kalerkantho


অভিন্ন প্রশ্নপত্রে ভর্তি পরীক্ষা

২৯ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



অভিন্ন প্রশ্নপত্রে ভর্তি পরীক্ষা

আমাদের দেশে উচ্চশিক্ষায় অনেক বৈষম্য পরিলক্ষিত হয়। এ জন্য সাধারণ ছাত্রদের নানা ধরনের বেগ পেতে হয়। উচ্চ মাধ্যমিক পাসের পর তারা কমপক্ষে ১০ থেকে ১৫টি ভার্সিটিতে আলাদাভাবে ভর্তি পরীক্ষা দেয়। যা অত্যন্ত কষ্টকর, পরিশ্রম ও সময়সাপেক্ষ কাজ। যে শিক্ষার্থীর বাড়ি বগুড়া, তাকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য সুদূর চট্টগ্রাম পর্যন্ত যেতে হয়। সেখানে যদি তার কেউ না থাকে, তবে অনেক বিড়ম্বনার মধ্যে পড়তে হয়। সারা দেশে অভিন্ন  প্রশ্নপত্রে মেডিক্যালে ভর্তি পরীক্ষা হয়। পরে স্কোর অনুসারে শিক্ষার্থীরা পছন্দের মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি হতে পারে। এটা অত্যন্ত ইতিবাচক একটা দিক। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায়ও এ নিয়ম চালু করা যেতে পারে। এতে করে যেমন শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগ অনেকটা লাঘব হবে, তেমনি ভার্সিটি ভর্তিতেও স্বচ্ছতা আসবে। তা ছাড়া এর সুফল বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনও ভোগ করবে। আশা করি সরকারসহ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনও এ বিষয়টি ভেবে দেখবে।

সম্পদ পোদ্দার বলরাম, কর্মকারপাড়া, শেরপুর, বগুড়া।



মন্তব্য