kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


জীবন সম্পর্কে অসাধারণ ৪ তথ্য জানা গেল গবেষণায়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৭:৫৮



জীবন সম্পর্কে অসাধারণ ৪ তথ্য জানা গেল গবেষণায়

ভালো থাকার নানা উপায় নিয়ে ক্রমাগত চলছে গবেষণা। এসব গবেষণার কোনো কোনোটি আমাদের কাজে লাগে আবার কোনো কোনোটি কোনো কাজেই আসে না।

এ লেখায় তুলে ধরা হলো কয়েকটি গবেষণার ফলাফল, যা ভালো থাকার নানা উপায় জানাবে। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।
অগোছালো থাকায়- সৃজনশীলতা
অগোছালো থাকার কোনো উপকারিতা রয়েছে কি? সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব মিনেসোটার গবেষণায় তেমন তথ্যই উঠে এসেছে। এতে গবেষকরা জানিয়েছেন, অগোছালো থাকার সঙ্গে সৃজনশীলতার সম্পর্ক রয়েছে। অগোছালো ব্যক্তিরা সৃজনশীল হয়, এ বিষয়টি অনেকে আগে সন্দেহ করলেও তথ্যপ্রমাণ ছিল না। কিন্তু গবেষকরা সাম্প্রতিক গবেষণার ভিত্তিতে এ বিষয়টির প্রমাণ পেয়েছেন। গবেষকরা জানিয়েছেন, পরিষ্কার ও গোছালো স্থানে যারা বসবাস করে তারা স্বাস্থ্যকর খাবার ও আরও নানা ধরনের সুবিধা পেয়ে থাকেন। তবে যারা অগোছালো কক্ষে বাস করেন, তাদের বিষয়টিও খুব একটা মন্দ নয়। কারণ অগোছালো ব্যক্তিরা সৃজনশীল হয় এবং নানা ধরনের আইডিয়া তাদের মাথায় গিজগিজ করে।

ডার্ক চকলেটে বহু উপকার
যে বাবা-মায়েরা শিশুকে চকলেট খেতে দেন না, তাদের মন গলানোর জন্য এ সংবাদ কাজে আসতে পারে। কারণ ডার্ক চকলেট খেলে মাংসপেশির বৃদ্ধি ও মস্তিষ্কের চিন্তা করার ক্ষমতা বাড়ে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। এ বিষয়ে গবেষণার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে ফিজিওলজি জার্নালে। গবেষকরা জানিয়েছেন, ডার্ক চকলেট ঠিক সেই উপায়ে কাজ করে, যে উপায়ে শারীরিক অনুশীলনের ফলে মাংসপেশির বৃদ্ধি হয়। এছাড়া এটি অংক করার ক্ষমতাও বৃদ্ধি করে।

দুপুরে ভাতঘুম- বুদ্ধিমত্তার প্রকাশ
অনেকেই দুপুরে খাওয়ার পর ভাতঘুমে কাবু হয়ে পড়েন। গবেষকরা বলছেন, দুপুর তিনটার পর ঘুমের কারণে যারা কাজকর্ম সঠিকভাবে করতে পারেন না, কিংবা কোনো বিষয়ে মনোযোগ দিতে পারেন না তাদের মস্তিষ্ক অন্যদের তুলনায় বুদ্ধিমান। অর্থাৎ দুপুরে যারা ঘুমে ঢলে পড়েন তারা অন্যদের তুলনায় মেধাবী। এ ধরনের মানুষের মস্তিষ্ক ক্রমাগত নিত্যনতুন বিষয়ের আইডিয়া নিয়ে চিন্তাভাবনা করে। আর সে কারণে তারা দুপুরে একটু ঘুমে ঢুলু ঢুলু হয়ে পড়লেও অন্য সময়ে তা পুষিয়ে দেয়।

বাঁকযুক্ত দেহের নারী- অন্যদের তুলনায় বুদ্ধিমান
বাঁকযুক্ত দেহ রয়েছে এমন নারীকে অনেকেই পছন্দ করেন। আর যে নারীর দেহে বেশি বাঁক রয়েছে, তাদের বুদ্ধিমত্তা অন্য নারীদের তুলনায় বেশি হয়। সম্প্রতি মার্কিন এক গবেষণায় এমন তথ্যই জানা গেছে। গবেষকরা জানিয়েছেন, যে নারীর দেহে বাঁক রয়েছে তারা অন্য নারীদের তুলনায় বেশি বুদ্ধিমান। এমনকি তাদের সন্তানদেরও বুদ্ধিমত্তা বেশি হয়। এক্ষেত্রে একটি মাপকাঠির কথাও তারা বলেছেন- যে নারীর কোমর ও হিপের পার্থক্য যত বেশি হবে তার বুদ্ধিমত্তাও তত বেশি হবে।


মন্তব্য