kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পাঁচ উপায়ে আপনার সাফল্য নষ্ট করছেন নিজেই

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ মার্চ, ২০১৬ ১৬:৪৭



পাঁচ উপায়ে আপনার সাফল্য নষ্ট করছেন নিজেই

জীবনে সফলতার জন্য আপনার সামনে যে সুযোগগুলো আসছে তা কি আপনি ব্যবহার করছেন? অনেকেই নানা কারণে তার কাছে আসা সুযোগগুলো হেলাফেলা করেন। এ লেখায় রয়েছে তেমন কিছু বিষয়, যে কারণে সাফল্যের সম্ভাবনা নষ্ট হয়।

এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে হাফিংটন পোস্ট।
১. বিক্ষিপ্ততা
আপনি হয়ত নিত্যনতুন বিষয়ে নিজের প্রতিভার স্বাক্ষর রাখতে চান। কিন্তু এটি আপনার দক্ষতার তালিকাকে অনেক বড় করে তোলে। এতে নির্দিষ্ট কোনো বিষয়ে আগ্রহী হওয়ার বদলে বহু বিষয়ে আপনার আগ্রহ দেখা যায়। আর একটি নির্দিষ্ট বিষয়ে জ্ঞানের বদলে বহু বিষয়ে জ্ঞান অর্জনের প্রবণতা তৈরি হয়। ফলে কোনো নির্দিষ্ট বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করা কঠিন হয়ে পড়ে। ফলে ক্যারিয়ারেও সমস্যা সৃষ্টি করে। এটি পরিকল্পনার অভাব যেমন প্রকাশ করে তেমন মূল্যবান সময়ের অপচয়ও করে। এ বিষয়ে একজন নিউরোসায়েন্টিস্ট বলেন, মানুষের মস্তিষ্ক মূলত মাল্টিটাস্কিং করার উপযোগী নয়। আর এ কারণে একবারে একটি বিষয়েই দক্ষতা অর্জনের চেষ্টা করা উচিত।
২. আত্মবিশ্বাসের অভাব
প্রত্যেক মানুষেরই সাফল্যের সম্ভাবনা রয়েছে। আর এ কারণে আপনার নিজের ওপর বিশ্বাস রাখতে হবে যে আপনি পারবেন।   আপনার নিজের জ্ঞান, দক্ষতা ও শেখার ইচ্ছার ওপর হতাশ হলে চলবে না। আর এ আত্মবিশ্বাসের অভাবেই বহু মানুষ সফল হতে পারেন না। এ কারণে নিজের আত্মবিশ্বাস হারানো যাবে না কখনোই।
৩. পরিবর্তনে অস্বস্তি
পরিবর্তন অনেকের জন্যই মানসিক চাপ সৃষ্টি করে। কিন্তু তাই বলে পরিবর্তনের ভয়ে দুয়ার বন্ধ করে রাখলে চলবে না। পরিবর্তনকে মানিয়ে নিতে হবে এবং এতে ভয় না পেয়ে সর্বদা পরিবর্তনের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। পরিবর্তনে যারা ভয় পায় তারা অনেকেই নিজের ক্যারিয়ারের উন্নতির দুয়ার বন্ধ করে রাখে। তাই পরিবর্তনে অস্বস্তি দূর করে একে স্বাগত জানাতে হবে।
৪. অতীত ব্যর্থতা
ব্যর্থতা মানুষের জীবনে আসবেই। কিন্তু এ ব্যর্থতাকে মেনে নিয়ে তা থেকে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। কিন্তু অনেকেই ব্যর্থতা থেকে শিক্ষা নেন না বরং তাকে নেতিবাচকভাবেই ধরেন। আর এতে ক্যারিয়ারের ক্ষতি হয়। যদিও ব্যর্থতাকে যদি শিক্ষা গ্রহণের উপায় হিসেবে গ্রহণ করে ভুলগুলো চিহ্নিত করে তা যেন আর না হয় সেজন্য মনোযোগী হওয়া উচিত।
৫. অসম তুলনা
অনেকেই অন্যের সঙ্গে তুলনা করতে গিয়ে নিজের মানসিক বিপর্যয় ডেকে আনেন। এ বিশ্বে বহু বিষয় রয়েছে যার কোনো তুলনা হয় না। আপনি আপনার মতোই। আপনার সঙ্গে অন্য কারো তুলনা হয় না। আপনি যদি কারো উন্নতির সঙ্গে নিজের তুলনা করেন তাহলে তা ক্ষতির কারণ হতে পারে। এতে মানসিক বিপর্যয় দেখা দিতে পারে এবং ক্যারিয়ারেও ক্ষতি হতে পারে। তাই সর্বদা নিজের যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতার ওপর বিশ্বাস রেখে অন্য কারো অনুসরণ কিংবা তুলনা না করে সরাসরি নিজের উন্নতির জন্য চেষ্টা করে যাওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ।


মন্তব্য