kalerkantho

রবিবার । ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ । ৭ ফাল্গুন ১৪২৩। ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ইন্টারভিউটি স্মরণীয় করে রাখতে চান?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৯:৫১



ইন্টারভিউটি স্মরণীয় করে রাখতে চান?

১. প্রথমেই ইন্টারভিউয়ারকে চমকে দিন। এমনকি চেয়ারে বসার আগেও স্মার্ট কোনো প্রশ্ন করতে পারেন, যা তাদের অভিভূত করবে। এ প্রশ্ন হতে পারে তাদের প্রতিষ্ঠান বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ কোনো বিষয় কিংবা এমন কিছু যা অন্যরা আলোচনা করবে না। আর এতেই ইন্টারভিউয়ার আপনার প্রতি ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি পোষণ করবে।
২. আপনাকে যখন প্রশ্ন করা হবে এমন কোনো বিষয়, যার নিশ্চিত কোনো উত্তর নেই, তা ব্যবহার করে ইন্টারভিউয়ারের সঙ্গে আলাপ জমিয়ে তুলুন।
৩. আপনার ক্যারিয়ারের ইতিহাস বর্ণনা করুন গল্প আকারে। এমনকি আপনার বিষয়ে কোনো কাঠখোট্টা প্রশ্ন থাকালেও তা গল্প আকারে উপস্থাপন করা যায়।
৪. ইন্টারভিউতে আপনার অবশ্যই তারা যা যা বলছেন, তা মনোযোগ সহকারে শুনতে হবে এবং সে অনুযায়ী উত্তর দিতে হবে। এক্ষেত্রে নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ চাইবে আপনি সব প্রশ্ন সঠিকভাবে বুঝছেন এবং তার উত্তর দিতে পারছেন কি না, নিশ্চিত হতে। আর এ বিষয়টিতে আপনার অবশ্যই বাড়তি মনোযোগ দিতে হবে।
৫. আপনাকে কোনো একটি প্রশ্ন করলে শুধু তার উত্তর যে দিতে হবে এমন কোনো কথা নেই। আপনি সে প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পাশাপাশি একটি ফলোআপ প্রশ্ন করতে পারেন, যা আপনাকে অন্যদের থেকে আলাদা হিসেবে পরিচিত করবে। যেমন আপনাকে প্রশ্ন করা হলো, ‘আপনি সফটওয়্যারটির কোন ভার্সন ব্যবহার করেন?’ এ প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পাশাপাশি জিজ্ঞাসা করতে পারেন, ‘এখানে কোন ভার্সনটি ব্যবহার করেন?’
৬. এ বিষয়টি মনে রাখতে হবে যে, ইন্টারভিউ বোর্ডে যিনি কথা বলছেন, তিনি চাইছেন আপনি তার কথাটি মনোযোগ দিয়ে শুনুন। আর তাই এ কাজটি করতে হবে আবেগ দিয়ে। এজন্য প্রয়োজনীয় প্রশ্ন করে তাকে আরও কথা বলার সুযোগ দিতে হবে।
৭. আপনাকে যখন কোনো কাজের কথা বলা হবে তখন ‘আমি পারব’ কিংবা ‘আমি পারি’ এ ধরনের কথা না বলে একটু ভিন্নভাবে বলতে হবে। এক্ষেত্রে ‘আমি কাজটি অনেকদিন ধরে করছি,’ কিংবা ‘আমি এ বিষয়ে এক্সপার্ট’ এমন উত্তর দেওয়াই ভালো।
৮. ইন্টারভিউয়ের সময় অল্প সময়ে সঠিক উত্তর দেওয়াটাই সাফল্যের জন্য যথেষ্ট নয়। এজন্য আপনার অন্যদের থেকে নিজেকে স্বতন্ত্র হিসেবে উপস্থাপন করতে হবে। এজন্য কিছুটা মানবিক হতে হবে। নিজের আবেগ, অভিজ্ঞতা ইত্যাদি তাদের সঙ্গে বিনিময় করতে হবে।
৯. ইন্টারভিউতে জড়তা কাটিয়ে প্রাণবন্ত কথা বলার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। আপনি যদি নিজের স্বাভাবিক কণ্ঠে কথা না বলেন তাহলে তাতে ইন্টারভিউয়াররা অভিভূত নাও হতে পারেন। তাই মনে রাখতে হবে, আপনি এখানে নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করতে এসেছেন, সবচেয়ে নম্র-ভদ্র ব্যক্তি হিসেবে নিজেকে উপস্থাপন করতে আসেননি।
--ফোর্বস অবলম্বনে ওমর শরীফ পল্লব

 


মন্তব্য