kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আক্কেল দাঁত তুলবেন? সাবধান!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:১৬



আক্কেল দাঁত তুলবেন? সাবধান!

ব্যথা বড্ডই হয়! সেটা তো আর অস্বীকার করা যায় না!

কিন্তু, একেবারে শিকড় থেকে উপড়ে ফেলাতেই কি সমাধান?

আক্কেল দাঁত নিয়ে খুব একটা জোর গলায় কিন্তু কথাটা বলা যাচ্ছে না। যা দেখা যাচ্ছে, চিকিৎসকরা আক্কেল দাঁত তোলা নিয়ে ভাগ হয়ে গিয়েছেন দুই দলে! মতপার্থক্যের কারণটা পুরোপুরিই ব্যথা সংক্রান্ত।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত এক চিকিৎসক সম্মেলনে আসলে আক্কেল দাঁত তোলা নিয়ে বিস্তর কথা চালাচালি হয়েছে। সব চিকিৎসকেরই প্রধান বক্তব্য একটাই- এই নিয়ে স্পষ্ট কোনও মতামত কোথাও লিপিবদ্ধ করা নেই কেন!

নেদারল্যান্ডসের ব়্যাডবাউড বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিক্যাল সেন্টারের গবেষক এবং চিকিৎসক হুসেন ঘামিনিয়াই যেমন অবাক হয়েছেন এই প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে। ‘সারা পৃথিবীর মানুষই আক্কেল দাঁত নিয়ে সমস্যায় পড়ে। কেউ আক্কেল দাঁত তুলে সমস্যার হাত থেকে নিষ্কৃতি পায়। কেউ বা আবার জীবনভর ওই আক্কেল দাঁত নিয়েই বহাল তবিয়তে থাকে। কিন্তু, ঠিক কী করা উচিত, তা নিয়ে স্পষ্ট কোনো বিধি কোথাওই নেই। কেন?’ প্রশ্ন তুলছেন ডাক্তার ঘামিনিয়া।

ঘামিনিয়া আরও জানাচ্ছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সমস্যা না হলেও আক্কেল দাঁত তুলে ফেলাটা খুব স্বাভাবিক একটা ব্যাপার! অন্য পক্ষে, ব্রিটেনের চিকিৎসকরা সমস্যা না হলে আক্কেল দাঁত তোলার ঘোরতর বিরোধী!

তাহলে?

ওই যে, পুরোটাই আদতে ব্যথার সঙ্গে যুক্ত! আসলে আক্কেল দাঁতকে চিকিৎসার পরিভাষায় বলা হয় থার্ড মোলার্স। সাধারণত ১৭ থেকে ২৬ বছরের মধ্যে আরেকটা দাঁত বা সেকেন্ড মোলার্সের একেবারে গায়ে গায়ে মাথা তোলে এই থার্ড মোলার! এখন দু’জনের সম্পর্কের মধ্যে তৃতীয় ব্যক্তি ঢুকলে যেমন সমস্যা হয়, এখানেও তার ব্যতিক্রম হয় না। আক্কেল দাঁতের চাপে দাঁতের গোড়া ফুলে যায়, ব্যথা হয়, কখনও কখনও ঘা তৈরি হয়ে যায়!

আর এরকমটা হলেই তবেই না কি আক্কেল দাঁত তুলে ফেলাটা যুক্তিযুক্ত! কোনও সমস্যা না হলে আক্কেল দাঁত না তোলাই ভাল। কেন না, সেক্ষেত্রে বেশির ভাগ সময়েই সার্জারির সাহায্য নিতে হয়। আর ব্যথাহীন আক্কেল দাঁত সার্জারি করে তুলে ফেললে তার থেকেই দেখা দিতে পারে নানা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। এমনকী, হাড় ও দাঁতের ক্ষয় রোগে পর্যন্ত ভুগতে হতে পারে!

আর কী! ব্যাপারটা তো আপনি জেনেই নিলেন! এবার সেই মতো সতর্ক থাকুন!

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন


মন্তব্য