kalerkantho

সোমবার। ২৩ জানুয়ারি ২০১৭ । ১০ মাঘ ১৪২৩। ২৪ রবিউস সানি ১৪৩৮।


ঘুমের আগে যে কাজ করতে মানা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:২১



ঘুমের আগে যে কাজ করতে মানা

সুস্থ জীবন যাপনের জন্য একজন মানুষের পর্যাপ্ত ঘুম প্রয়োজন৷ এটা আমরা সকলেই জানি৷ তবে আমরা নিজেদের অজান্তেই ঘুমাতে যাওয়ার আগে এমন এক একটা কাজ করে বসি, যে সকাল সকাল ঘুমাতে গেলেও ভালো ঘুম কিছুতেই হয় না৷ তাই জানতে হবে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ঠিক কোন কাজগুলো করা একেবারেই চলবে না৷ সেগুলো মেনে চললে, দেখবেন ঘুমের আর তেমন ব্যাঘাত ঘটছে না৷

১. আমাদের অনেকেরই অভ্যাস, ঘুমানোর সময় মোবাইলে গেম খেলা, বা নেট সার্ফ করা ইত্যাদি৷ এই অভ্যাসটা বন্ধ করা দরকার৷ এমনকি ল্যাপটপেও কোনো কাজ করা চলবে না৷ এই সমস্ত গ্যাজেট থেকে যে আলো বেরোয়, তা আমাদের মস্তিষ্ককে উদ্দীপিত করে৷ স্বাভাবিকভাবেই ঘুমের ব্যাঘাত ঘটে৷ তার চেয়ে ঘুমাতে যাওয়ার আগে, ভালো বই পড়ার অভ্যাস করুন৷ কিংবা মিউজিক সিস্টেমে হালকা মিউজিক চালিয়ে গান শুনুন৷

২. সারাদিন কাজের ক্লান্তির পর বাড়ি ফিরে ঈষৎ গরম জলে স্নান করার অভ্যাস? বেশ তো৷ আপনার শরীরের ক্লান্তি অনেকটাই কমিয়ে দেবে এই স্নান৷ কিন্তু স্নান করেই ঘুমাতে চলে যাবেন না৷ গরম জলে স্নানের ফলে আপনার শরীরের উষ্ণতা বেড়ে যাবে৷ তাতে ঘুম আসতে দেরি হবে৷ স্নানের অন্তত এক ঘণ্টা পরে ঘুমাতে যান৷ উপকার পাবেন৷

৩. অনেকেই কাজের পর বাড়ি ফিরে ডিনারের আগে এক্সারসাইজ করেন৷ তারপর ডিনার করে ঘুমোতে যান৷ নিয়মিত এক্সারসাইজ কিন্ত্ত ঘুমের জন্য ভালো৷ তবে ঘুমাতে যাওয়ার তিন ঘণ্টার মধ্যে এক্সারসাইজ করলে কিন্ত্ত ফল হিতে বিপরীত হবে৷

৪. রাতে ভারী খাবার না খেয়ে হালকা খাবার খান৷ অতিরিক্ত নুন আছে, বা তৈলাক্ত, বা হাই ফ্যাট সমৃদ্ধ খাবার একেবারেই খাবেন না৷ এই ধরনের খাবার যেমন আপনার সামগ্রিক স্বাস্থ্যের পক্ষে খারাপ, তেমনই খারাপ ভালো ঘুমের জন্য৷ কারণ এই খাবারগুলোও আমাদের মস্তিষ্ককে উদ্দীপিত করে৷

৫. ঘুমাতে যাওয়ার আগে চা বা কফি একেবারেই নয়৷ আপনি নিশ্চয় জানেন এই ধরনের পানীয়তে ক্যাফেইন আছে৷ ক্যাফেইন ভালো ঘুমের ব্যাঘাত ঘটাবে৷ ক্যাফেইন আপনার শরীরে ১২ ঘণ্টা পর্যন্ত কাজ করে৷ তাই সন্ধ্যের পরে আর চা বা কফি নয়৷ বরং হারবাল টি খেতে পারেন৷

৬. ঘুমাতে যাওয়ার আগে পরিবারের কারও সঙ্গে বা ফোনে কোনও বন্ধুর সঙ্গে কোনো বিষয় নিয়ে তর্কাতর্কি করবেন না৷ বা কথা কাটাকাটিতে অযথা মাথা গরম করবেন না৷ কেউ যদি আপনাকে তা করতে প্ররোচিত করে তাহলে, একেবারেই প্রশ্রয় দেবেন না৷ কারণ এই ধরনের আচরণের ফলে আপনার ঘুম আসতে দেরি হতে পারে৷

সুস্থ থাকতে হলে রাতে ছয় থেকে সাত ঘণ্টা ঘুম খুব জরুরি৷ তাই ঘুমোতে যাওয়ার আগে কোন কোন কাজ করলে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটতে পারে সে সম্পর্কে জানাচ্ছে 'অন্য সময় '৷

সূত্র: এই সময়


মন্তব্য