kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নষ্ট করে যেসব খাবার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ মার্চ, ২০১৬ ১৬:১৫



রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নষ্ট করে যেসব খাবার

ধীরে ধীরে গরম হচ্ছে আবহাওয়া। তাপমাত্রার এ পরিবর্তনে আপনার দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার ওপর ব্যাপক প্রভাব সৃষ্টি হবে।

এর পেছনে বড় ভূমিকা রাখবে খাবার।

রোগ প্রতিরোধব্যবস্থা যে ভেঙে যাচ্ছে বা দুর্বল হয়ে পড়েছে তার লক্ষণ প্রকাশ পাবে ঠাণ্ডা-জ্বরের মাধ্যমে। এগুলো খুবই সাধারণ লক্ষণ। তাই বলে অবহেলা করা উচিত নয়। তাই স্বাস্থ্যের সুরক্ষায় এমন কিছু খাবার বাদ দিতে হবে যা রোগ প্রতিরোধব্যবস্থাকে আরো দুর্বল করে দেয়।

১. আইস ক্রিম এবং কোল্ড ড্রিঙ্কস : দিনের বেলায় গরম লাগলেই এ সময় একটা আইস ক্রিম বা ঠাণ্ডা পানীয় বা কোল্ড কফি খেতে দারুণ মজা লাগে। কিন্তু এ মৌসুমের শুরুতেই এসব খাবার আপনার গলার অবস্থা খারাপ করে দেবে। আবার যদি এসব ঠাণ্ডা খাবার সঠিক তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা না হয়ে থাকে তবে ডায়রিয়া বা ডিসেন্ট্রি দেখা দেবে।

২. দুগ্ধজাত পণ্য : গরম কমাতে দুগ্ধজাত পণ্যও বেশ আরামদায়ক হয়। দুধ ও দুধের তৈরি খাবার অনেক সময় নাক ও গলায় সর্দি জমিয়ে দেয়। তাই এ সময় দুধ, দই এমনকি পনির পর্যন্ত এড়িয়ে চলা উচিত।

৩. মসলাদার খাবার : মসলাপূর্ণ মজার খাবার পছন্দ করেন ঠিক আছে। তাই বলে যখন ঠাণ্ডা, সর্দি বা ফ্লুতে আক্রান্ত তখন এসব খাবার অবস্থার অবনতি ঘটাবে। গলায় প্রদাহ ও চুলকানির উদ্রেক ঘটাবে। তাই এগুলো এড়িয়ে যান।

৪. সদ্য অঙ্করিত যেকোনো কিছু : সবজি বা ভক্ষণযোগ্য সদ্য অঙ্কুরিত খাবার ব্যাকটেরিয়ার অভয়ারন্য। তাই খাওয়ার আগে অবশ্যই প্রচুর পরিমাণে ধুয়ে নিতে হবে। রান্নার সময় প্রচুর পরিমাণে সেদ্ধ করতে হবে।

৫. অন্য মৌসুমের সবজি : এক মৌসুমের সবজি সংরক্ষণ করে রাখা হয় অন্য মৌসুমে খাওয়ার জন্যে। কিন্তু এরা মোটেও নিরাপদ নয়। সবজি সব সময় টাটকা খেতে হয়। অফ সিজনের সবজি কখনো স্বাস্থ্যসম্মত নয়। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

 


মন্তব্য