kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সাবধান, ওজন বাড়লে আপনি পিছিয়ে যাবেন ১০ বছর!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ অক্টোবর, ২০১৬ ১৬:৩১



সাবধান, ওজন বাড়লে আপনি পিছিয়ে যাবেন ১০ বছর!

দেহের সঠিক ওজন নিয়ন্ত্রণ করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কারণ দেহের বাড়তি ফ্যাট শুধু আপনার দেহকেই ভারি করে দেয় না, এটি মস্তিষ্কের ওপরেও প্রভাব ফেলে।

আর এ কারণে মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতাও কমে যায়। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ফক্স নিউজ।
সম্প্রতি গবেষকরা ওজনের সঙ্গে বুড়িয়ে যাওয়ার বা মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা কমে যাওয়ার সম্পর্ক নির্ণয় করেছেন। এতে গবেষকরা জানিয়েছেন দেহের ওজন যাদের বেশি তাদের মস্তিষ্কের বেশ কিছু অংশের ওপর বিরূপ প্রতিক্রিয়া পড়ে। আর এতে তাদের মস্তিষ্কের বিভিন্ন অংশের মাঝে সংযোগ প্রক্রিয়ায় নানা ধরনের বাধা সৃষ্টি হয়।
গবেষকরা জানিয়েছেন, মস্তিষ্কের সাদা অংশ হলো এক ধরনের টিসু যা বিভিন্ন অংশের মাঝে যোগাযোগের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। আর এ অংশের সঠিক কার্যক্রমের মাধ্যমে স্মৃতিশক্তি ও চিন্তাভাবনার দ্রুততা নিশ্চিত হয়। কিন্তু এ অংশের টিসুগুলো বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কমে যায়। ফলে বয়স বাড়লে স্বভাবতই মানুষ ধীর হয়ে যায়।
কিন্তু গবেষকরা বলছেন বয়সের সঙ্গে সঙ্গে ধীর হয়ে যাওয়ার এ প্রক্রিয়া মোটা মানুষদের ক্ষেত্রে দ্রুত শুরু হয়। আর এ কারণে বাড়তি ওজনের ব্যক্তিদের মস্তিষ্ক তাদের বয়সের চেয়ে ১০ বছরের বড় ব্যক্তিদের মস্তিষ্কের মতো কাজ করে।
এ বিষয়টি গবেষণার জন্য গবেষকরা ৫২৭ জন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিকে অন্তর্ভুক্ত করেন। তাদের একাংশের বডি ম্যাস ইনডেক্স (বিএমআই) ছিল ২৫ এর বেশী এবং অন্য অংশের ছিল ২৫-এর কম। এরপর তাদের উভয়ের মস্তিষ্কের নানা পরীক্ষার পর এ পার্থক্য দেখতে পান গবেষকরা।
তবে গবেষকরা বলছেন, বাড়তি ওজনের ফলে মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা কমে গেলেও খুব কম ওজন হলে যে মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বেড়ে যাবে এমনটা নয়। অর্থাৎ মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বাড়াতে হলে ওজন কম বা বেশি নয়, সঠিক ওজন প্রয়োজন।
এ বিষয়ে গবেষণাটির ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে নিউরোবায়োলজি অব এজিং জার্নালে।


মন্তব্য