kalerkantho


বিশ্বের সফলতম ব্যক্তিরা যেভাবে সকালে কাজ শুরু করেন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৭ মার্চ, ২০১৬ ১৩:৫১



বিশ্বের সফলতম ব্যক্তিরা যেভাবে সকালে কাজ শুরু করেন

সকালের কার্যক্রম শুরু করতে সফল ব্যক্তিরা কোনো নির্দিষ্ট উপায় অবলম্বন করেন কি? এ বিষয়ে বিশ্বের সফলতম কয়েকজন ব্যক্তির উদাহরণ জেনে নেওয়া যেতে পারে। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে বিজনেস ইনসাইডার।
১. দৈনিক ইউনিফর্ম পরা
সকালে উঠে আমাদের অনেকেই কোন পোশাক পরা উচিত তা নিয়ে চিন্তাভাবনা শুরু করেন। এতে প্রচুর সময়ও নষ্ট হয়। এ সমস্যা দূর করার জন্য ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ সকালে উঠেই দৈনিক একটি নির্দিষ্ট রংয়ের পোশাক পরেন। একই বিষয় অনুসরণ করতেন অ্যাপলের প্রয়াত সিইও স্টিভ জবস। প্রতিদিন তারা একটি নির্দিষ্ট রংয়ের পোশাক পরতেন। এতে পোশাক নিয়ে বাড়তি চিন্তাভাবনা করতে হতো না।
প্রতিদিন একটি নির্দিষ্ট রংয়ের পোশাক পরায় আপনার নিজের পোশাক নিয়ে ভাবতে হবে না। এতে বিশ্বের অন্যান্য বহু বিষয় নিয়ে চিন্তাভাবনার সময় পাবেন আপনি।
এ বিষয়ে জাকারবার্গ বলেন, 'আমি সত্যিই আমার জীবনকে পরিচ্ছন্ন রাখতে চাই যেন আমার দৈনন্দিন সিদ্ধান্ত কম গ্রহণ করতে হয়। এতে সমাজের সেবায় বেশি করে চিন্তাভাবনার জন্য সুযোগ পাওয়া যায়। '

২. উপভোগ্য কাজ করা
ঘুম থেকে ওঠার সময় যদি আপনার মনের মাঝে থাকে যত অপ্রিয় কাজ করার তাগিদ তাহলে তা মোটেই দিনটিকে ভালোভাবে শুরু করার জন্য উৎসাহ যোগাবে না। তাই আপনার প্রিয় কাজগুলোকেই সবার আগে করার কথা ভাবুন। ভোগ ম্যাগাজিনের এডিটর ইন চিফ অ্যানা উইনটোর জানান, তিনি তার দিন শুরু করেন এক ঘণ্টা টেনিস খেলে। সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী মার্গারেট থ্যাচার প্রতিদিন সকালে উঠতেন 'ফার্মিং টুডে' নামে রেডিওর অনুষ্ঠান শোনার জন্য। উভয় ব্যক্তিই জীবনে অত্যন্ত সফল ছিলেন এবং তারা সকালটি তাদের উপভোগ্য কাজ দিয়েই শুরু করতেন। তাই বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দেন দৈনিক সকালে প্রিয় কাজটি করার জন্যই ঘুম থেকে উঠুন।
৩. সঠিক পরিস্থিতির জন্য অপেক্ষা নয়
আপনি যদি সকালে প্রতিদিন একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের জন্য অপেক্ষা করতে থাকেন তাহলে ভুল করবেন। কারণ প্রতিটি দিনই আলাদা। আর এ ধরনের প্রতিটি দিনের জন্য পৃথকভাবে প্রস্তুতি নেওয়া প্রয়োজন। যেমন- সকালে ঘুম থেকে উঠে আপনি হয়ত এক গ্লাস স্মুথি পান করার জন্য অপেক্ষা করছেন। এ সময় অফিস থেকে একটি জরুরি কল আসায় আপনার দ্রুত সেখানে চলে যেত হলো। এতে যে আপনার দিনটি পুরোপুরি ভেস্তে গেল, এমনটা ভেবে নেওয়ার কোনো কারণ নেই।
আপনার মস্তিষ্কে যেভাবে একটি দিনের শুরুটি হওয়া উচিত বলে মনে হয়েছে, ঠিক তেমনটা নাও হতে পারে। কিন্তু সফল ব্যক্তিরা এ ধরনের পরিস্থিতিতে বিব্রত হন না। তারা এসব বিষয় সহজেই মেনে নেন।


মন্তব্য