kalerkantho


বিনা পয়সায় বই পড়ুন ইন্টারনেটে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৪৮



বিনা পয়সায় বই পড়ুন ইন্টারনেটে

বিনা পয়সায় বই পড়ুন। বইয়ের দোকানে না গিয়েই।

ভাবছেন এও কী সম্ভব?‌ দিব্যি সম্ভব!‌ ভুরি ভুরি ওয়েবসাইট রয়েছে। ই–মেল আই ডি দিয়ে রেজিস্টার করলেই হল। মাসে ঝুরি ঝুরি বই কম্পিউটার বা স্মার্ট ফোনের ঝুলিতে জমা হবেই। মন চাইলেই খুলে বসুন। ভাবছেন কোন ওয়েবসাইটটি দেখবেন?‌ রইল বিনা পয়সায় বই পড়ার কয়েকটি ওয়েবসাইটের হদিশ—

সালটা ১৯৭১। ইন্টারনেট নামক বস্তুটি কী জনাকয়েক মানুষই তা জানতেন। আমেরিকার বইয়ের বাজারে তখন থেকেই জাঁকিয়ে বসেছে ‘‌প্রজেক্ট গুটেনবার্গ’‌। ফোনে ইন্টারনেট চালু হওয়ার পর এখন অনেক নতুন নতুন সাইট তৈরি হয়েছে। কিন্তু পুরনো বইয়ের ক্ষেত্রে তারাও ‘‌প্রজেক্ট গুটেনবার্গ’-এর লিঙ্ক দিয়েই কাজ চালায়। লেখকের নাম বা বইয়ের নাম দিয়ে খুঁজলেই আপনার বইটি পেয়ে যাবেন। কম্পিউটার বা মোবাইলের নির্দিষ্ট ফোল্ডারে সেভ করে নিন। অবসর সময় খুলে বসুন।

ইন্টারনেট আর্কাইভ:‌ ১৯৯৬ সালে পত্তন। ডিজিট্যাল বইয়ের পাশাপাশি, সেগুলির ভিডিও এবং অডিও রেকর্ডও মিলবে। বইয়ের নাম বা লেখকের নাম দিয়ে খুঁজলেই হবে। জনপ্রিয়তার নিরিখেও নিজের পছন্দের বইটি বেছে নিতে পারেন আপনি।

ই–বুকস:‌ ক্লাসিকস থেকে সদ্য প্রকাশিত- ‘‌ই–বুকসে’‌ সব কিছু হাতের কাছে পাবেন আপনি। মিলবে বাংলা, হিন্দি, ইংরেজি সব ভাষার বই। ইমেল আই ডি দিয়ে রেজিস্টার করলেই হবে। তবে মাসে পাঁচটির বেশি বই ডাউনলোড করতে পারবেন না। পাঁচটির বেশি হলে টাকা লাগবে। তবে সেক্ষেত্রে বিশেষ ছাড় দেওয়া হয়।

স্ম্যাশওয়ার্ডস:‌ ছাত্রছাত্রীদের ও তরুণদের মধ্যে ‘‌স্ম্যাশওয়ার্ডস’‌ বেশ জনপ্রিয়। শেক্সপিয়র, ড্যান ব্রাউনের পাশাপাশি হালফিলের স্টেফানি মায়ার্স বা ই এল জেমসের লেখাও পেয়ে যাবেন। তরুণ লেখকরাও নানা ধরনের প্রচ্ছদ লেখার সুযোগ পেয়ে থাকেন। ‌‌

সূত্র: আজকাল


মন্তব্য