kalerkantho

সবিশেষ

স্তন ক্যান্সার ধরা পড়বে অন্তর্বাসে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৯ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্তন ক্যান্সার ধরা পড়বে অন্তর্বাসে

স্তন ক্যান্সারে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। চিকিৎসকদের একাংশের মতে, ৫০ বছরের বেশি বয়সী নারীদের স্তন ক্যান্সার শনাক্তে ম্যামোগ্রাম করা উচিত নয়। এর কারণ হিসেবে রেডিয়েশনের দিকে আঙুল তোলেন তাঁরা। অর্থও খরচ হয় বেশ। এই খরচের ফলে অনেকে পরীক্ষা করাতে চায় না। তবে ভারতের এক দল বিজ্ঞানী এর একটা সমাধান বের করেছেন।

কেরালার ত্রিচূড়ের সেন্টার ফর মেটেরিয়ালস ফর ইলেকট্রনিকস টেকনোলজি (সি-মেট) একটি যন্ত্র আবিষ্কার করেছে। এটি আসলে একটা অন্তর্বাস বা ব্রা। এ অন্তর্বাসে রয়েছে সেন্সর। যেটি থার্মাল ইমেজিংয়ের মাধ্যমে স্তনে ক্যান্সার আক্রান্ত কোষকে শনাক্ত করতে পারে। এই প্রকল্পের প্রধান কর্মকর্তা এ. সীমা সম্প্র্রতি দেশটির রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে ‘নারী শক্তি পুরস্কার’ পেয়েছেন এ যন্ত্র উদ্ভাবনের জন্য।

অনেক চিকিৎসক বলে আসছিলেন, প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ম্যামোগ্রাম হয় না। তাই পরা যায়, এমন কিছুর সঙ্গে যদি থার্মাল ইমেজিং যোগ করা যায়, তাহলে ক্যান্সার শনাক্তকরণ সহজ হবে। নতুন এই অন্তর্বাস ত্বকের তাপমাত্রা দেখে এবং কোনো অস্বাভাবিকতা থাকলে সেন্সর তা ধরে ফেলে। এতে রেডিয়েশনের ব্যাপারও নেই, কারণ ত্বকের তাপমাত্রা এ ক্ষেত্রে নির্ধারক। এটি পোর্টেবলও। কোনো ব্যথাও হয় না এতে। এই অন্তর্বাসের মতো যন্ত্র পরার সময় পোশাক বদলাতেও হয় না। যেকোনো বয়সী নারীর স্তন পরীক্ষা করতে পারে এটি। এর দাম ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা। বাণিজ্যিকীকরণ হলে আরো দাম কমবে বলে মনে করা হচ্ছে।

সীমার দাবি, ভবিষ্যতে এর দাম ৫০ টাকার বেশি হওয়ার কথা নয়। ১১৭ জন রোগী ও ২০০ জন স্বেচ্ছাসেবীর ওপর এরই মধ্যে এটি পরীক্ষা করা হয়েছে। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।

মন্তব্য