kalerkantho


সিরাজগঞ্জ

আমরা চাই বিএনপি নির্বাচনে আসুক

ড. হাবিবে মিল্লাত মুন্না
ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক, জেলা আওয়ামী লীগ

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



আমরা চাই বিএনপি নির্বাচনে আসুক

কালের কণ্ঠ : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে আপনাদের নতুন পরিকল্পনা কী?

ড. হাবিবে মিল্লাত মুন্না : আমরা চাই সব দলের অংশগ্রহণে একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন। গত নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ না করায় তাদের যে খেসারত দিতে হয়েছে, এবার নির্বাচনে না এলে তাদের আবারও খেসারত দিয়ে হবে। ফলে আমরা চাই তারা নির্বাচনে আসুক।

কালের কণ্ঠ : এবারকার নির্বাচন নিয়ে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক অবস্থা কেমন?

ড. হাবিবে মিল্লাত মুন্না : শুধু সিরাজগঞ্জে নয়, সারা দেশেই আমাদের সাংগঠনিক অবস্থা অনেক ভালো। শুধু সাংগঠনিক অবস্থা নয়, আমাদের নির্বাচনী প্রস্তুতিও প্রায় শেষের দিকে। নির্বাচনের জন্য আমাদের প্রয়োজনীয় কর্মকাণ্ড চলমান রয়েছে।

কালের কণ্ঠ : দলের কোনো কোনো এমপির বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ রয়েছে। এই এমপিরা আবারও মনোনয়ন পেতে পারেন কি?

ড. হাবিবে মিল্লাত মুন্না : আপনি নিশ্চয় জানেন, প্রতি তিন মাস পর এমপিদের কর্মকাণ্ডের একটি রিপোর্ট কেন্দ্রে পাঠানো হয়। আর সেটি দেখভাল করেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী। ফলে মনোনয়ন কে পাবেন সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার একমাত্র এখতিয়ার কেন্দ্রের।

কালের কণ্ঠ : নির্বাচনে এই জেলার কোনো আসনকে কি ঝুঁকিপূর্ণ মনে করছেন?

ড. হাবিবে মিল্লাত মুন্না : ঝুঁকি বলতে বিএনপির জ্বালাও-পোড়াও সন্ত্রাস। কিন্তু আমি বিশ্বাস করি, আমাদের জেলার কোনো আসনে বিএনপির মতো এমন ভঙ্গুর দল আর কোনো সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালাতে পারবে না। আওয়ামী লীগ বর্তমানে সিরাজগঞ্জ জেলায় সাংগঠনিকভাবে অনেক বেশি শক্তিশালী।

কালের কণ্ঠ : জেলা কমিটি থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের কোনো তালিকা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে কি?

ড. হাবিবে মিল্লাত মুন্না : এ বিষয়ে এখনো কেন্দ্র থেকে কোনো নির্দেশনা আসেনি। কেন্দ্র থেকে তালিকা চাওয়া হলে তখন বিষয়টি নিয়ে কথা বলা যাবে।

কালের কণ্ঠ : এবারকার নির্বাচনে কোন মূল বক্তব্য আপনারা ভোটারদের সামনে তুলে ধরবেন?

ড. হাবিবে মিল্লাত মুন্না : আপনারা জানেন, বর্তমান সরকার প্রতিটি জেলায় কী পরিমাণ উন্নয়ন করেছে। আমরা শুধু উন্নয়ন নয়, বলতে চাই উন্নয়নকে বেগবান রাখতে ও দেশে বিএনপির নৈরাজ্য বন্ধ, স্বনির্ভর বাংলাদেশ গড়তে স্বাধীনতার পক্ষের শক্তিকে ভোট দিয়ে আবারও জয়যুক্ত করতে হবে। এটাই হলো ভোটারদের কাছে আমাদের আহ্বান।

কালের কণ্ঠ : সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সিরাজগঞ্জের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি কতটা উপযোগী বলে মনে করেন?

ড. হাবিবে মিল্লাত মুন্না : সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সিরাজগঞ্জের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি এখন পর্যন্ত স্বাভাবিক। এই অবস্থা থাকলে একটি অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে কোনো সমস্যা হবে না।

কালের কণ্ঠ : জোট হলে জাতীয় পার্টি জেলার কোনো আসন দাবি করতে পারে। এ ক্ষেত্রে আপনাদের পক্ষ থেকে আপত্তি উঠতে পারে কি?

ড. হাবিবে মিল্লাত মুন্না : সিরাজগঞ্জ থেকে জাতীয় পাটির প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনা নেই বলেই আমার কাছে মনে হয়। পাশাপাশি সিরাজগঞ্জের প্রতিটি আসনেই আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট প্রার্থী রয়েছেন।



মন্তব্য