kalerkantho

রাজধানীর অস্বাস্থ্যকর বাতাস

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীর অস্বাস্থ্যকর বাতাস

ঢাকার জনজীবন নানাভাবে আক্রান্ত হচ্ছে প্রতিনিয়ত। এর অন্যতম অনুষঙ্গ যানজট, যানবাহনের কালো ধোঁয়া ও দূষিত বাতাস। বায়ুদূষণের ফলে সবচেয়ে বেশি রোগাক্রান্ত হয় শিশুরা। ঢাকা শহরের দূষিত বায়ুর কারণে প্রাথমিকভাবে অ্যাজমা, শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে দূষিত বায়ুর মধ্যে থাকলে ফুসফুস, লিভার বা কিডনির ক্যান্সার হওয়ারও আশঙ্কা থাকে বলে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন। বায়ুতে থাকা সিসা মস্তিষ্কের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। এতে মানুষ অল্প বয়সে নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে, মস্তিষ্কের ক্ষমতা বা চিন্তা করার ক্ষমতা কমে যাচ্ছে। শিশুরা দুর্বল বুদ্ধিমত্তা নিয়ে বেড়ে উঠছে। এ ছাড়া বায়ুতে থাকা ক্ষতিকর বস্তুকণা নিঃশ্বাসের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করে ফুসফুস শক্ত হয়ে অক্সিজেন প্রবেশে বাধাগ্রস্ত হয়। বায়ুদূষণ, ঢাকার চারপাশের নদীদূষণ রোধ, ধুলাবালি থেকে পরিত্রাণে নগরীর সড়কগুলোতে পানি ছিটানো, মেয়াদ উত্তীর্ণ যানবাহন চলাচল বন্ধ করার পাশাপাশি উন্মুক্ত স্থানে স্থাপিত হোটেল-মোটেলের চুলা, চিমনি থেকে নির্গত ধোঁয়া বন্ধের উদ্যোগ নিতে হবে সিটি করপোরেশনকে। পাশাপাশি এসব উদ্যোগে নগরবাসীকে সম্পৃক্ত করার জন্য জনসচেতনতা বৃদ্ধি, প্রচার-প্রচারণা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মাদরাসাসহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়মিত শিক্ষার্থীদের মধ্যে সচেতনতা গড়ে তুলতে উদ্যোগ নেওয়া জরুরি। আমাদের প্রত্যাশা, ঢাকার নগরজীবনকে দূষণমুক্ত রাখতে সরকার ও ঢাকা সিটি করপোরেশন বিশেষ উদ্যোগ নেবে এবং নগরবাসীর জীবনমান স্বাভাবিক রাখতে ভূমিকা পালন করবে। 

মোতাহার হোসেন, ঢাকা।

মন্তব্য