kalerkantho


সন্তানকে স্বপ্ন দেখাতে হবে

৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



সন্তানকে স্বপ্ন দেখাতে হবে

জেএসসি, জেডিসি ও পিইসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। অনেকে ভালো ফল করেও মা-বাবার কাছ থেকে প্রত্যাশিত অনুপ্রেরণা পায়নি। ফেসবুকে একজন লিখলেন একটি ঘটনার কথা। মেয়ে এ+ পায়নি বলে মা-বাবা এমন বকাঝকা করেছেন, যার কারণে রাত ১টার দিকে মেয়েটি আত্মহত্যা করার চেষ্টা চালায়। পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়, মেয়েটি বেঁচে যায়। প্রশ্ন হলো, মেয়েটি আদৌ কি বেঁচে গেল? মা-বাবারা ছেলে-মেয়েদের এ+ পাওয়ানোর জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন। এতে কী লাভ তারাও জানেন না। অসম প্রতিযোগিতায় পড়ে ছেলে-মেয়ে তখন দিশাহীন হয়ে পড়ছে। সন্তানকে একজন সৃজনশীল মানুষ হিসেবে গড়ে তোলা তাঁদের দায়িত্ব। তাই সন্তানকে এমন কিছু স্বপ্ন দেখাতে হবে, যাতে সে নিজেই নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়ে ওঠে। পরীক্ষায় ভালো ফল করলে তাকে উপহার হিসেবে কী দেবেন সেই লিস্টে সৃজনশীল কিছু বিষয় যুক্ত করতে হবে। একজন শিশু জানেই না কেন সে পড়াশোনা করে। তাকে বোঝাতে হবে, তুমি পড়াশোনা করলে কোন দিকে সফল হতে পারবে। তার উপহারের মধ্যে রাখা হোক দেশের শীর্ষস্থানীয় বিদ্যাপীঠ ভ্রমণ, বিশিষ্ট ব্যক্তিদের জীবনী সম্পর্কিত বই ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সংস্পর্শে নিয়ে যাওয়ার মতো বিষয়গুলো। স্বপ্নের বীজ বপন করে দেওয়া মানেই সন্তানের দায়িত্ব তার ওপরই অর্পণ করা এবং তার বিশ্বাসকে দৃঢ় করা। এ+কে মুখ্য না ধরে সন্তানের স্বপ্নকে প্রসারিত করলে তবেই মেধাসম্পন্ন একটি জাতি আমরা পাব।

সাঈদ চৌধুরী

শ্রীপুর, গাজীপুর।



মন্তব্য