kalerkantho


লুসিড ড্রিম বা 'সজাগ স্বপ্নকে' স্মৃতিতে রাখার উপায়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ মার্চ, ২০১৬ ১৫:১৩



লুসিড ড্রিম বা 'সজাগ স্বপ্নকে' স্মৃতিতে রাখার উপায়

স্বপ্নে বৈচিত্র্যের শেষ নাই। এক অদ্ভুত ধরনের স্বপ্নকে বলা হয় 'লুসিড ড্রিম'।

এ স্বপ্ন যারা দেখেন তারা জানেন না কি ঘটতে চলেছে। আবার কিছুটা সজাগও থাকা যায়। এমনকি অনেক কিছু নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। স্বপ্ন যা দেখেছেন তার বর্ণনা লিখে রাখা ভালো। এতে স্মৃতিশক্তি বাড়ে। লুসিড ড্রিম এমন ধরনের স্বপ্ন যখন স্পষ্ট বুঝতে পারবেন যে আপনি স্বপ্ন দেখছেন।

স্বপ্নের ঘটনা লিখতে লিখতে একসময় একটা চক্র তৈরি হবে। যত বেশি লিখবেন তত বেশি স্মৃতিশক্তি বাড়বে। সেই সব উদ্ভাবনী, অনুপ্রেরণাদায়ক আর দারুণ সব স্বপ্ন আপনাকে আরো কিছু দিতে পারে।

স্বপ্ন লেখার সবচেয়ে সহজ উপায় হলো, মাথার কাছে একটি নোটবুক নিয়ে ঘুমানো। ঘুম থেকে উঠেই দেখা স্বপ্নের বিষয়ে লিখে ফেলুন।

এ কাজে আরো দক্ষ হতে নিচের কাজগুলো করতে পারেন। এর মাধ্যমে আপনার স্বপ্নের একটি মোটামুটি চিত্র বেশ বুঝতে পারবেন।

১. স্বপ্নের গুরুত্বপূর্ণ অংশগুলো হাইলাইট করুন। স্বপ্নটা যখন মনে করার চেষ্টা করবেন তখন অনেক কিছু মনে পড়ে যাবে। একপলকে যা ঘটেছিল বলে মনে পড়ছে তা লিখে ফেলুন। পরবর্তীতে আরো মনে পড়ে যাবে।

২. বিশেষ নোট এবং চিত্র আঁকানোর জন্যে নোটবুকে আলাদা জায়গা রাখুন। যে পাতায় লিখছেন তার পাশে একটি সাদা কাগজ লাগিয়ে নিন। মাথার মধ্যে স্বপ্নের কোনো ছবি ভেসে উঠেই মিলিয়ে যেতে পারে। এটি ঝটপট কোনোভাবে এঁকে নেবেন।

৩. স্বপ্ন লেখার কাজে একটি সুন্দর নোটবুকের প্রয়োজন নেই। কিন্তু দারুণ এ কাজে দৃষ্টিনন্দন নোটবুক থাকলে খুব উপভোগ্য হবে কাজটি। পরে বিশেষ ডায়রিটা দেখামাত্রই স্বপ্নের বহু স্মৃতি মনে পড়ে যাবে।

লুসিড ড্রিমকে স্মৃতিতে রাখার চেষ্টা ভালো একটি উদ্যোগ। কিছু ক্ষেত্রে লুসিড ড্রিম বাস্তবতার চেয়েও বাস্তব হয়ে ওঠে। কাজেই একে নিয়ে কিছুটা চিন্তা করা যেতেই পারে। পুরনো স্বপ্নগুলো যদি মনে ফিরিয়ে আনা যায় তবে দারুণ এক অনুভূতির সৃষ্টি হয়। আবার সময়ের সঙ্গে স্বপ্নের ধরন যদি পাল্টে যেতে থাকে, তার ছবিটাও পরিষ্কার হবে ডায়েরি থেকে। একবছর আগে কেমন স্বপ্ন দেখতেন এবং এখন কেমন স্বপ্ন দেখেন তার পার্থক্য করতে পারবেন।

কাগজে লেখার অবশ্য একটি অসুবিধা রয়েছে। আপনি চট করে বিশেষ কোনো স্বপ্নের ঘটনা আবারো দেখতে চাইলে খুঁজে বের করতে সমস্যা হবে। তাই যদি এগুলো কম্পিউটারে লিখে নিতে পারেন, তবে আপনি ট্যাগ ব্যবহার করে ঘটনাগুলো দ্রুত বের করে নিতে পারবেন। এমনিতেই স্বপ্নের ঘটনাগুলো আমাদের মনে ট্যাগ আকারে ছড়িয়ে থাকে।

স্বপ্নকে বাঁচিয়ে রাখতে কিছু দারুণ অ্যাপ রয়েছে। আপনি 'ড্রিমস্ফিয়ার' বা 'ড্রিমসক্লাউড' অ্যাপগুলোর মাধ্যমে লগ ইন করে আপনার স্বপ্নকে ধারণ করতে পারবেন।
সূত্র : হাফিংটন পোস্ট

 


মন্তব্য