kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পায়ের লোম ছাঁটা বা শেভ করা পুরুষদের কীভাবে দেখেন নারীরা?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ অক্টোবর, ২০১৬ ১১:৩৩



পায়ের লোম ছাঁটা বা শেভ করা পুরুষদের কীভাবে দেখেন নারীরা?

প্রায় ৫০% পুরুষ স্বীকার করেছেন তারা তাদের পায়ের লোম ছাঁটেন বা কামিয়ে ফেলেন। আগে সাধারণত পেশাদার সাতারু এবং সাইকেলবিদদের দেহের লোম কামাতে বা ছাঁটতে দেখা যেত।

কিন্তু এখন সব পুরুষের মধ্যেই এই প্রবণতা বেড়ে চলেছে।

যুক্তরাজ্যের মেনস হেলথ সম্প্রতি তাদের ফেসবুক ফলোয়ারদের মাঝে জরিপ চালিয়ে দেখতে পার ১৫% পুরুষই তাদের পায়ের লোম পুরোপুরি কামিয়ে ফেলেন। আর ৩৩% স্বীকার করেছেন তারা পায়ের লোম ছেঁটে ছোট করে রাখেন। সবমিলিয়ে পুরষদের প্রায় অর্ধেকই এখন কোনো কোনো না উপায়ে নিজেদের পায়ের লোম ছোট করে রাখেন। কিন্তু কেন?

পুরুষদের বিবর্তনের একটি ধাপকে মেট্রোসেক্সুয়াল হিসেবে আখ্যায়িত করে সাফল্য অর্জনকারী মার্ক সিম্পসন এর পরবর্তী ধাপের নাম দিয়েছেন স্পর্নোসেক্সুয়াল। এরা হবেন এমন পুরুষ যারা নিজেদেরকে দেখতে ক্রীড়াবিদ বা পর্ন তারকাদের মতো করে উপস্থাপন করতে চাইবেন।

আর সম্ভবত মসৃণভাবে কামানো ত্বকের প্রতি এই আগ্রহ থেকেই পুরুষরা শরীর সচেতন হয়ে উঠছেন।

ওদিকে ওমেনস হেলথও এ সম্পর্কে তাদের ফেসবুক ফলোয়ারদের মাঝে এ বিষয়ে একটি জরিপ চালায়। ওই জরিপে নারীদেরকে জিজ্ঞেস করা হয়, পুরুষদের পায়ের লোম ছাঁটা বা কামানোর বিষয়টি তারা কীভাবে দেখেন? জরিপের ফলাফলে দেখা গেছে, ৩০% নারী সেসব পুরুষকে পছন্দ করেন যারা তাদের পায়ের লোম ছেঁটে ছোট করে রাখেন। আর ২২% নারী যেসব পুরুষ তাদের পায়ের লোম পুরোপুরি শেভ করে কামিয়ে পরিষ্কার করে রাখেন তাদেরকে ভালোবাসেন। তার মানে প্রায় ৫০% নারীই পুরুষদের পায়ের লোম ছাঁটা বা কামানোর বিষয়টি পছন্দ করেন। তবে বিষয়টি নিয়ে বিভক্তিও আছে।

রেড্ডিটের একটি মতামত জরিপে দেখা গেছে, পায়ের লোম ছাঁটা বা কামানো পুরুষের সংখ্যা বেড়ে চললেও অনেক নারীই বিষয়টি একদম পছন্দ করেন না।
রেড্ডিটের এক নারী ইউজার লিখেছেন, "মসৃণভাবে কামানো আরেকজোড়া পা আমাকে স্পর্শ করছে দেখতে পেলে আমার গা ছমছম করে ওঠবে। " আরেক নারী এর উত্তরে লিখেছেন: "আমার ধারণা কোনো যৌক্তিক কারণ ছাড়া কোনো পুরুষের পায়ের লোম কামানোর বিষয়টি আমি মেনে নিতে পারব না। কারণ আমি আমার পুরুষটির পায়ে লোম থাকাটা খুবই পছন্দ করি। "
সূত্র : দ্য ইনডিপেনডেন্ট


মন্তব্য