আপনি কি অলস? জেনে নিন ফিট থাকার কয়েকটি-332623 | জীবনযাপন | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০১৬। ১৬ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৮ জিলহজ ১৪৩৭


আপনি কি অলস? জেনে নিন ফিট থাকার কয়েকটি টিপস

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ মার্চ, ২০১৬ ০০:১৫



আপনি কি অলস? জেনে নিন ফিট থাকার কয়েকটি টিপস

টোনড বডি সঙ্গে ঝকঝকে ত্বক চাই? কিন্তু তার জন্য যে পরিশ্রম করতে হবে, ঘাম ঝরাতে হবে। ওইখানেই সমস্যা। সারাদিন অফিস করে খেটেখুটে সত্যিই আর সকাল সকাল জিমে দৌঁড়তে কার ইচ্ছে করে বলুন? কিন্তু তার জন্য দীপিকা পাড়ুকোনের মত চেহারা পাওয়ার ইচ্ছেটাতো মরতে পারে না।!

আমার-আপনার মতো অলস মেয়েদের জন্য এবার রইল সহজ ওয়ার্ক আউটের কয়েকটি ছোট্ট টিপস। যা দিনে মাত্র কয়েক মিনিট অভ্যাস করলেই ঝকমকে চেহারা ঠেকায় কে।

* ঘুম থেকেই উঠেই তাড়া পড়ে যায় আপনার। সারাদিনের সবকিছু ঠিকঠাক রেডি আছে তো? সঙ্গে অফিসে আজ কী কী কাজ করতে হবে, তার তালিকাও একটা মনে মনে মিলিয়ে নিতে হয়। লন্ড্রি থেকে কাচা জামাকাপড় আনা হয়েছে? এই সব চিন্তায় আপনি ব্যতিব্যস্ত। ওয়ার্ক আউটের সময় কোথায়? কোনও সমস্যা নয়। ১০ মিনিট সময় বের করতে পারবেন? বাড়িতে না হলে অফিস পৌঁছেও এই ব্যায়াম করা যাবে।

সিঁড়িতে একটু দ্রুতুপায়ে ওঠানামা করে নিন। মাত্র ১০ মিনিটেই কেল্লাফতে। হাত-পা সুগঠিত করার সঙ্গে শরীরের ক্ষমতা বাড়াবে এই ওয়ার্ক আউট। হার্টকে আরও সচল করবে, বাড়াবে মেটাবলিজমের হার, ঝরবে ক্যালোরি। একবারে ১০ মিনিট করতে না পারলে, পাঁচ মিনিট দিয়ে শুরু করুন, আস্তে আস্তে বাড়ান।

* এই ব্যায়াম করতে সময় লাগে মাত্র ২ মিনিট। কিন্তু এর কার্যকরী ক্ষমতা দারুন। প্রথমে ডা পা সামনে এগোন, শরীরটা সামনে ঝুঁকিয়ে দিন। আবার সোজা হয়ে এবার বাঁ পা সামনে এগোন, শরীর সামনে ঝুঁকিয়ে দিন। এবার ডান পা পিছিয়ে দিন, শরীরটা পেছনে হেলিয়ে দিন। এবার বাঁ পা দিয়ে একই ভাবে করুন।

পিঠ ও পেটের মাসল শক্ত করে এই ব্যায়াম। শক্ত করে পায়ের পেশিও। নিয়মিত অভ্যাস করলে শরীরের নিচের অংশ টোনড হবে। থাই ও কাফ মাসল শক্তিশালী হবে।

* মনকে শান্ত করতে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়াম অভ্যাস করুন। দিনে ১০ মিনিট প্রাণায়ম করলে ফল পাবেনই। প্রথম পা মুড়ে বসুন, এরপর শান্ত ভাবে শ্বাস-প্রশ্বাস নিন ও ছাড়ুন। এই ভাবে প্রতিদিন ১০ মিনিট অভ্যাস করুন।

এই আসনে শরীরে রক্ত চলাচল বাড়ায়। শরীর ও মনকে শান্ত করে। ফুসফুসে অক্সিজেন সরবরাহ বৃদ্ধি করে। এই বাড়তি অক্সিজেন আপনার চেহারায় চমক আনবে।

সূত্র: এই সময়

মন্তব্য