবর্তন করুন৷ এইসব বদ অভ্যাস থেকে হতে পারে সার্ভাইকাল বা লাম্বার স্পন্ডিলোসিস৷ যা সঠিক সময় চিকিৎসা না করালে প্যারালাইসিস পর্যন্ত হতে পারে! অতএব মাথা সোজা রাখুন৷ শিরদাঁড়া সোজা করুন৷ না বেঁকে, না ঝুঁকে হাঁটুন গটমটিয়ে৷

সার্ভাইকাল স্পন্ডিলোসিস কী?
কোনও ব্যক্তির ঘাড়ে আর্থাইটিস হলে তাকে সার্ভাইকাল স্পন্ডিলোসিস বলে৷ এক্ষেত্রে ঘাড়ের ছোট ছোট জয়েণ্টগুলির মধ্যে কার্টিলেজ ক্ষয় হয়ে যায়৷ ফলে দুটি হাড়ে ঘষা লেগে ব্যথা হয়৷
কারণ:
১) বয়স
২) ঘাড়ের উপর অতিরিক্ত চাপ
৩) দীর্ঘক্ষণ ঘাড় গুঁজে লেখা
৪) ঘাড়ের এক্সারসাইজ না করা
৫) অতিরিক্ত ভারী ব্যাগ বা ওজন বহন করা
৬) ভিটামিন ডি এর অভাব

কী দেখে বুঝবেন?

১) ঘাড়ে অসহ্য যন্ত্রণা
২) বেশিক্ষণ লেখাপড়া করলেই যন্ত্রণা বৃ‌দ্ধি
৩) ঘাড় থেকে ব্যথা হাতে নামে
৪) হাত ঝিম ঝিম করা
৫) মাথা ঘোরা
৬) গা বমি ভাব কিংবা বমি হওয়া
৭) ভারসাম্যের সমস্যা
৮) লাম্বার স্পন্ডিলোসিস

কারণ:

১) বয়সজনিত কারণ
২) বিলাসবহুল জীবনযাত্রায় আসক্তি
৩) দীর্ঘক্ষণ বসে কাজ করা
৪) অতিরিক্ত ঝুঁকে ভারী জিনিস তোলা
৫) নিয়মিত শরীরচর্চা না করা
৬) অতিরিক্ত ওজন
৭) ভিটামিন ডি ও ক্যালসিয়ামের অভাব
৮) সঠিক পদ্ধতিতে না বসা

কোমরে আর্থাইটিসের লক্ষণ:

১) অসহ্য কোমরে যন্ত্রনা
২) ব্যথা সাধারণত কোমর থেকে পায়ের দিকে নামে
৩) হাঁটলে ব্যথা কিন্তু বিশ্রাম নিলে ব্যথা চলে যাওয়া
৪) হাঁটতে হাঁটতে হঠাত্‍ পা আটকে যাওয়া
৫) পা ঝিনঝিন করা
সার্ভাইকাল স্পন্ডিলোসিসে বিশ্রাম জরুরি৷ লাম্বার স্পন্ডিলোসিসের ক্ষেত্রে প্রাথমিক পরীক্ষা হল এক্স-রে৷ কিন্তু অনেক সময় এক্স-রে’র রিপোর্ট অনুযায়ী রোগীর শারীরিক অবস্থা বোঝা যায় না৷ তাই ঠিক কোন জয়েন্টে কতটা ক্ষয় হয়েছে তা জানতে এমআরআই স্ক্যান করাতে হয়৷

চিকিত্‍সাঃ

১) পর্যাপ্ত পরিমাণ ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে (দুধ জাতীয় খাবার, সবুজ শাক সবজি, ফল)৷
২) নিয়মিত শরীরচর্চা করা৷
৩) ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা৷
৪) একটানা ১ ঘণ্টার বেশি বসে কাজ না করা৷ মাঝে মাঝেই উঠে একটু পায়চারি করতে হবে৷
৫) অতিরিক্ত ভারী ব্যাগ বহন না করা৷
৬) পড়ার টেবিলে গোল হয়ে বসে পড়াশোনা করা উচিত৷
৭) শক্ত বালিশ ও বিছানা ব্যবহার করা।
৮) ঘাড়ে বা কোমরে ব্যথা হলে তা ফেলে না রেখে চিকিত্‍সকের পরামর্শ নিতে হবে৷

। ।

মন্তব্য