kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সাবান ছাড়া আর কী কী দিয়ে মুখ ধুতে পারেন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৩:৫৩



সাবান ছাড়া আর কী কী দিয়ে মুখ ধুতে পারেন

সাবান বা ফেসওয়াশ নয়, মুখ পরিষ্কার করতে পারেন প্রাকৃতিক উপায়ে। বহু যুগ আগে যখন ফেসওয়াশ, সাবান ছিল না, তখন সকলে ব্যবহার করত প্রাকৃতিক উপাদান জিনিস।

মধু, দুধ, বেসন, মসুর ডাল বাটা, মুলতালি মাটি, চন্দন, দই, ইত্যাদি। যাকে বলে খাটি জিনিস। তাঁদের ত্বকের উজ্জ্বলতাও ছিল ততটাই নজরকাড়া। আজকাল বাজারে সব প্রোডাক্টেই ভেজাল। রূপের উজ্জ্বলতা তো দূর, উলটে এসবের ব্যবহারে ত্বকের বারোটা বেজে যায়। তাই উজ্জ্বল ও স্বাস্থ্যকর ত্বক পেতে বাজারের প্রসাধনী সামগ্রীর বদলে মুখ ধুয়ে ফেলুন এইসব জিনিসপত্র দিয়ে :

দুধ : কাঁচা দুধ মুখ পরিষ্কার করতে অন্যতম একটি প্রাকৃতিক উপাদান। এটি শুধু মুখ ঝকঝকে পরিষ্কারই করে না, ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করে। কোমলতা এনে দেয়। প্রত্যেক দিন কাঁচা দুধ দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।

মধু : মধু অন্যতম একটি প্রাকৃতিক স্ক্রাবার হিসেবে কাজ করে। ত্বকের ধুলোবালি পরিষ্কার করে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়। সামান্য মধু ত্বকের ওপর লাগিয়ে রাখুন কিছুক্ষণ, তারপর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

দই : দইয়ের মধ্যে রয়েছে ল্যাক্টিক এসিড। যা অন্যতম একটি প্রাকৃতিক ক্লিনজার। সামান্য দই ত্বকের ওপর লাগিয়ে নিন। ১০ মিনিট রাখুন। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

লেবু : ফেসওয়াশ বা সাবানের বদলে মুখ পরিষ্কার করতে পারেন লেবুর সাহায্যে। লেবু প্রাকৃতিক ক্লিনজার ও ব্লিচ হিসেবে কাজ করে। প্রত্যেক দিন লেবু দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করলে ত্বক উজ্জ্বলও হবে।

পাকা কলা : গোসলের আগে পাকা কলা চটকে নিয়ে মুখের ওপর কিছুক্ষণ ঘষে নিন। ত্বকের সব ধুলোবালি দূর করতে কলা খুব ভালো কাজ দেয়। সেই সঙ্গে ত্বক অনেক বেশি সতেজ দেখায়।

ডিমের কুসুম : ডিমের কুসুমের মধ্যে রয়েছে প্রাকৃতিক ক্লিনজিং উপাদান। মুখের ওপর ডিমের কুসুম মিনিট ১০ লাগিয়ে রাখুন। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন, মুখ পরিষ্কার হয়ে গেছে।

বেসন : সবার বাড়িতে বেসন থাকেই। সামান্য বেসন জলে মিশিয়ে ত্বকের ওপর লাগিয়ে রাখুন কিছুক্ষণ। শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখুন ত্বক কেমন উজ্জ্বল দেখায়।

মসুর ডাল বাটা : রাতে সামান্য মসুর ডাল পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। সকালে উঠে ঘন পেস্ট তৈরি করে নিন। তার মিশ্রণ মুখের ওপর লাগিয়ে রাখুন বেশ কিছুক্ষণ। শুকিয়ে যেতে শুরু করলে আলতো ঘষে নিয়ে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। মুখ পরিষ্কার হয়ে যাবে।

মুলতানি মাটি : মুখ পরিষ্কার করার জন্য মুলতানি মাটি খুব ভালো কাজ দেয়। পানি বা গোলাপ জলে মুলতানি মাটি মিশিয়ে নিন। ত্বকের ওপর লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট। তারপর ধুয়ে ফেুলন। ত্বক পরিষ্কার হওয়ার সঙ্গে ত্বকে উজ্জ্বলতা ফুটে উঠবে।

চন্দন : গুঁড়ো চন্দন বা সাধারণ চন্দন পানি দিয়ে সামান্য ঘষে ঘন পেস্ট তৈরি করে নিন। মিশ্রণটি ত্বকের ওপর লাগিয়ে আলতো হাতে ঘষে নিন। কিছুক্ষণ রাখার পর মুখ ধুয়ে ফেলুন।


মন্তব্য