kalerkantho


পানামা পেপারসে নাম আসা ব্যবসায়ীদের দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

হাসান রাজা বললেন, নাম নেই, শুধুই হয়রানি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০




পানামা পেপারসে নাম আসা ব্যবসায়ীদের দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

পানামা পেপারসে নাম আসা বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের মধ্যে ইউনাইটেড গ্রুপের চেয়ারম্যান হাসান মাহমুদ রাজাকে মুদ্রাপাচারের অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদক কার্যালয়ে তাঁকে গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে টানা তিন ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন কমিশনের উপপরিচালক এস এম এম আখতার হামিদ।

তদন্তকারীদের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হওয়ার পর দুদক কার্যালয় থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে হাসান মাহমুদ রাজা বলেন, ‘ব্যক্তিগত ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। কম্পানির বিষয়ে জিজ্ঞাসা করেছে।

পানামা পেপারসে আমাদের নাম নেই। তাতে নাম আসার খবর সঠিক নয়। ব্যবসায়িক প্রতিদ্বন্দ্বীর চক্রান্তে হয়রানি করা হচ্ছে।’

দুদক ইউনাইটেড গ্রুপের সব প্রতিষ্ঠানের আয়কর দেওয়ার নথি দেখতে চেয়েছে জানিয়ে গ্রুপের চেয়ারম্যান বলেন, ‘ব্যক্তিগত আয় ও সম্পদ বিষয়ে জানতে চেয়েছে দুদক। ইউনাইটেড গ্রুপের বিভিন্ন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের তথ্যও এই সময় জানতে চাওয়া হয়। তারা ব্যক্তিগত ও প্রতিষ্ঠানের আয়-ব্যয় এবং ভ্যাট-ট্যাক্সের কিছু কাগজপত্র চেয়েছে। আমরা সময় চেয়েছি। দ্রুতই তা দুদকে জমা দেওয়া হবে।’

হাসান মাহমুদ রাজা বেরিয়ে যাওয়ার পর ইউনাইটেড গ্রুপের পরিচালক খন্দকার মঈনুল আহসান শামীমকে দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন দুদক কর্মকর্তা আখতার হামিদ ভূঞা। একই অভিযোগে ইউনাইটেড গ্রুপের অন্য পরিচালকদেরও দুদক জিজ্ঞাসাবাদ করবে। গত ৮ জুলাই আখতার হামিদের স্বাক্ষরে ইউনাইটেড গ্রুপের চারজনের পাশাপাশি প্যারাডাইস পেপারসে নাম আসা তিন ব্যবসায়ীকে তলব করে আলাদা নোটিশ দেওয়া হয়।

দি ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টস (আইসিআইজে) ২০১৬ সালের মে মাসে পানামার ল ফার্ম মোস্যাক ফনসেকার বিপুলসংখ্যক নথি ফাঁস করে দেয়, যা পানামা পেপারস নামে পরিচিতি পায়।

 

 



মন্তব্য