kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ডাক্তার ও নার্সদের প্রতি খোলা চিঠি, যারা আমার স্ত্রীর চিকিৎসা করেছিলেন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ অক্টোবর, ২০১৬ ১৫:৫৩



ডাক্তার ও নার্সদের প্রতি খোলা চিঠি, যারা আমার স্ত্রীর চিকিৎসা করেছিলেন

লেখক পিটার ডিমার্কো ও তার স্ত্রী লরা লেভিস স্কটল্যান্ডে

মারাত্মক অ্যাজমাতে আক্রান্ত হয়ে মারা যান লরা লেভিস নামে এক নারী। আর এ নারীর স্বামী ও লেখক পিটার ডিমার্কো তার স্ত্রীর অসুস্থ সময়ের চিকিৎসক ও নার্সদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন এক খোলা চিঠিতে।

তার স্ত্রী চিকিৎসাধীন ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুটসের সিএইচএ কেমব্রিজ হাসপাতালে। সে হাসপাতালের স্টাফদের প্রতিই তিনি তার চিঠিতে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে নিউ ইয়র্ক টাইমস।

আমি আমার বন্ধু-বান্ধব ও পরিবারের সদস্যদের বলতে চাই আপনারা আমার স্ত্রী লরা লেভিসকে কতটা যত্নের সঙ্গে চিকিৎসা করেছেন সাত দিন। আর এ কারণে সে তার শেষ দিনগুলোতে আপনাদের উপকার পেয়েছে। যারা তার জন্য কাজ করেছেন তাদের তালিকায় রয়েছেন চিকিৎসক, নার্স, রেসপাইরেটরি বিশেষজ্ঞ, সোশাল ওয়ার্কার ও এমনকি পরিচ্ছন্নতাকর্মীরাও। আমি তাদের প্রায় ১৫ জনের নাম মনে রাখতে পেরেছিলাম।

তারা জিজ্ঞাসা করতেন, আপনি কিভাবে তাদের নাম মনে রাখতে পারেন?
আমি উত্তর দিতাম, আমি কেন পারব না?

প্রতিটি ঘটনায় আপনারা লরাকে পেশাগত দক্ষতার সঙ্গে চিকিৎসা করেছিলেন। এ ছাড়া সে যখন অজ্ঞান অবস্থায় শুয়ে ছিল সে সময়ও আপনাদের দয়া, সম্মান ও আন্তরিকতার কোনো ঘাটতি ছিল না। তার যখন কোনো ইনজেকশন দেওয়ার প্রয়োজন হচ্ছিল, তখন তারা জানিয়ে দিচ্ছিলেন, এটি সামান্য লাগতে পারে। সে শুনতে পাক কিংবা না পাক। আপনারা যখন স্টেথেস্কোপ দিয়ে তার হৃৎস্পন্দন ও ফুসফুসের শব্দ শুনছিলেন তখন তার গাউন নেমে যাচ্ছিল। আপনারা দ্রুত তা ঠিক করে দিচ্ছিলেন। আপনারা তার জন্য কম্বলের ব্যবস্থা করেছিলেন। তার দেহের তাপমাত্রা নিয়মিত মাপা হচ্ছিল। প্রয়োজনমতো কক্ষের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছিল। কোন তাপমাত্রায় তার ঘুমের সুবিধা হবে তা নিয়ে আপনারা চিন্তাভাবনা করছিলেন।

আপনারা তার বাবা-মায়ের জন্যও সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন। তাদের পক্ষে ওপরে উঠে এসে তার কক্ষে প্রবেশ করা কঠিন ছিল। আর এ কারণে আপনারা তাদেরও সহায়তা করেছিলেন। এ ছাড়া সবার বিভিন্ন প্রশ্নেরও জবাব দিয়েছিলেন আপনারা।

এ ছাড়া আপনারা আমার প্রতিও সহানুভূতিশীল ও সহযোগিতাপূর্ণ আচরণ করেছিলেন। আমি আপনাদের ছাড়া কিভাবে এত শক্তি পেতাম?

কক্ষে আপনারা কতবার প্রবেশ করেছিলেন এবং আমাদের সুবিধা-অসুবিধা দেখেছিলেন? প্রায়ই আমার মাথা নোয়ানো থাকত। বিশ্রাম করতাম। আপনারা নীরবে নিজের কাজ করে গিয়েছেন। তার দেহে নানা টিউব ও তার জড়ানো ছিল। এগুলো আপনারা ঠিকঠাক করে দিতেন।

আমার কোনো কিছু লাগবে কি না, এসব বিষয় আপনারা কতবার জিজ্ঞাসা করতেন তার কোনো হিসাব নেই। খাবার-পানীয় থেকে শুরু করে ফ্রেশ পোশাক ও গরম পানিতে গোসলের মতো বিষয়গুলো হয়ত চিকিৎসাবিজ্ঞানে ছিল না। কিন্তু এসব বিষয়েও আপনাদের মনোযোগ ছিল।

লরার জীবন ও ব্যক্তিত্ব নিয়ে আমি যখন কথা বলতে গিয়েছি তখন কতবার আপনারা আমাকে আলিঙ্গন করেছেন? তার ছবি ও অন্যান্য বিষয় নিয়েও ছিল আলোচনা। কতবার লরার শারীরিক অবস্থার অবনতি আপনারা দুঃখ ভারাক্রান্ত চোখ নিয়ে আমাকে বলেছেন?

আমার যখন জরুরি কাজে কম্পিউটার ও ই-মেইল ব্যবহারের প্রয়োজন হয়ে পড়ে তখন আপনারা এর সুযোগ করে দিয়েছেন। আমি যখন একজন বিশেষ অতিথি- লরার বিড়ালকে তার সঙ্গে দেখা করানোর কথা বলি তখন আপনারা বিষয়টি সহজ করে দিয়েছিলেন।

বিশেষ একদিন বিকেলে লরার পরিচিত ৫০ জন আইসিইউতে দেখা করতে চান। আর এ সুযোগটিও করে দেন আপনারা। এটি ছিল আমাদের বিয়ের পর সবশেষ দারুণ রাত। এটি কি আপনাদের সহায়তা ছাড়া সম্ভব হতো?

শেষ দিনটি ছিল লরার অঙ্গ দান করার সার্জারি। আমি চাইছিলাম একা তার সঙ্গে থাকতে। কিন্তু পরিবারের সদস্য ও বন্ধুরাও বিদায় জানাতে চাইছিলেন। ঘড়ি টিকটিক করছিল। অনেকেই এসেছিল। বিকাল ৪টার সময় সবাই চলে গেল।

আমি মনে করতে পারি আমাদের জীবনের শেষ কয়েক ঘণ্টা। আমার বাকি জীবনে এ সময়টির কথা মনে থাকবে। এটি ছিল উপহারের পর উপহার।

সত্যিই আমি আমার মন থেকে আপনাদের ধন্যবাদ জানাতে চাই। আমার মনের সম্পূর্ণ কৃতজ্ঞতা ও ভালোবাসা দিয়ে।
- ইতি পিটার ডিমার্কো


মন্তব্য