kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


রান্নাঘরের ১২টি গোপন টিপস

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ২১:১১



রান্নাঘরের ১২টি গোপন টিপস

পাকা রাঁধুনী না হয়ে থাকলে কোনো সমস্যা নেই। এখানে রান্না বিষয়ে বেশ কিছু টিপস দিচ্ছে আমেরিকাস টেস্ট কিচেন।

এখানে কাজ করেন খাবার বিষয়ক ৫০ জন বিশেষজ্ঞ। একই নামে একটি জনপ্রিয় কুকিং শো পরিচালনা করে তারা। এ প্রতিষ্ঠানের দুই রান্না বিষয়ক বিশেষজ্ঞ ব্রিগেট ল্যানকাস্টার এবং কলিন ডেভিসন দিচ্ছেন কিছু পরামর্শ।

১. টমেটো কাটতে... : একটা একটা করে টমেটো অর্ধেক করে কাটার কাজটা সময় খেয়ে নেয়। তার চেয়ে অন্য বুদ্ধি করুন। একটি প্লাস্টিকের পাত্রে অনেকগুলো টমেটো একসঙ্গে নিন। এগুলো পাত্রের ঢাকনা দিয়ে চেপে ধরে মাঝখান দিয়ে একবারে ছুরি চালান। সবগুলো একবারে অর্ধেক হয়ে যাবে।

২. শাক ধুয়ে শুকাতে... : পাত্রের মধ্যে শাকপাতা নিয়ে বার বার না ধুয়ে সালাদ স্পিনার ব্যবহার করুন। পানি ঝরার পর স্পিনারটি ঘুরিয়ে শাক শুকিয়ে নিন।

৩. মুরগীর মাংস পাতলা করে কাটতে... : এ কাজটি বেশ কঠিন। কিন্তু একটা বুদ্ধি করলে অনায়াসে নিখুঁত ও পাতলা করে মুরগীর মাংস কাটতে পারবেন। এগুলো কাটার আগে ১৫ মিনিটের জন্য রেফ্রিজারেটরে রেখে দিন। এবার কেটে দেখুন।

৪. কিচেন সিয়ার্সের কাজ : অনেক সময় বাঁচিয়ে দেবে এক জোড়া কিচেন সিয়ার্স। সবজি কাটা থেকে শুরু করে আস্ত মুরগীর রোস্ট বা গ্রিল কাটতে এর তুলনাই চলে না। ব্যবহার করে দেখুন।

৫. পাস্তার পানির ব্যবহার : পাস্তা রান্নার সময় তা সেদ্ধ করার পর পানি ফেলে দিতে হয়। এটি ফেলে দেবেন না। যদি বাড়িতেই সস বানিয়ে থাকেন, তবে পাস্তার সেই পানি সসে মিশিয়ে নিন। এতে সসের স্বাদ ও চেহারা বদলে যাবে।

৬. ময়দার তাল ফ্রিজে : কুকি বানাতে ময়দার তাল তৈরি করতে হয়। পুরোটুকু দিয়ে একবারে কুকি না বানিয়ে বাকিটুকু ফ্রিজে রেখে দিন। এতে করে বার বার ময়দার তাল বানাতে হবে না। আবার কুকির আকৃতি দিয়ে যদি তা ফ্রিজে রাখেন, তবে পরবর্তিতে ফ্রিজ থেকে সরাসরি ওভেনে দিতে পারবেন।

৭. কাটিং বোর্ডকে স্থির রাখতে... : কাটিং বোর্ডটি বেশ পিচ্ছিল হয়। একে স্থির রাখতে নিচে একটি কর্কশ তোয়ালে বা কিচেন টিস্যু ভিজিয়ে দিয়ে রাখুন। দেখবেন যতই কাটাকাটি করুন, বোর্ডটি নড়াচড়া করবে না।

৮. কাটিং বোর্ডের আবর্জনা ফেলতে... : কাটিং বোর্ডের একপাশে একটি পলিথিন বা কাগজ দিয়ে রাখুন। সবজি কাটার সময় বাড়তি অংশগুলো সহজেই ওই কাগজ বা পলিথিনে ফেলে দিন। স্রেফ হাত দিয়ে বা যে চাকু দিয়ে কাটছেন তার ব্যবহারেই কাজটি করা যাবে। কাজ শেষে পলিথিন বা কাগজটি ভাঁজ করে ফেলে দিন। এতে ময়লা ছড়াবে না।

৯. দ্রুত বাদাম ভাজতে... : অনেক খাবার তৈরিতে বাদাম দারকার হয়। বাদাম ভেজে নেওয়াটা বেশ কঠিন কাজ। কিন্তু অতি সহজেই সম্ভব। বাদাম বা শীম ও মিষ্টি কুমড়ার বিচি ভেজে নিতে মাইক্রোওয়েভ ওভেন ব্যবহার করুন। আধা কাপ কাঁচা বাদাম নিয়ে ওভেন পুরো তাপমাত্রায় গরম রাখুন ২ মিনিট। বাদামী হয়ে উঠলে বের করে একটি পেপার তোয়ালেতে ছড়িয়ে দিন।

১০. সহজে আদা-রসুন বাঁটা : একটি মাইক্রোপ্লেন রাস্পের মাধ্যে আদা-রসুন একেবারে বেঁটে নেওয়া যায়। এদের মাইক্রোপ্লেনে গ্রেট করুন। আলাদাভাবে মিশিয়েও নিতে হবে না। যেকোনো তরকারি বা সসে ব্যবহারের জন্য আদর্শ জিনিস মিলবে।

১১. আঠালো তরল সামলাতে... : কোনো আঠালো তরল মাপা ও ব্যবহারের সময় তা পাত্রে লেগে থাকে। যে পাত্রে নিচ্ছেন তাতে তেল স্প্রে করে দিন। দেখবেন এক ফোঁটা তরলও লেগে নেই।

১২. প্যান থেকে ব্রেড বা ব্রাউনি তুলতে... : এ কাজে জাদু দেখাবে স্লিং। প্যান থেকে ব্রেড, ব্রাউনি ও ব্লন্ডি তুলতে গেলে প্রায়ই ভেঙে যায়। এগুলো পাত্রে দেওয়ার আগেই অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল পেপার বা পার্চমেন্ট কাগজ দিয়ে প্যানের মাঝখানে দুইটি বা তিনটি ফিতা তৈরি করুন। এদের দুইপাশ যেন একটু বড় থাকে। প্যানের ওপর দিয়ে এগুল বেরিয়ে আসবে হ্যান্ডেলের মতো। রান্নার পর ঠাণ্ডা হয়ে আসলে ফয়েল পেপার ধরে তুলে আনুন। একটুও প্যানে লেগে যাবে না। সূত্র : বিজনেস ইনসাইডার

 


মন্তব্য