kalerkantho


নির্ঘুম রাত? ঘুমের ৫ সমস্যা জেনে নিন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৪:২০



নির্ঘুম রাত? ঘুমের ৫ সমস্যা জেনে নিন

ঘুম মানুষের সুস্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। আর প্রতিদিন নির্দিষ্ট সময়ে ঘুমানো সবার সুস্বাস্থ্যের জন্যই অত্যন্ত দরকারি। সঠিকভাবে ঘুম না হলে স্বাস্থ্যের ওপর নানা ধরনের বিরুপ প্রতিক্রিয়া পড়ে। যদিও সারা বিশ্বের অসংখ্য মানুষ নানা কারণে সঠিকভাবে ঘুমাতে পারেন না। আর ঘুমের এ সমস্যার কারণে বহু ধরনের স্বাস্থ্যগত অসুবিধারও সম্মুখীন হতে হয়। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ফক্স নিউজ।

পুরুষের তুলনায় নারীরা ঘুমের সমস্যায় বেশি আক্রান্ত হন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ ক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি কারণে নারীদের ঘুমের সমস্যা বেশি অনুভূত হয়। এসব কারণের মধ্যে রয়েছে মাসিক চক্র, গর্ভাবস্থা ও মেনোপজ।

ঘুমের সমস্যায় আক্রান্ত হলেও অনেকে জানেন না যে তারা এ সমস্যায় আক্রান্ত। এ ক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি লক্ষণে প্রকাশিত হতে পারে এ সমস্যা।



১. হঠাৎ একদিন রাতে যদি ঘুম না হয় তাহলে একে ঘুমের সমস্যা বলা যাবে না। কারণ আপনি কোনো রোবট নন যে প্রতিদিন কোমায় থাকার মতো ঘুমাতে হবে। তবে নিয়মিত যদি এ সমস্যা হয় তাহলে আপনি অনিদ্রায় আক্রান্ত হতে পারেন। ঘুমের সমস্যার একটি হলো অনিদ্রা। এ সমস্যায় রাতে ঘুম আসে না কিংবা ব্যাঘাত ঘটে। আর এ সমস্যায় ছয় থেকে ১০ শতাংশ ব্যক্তি আক্রান্ত বলে জানা যায়। এ সমস্যার পেছনে বহু কারণ থাকতে পারে। মানসিক চাপ থেকে শুরু করে নানা ধরনের শারীরিক ও মানসিক সমস্যায় এটি হতে পারে। সাধারণত কারণগুলো দূর করে সঠিকভাবে জীবনযাপনের অভ্যাস গড়ে তুললে এ সমস্যা দূর হবে।

২. ঘুমের সময় হাত-পা কিংবা অন্য কোনো অঙ্গের নড়াচড়ার জন্য সমস্যা হতে পারে। একে মুভমেন্ট ডিসঅর্ডার বলা হয়। এ সমস্যায় হাত কিংবা পা ক্রমাগত নাড়ানোর তাগিদ অনুভূত হয়। তবে পায়ের নড়াচড়ার সমস্যা বেশি হওয়ায় একে রেস্টলেস লেগ সিনড্রোমও বলা হয়। এ সমস্যার ফলে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটে। এ ধরনের সমস্যা প্রায়ই নানা রোগজনিত সমস্যায় হয়ে থাকে। আর সে সমস্যা দূর হলে ঘুমের সমস্যাও দূর হয়। যদি এ সমস্যা থেকে যায় তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

৩. নিয়মিত যারা ঘুমান না তাদের ঘুমের ছন্দপতন হয়। আর এ সমস্যায় বেশি আক্রান্ত হন বিভিন্ন শিফটে কাজ করা কর্মীরা। এ সমস্যায় দেহের ঘড়ির সঙ্গে ঘুমের অভ্যাস সঠিক ছন্দে চলে না। এ ধরনের সমস্যার আরেকটি প্রকাশ হতে পারে জেটল্যাগের মাধ্যমেও।

৪. ঘুমের সময় শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যার কারণে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটতে পারে। অনেকেরই নানা কারণে ঘুমের সময় সঠিকভাবে শ্বাস নেওয়া হয় না। ফলে বারবার ঘুম ভেঙে যায়। নাক ডাকার কারণেও এমনটা হতে পারে। একে অবস্ট্রাকটিভ স্লিপ অ্যাপনিয়া (ওএসএ) বলা হয়। এতে দেহের নানা অংশে বাড়তি চাপ তৈরি হয় এবং বহু শারীরিক সমস্যাও দেখা দিতে পারে।

৫. অনেকেই দিনের বেলা কাজ করার সময় হঠাৎ করে ঘুমের মতো আচ্ছন্নতায় আক্রান্ত হন। এ সমস্যা মারাত্মক বিপদ ডেকে আনতে পারে। হঠাৎ ঘুম চলে আসায় রাস্তায় গাড়ি চালানোর সময় যেমন দুর্ঘটনার আশঙ্কা থাকে তেমন অন্যান্য সমস্যাও তৈরি হতে পারে। তবে এ সমস্যার কারণ হতে পারে রাতে অপর্যাপ্ত ঘুম। আপনার যদি এমন কোনো সমস্যা হয় তাহলে খেয়াল রাখতে হবে রাতে যেন পর্যাপ্ত ঘুম হয়। এতে অনেকেরই এ সমস্যা দূর হয়ে যায়।


মন্তব্য