kalerkantho


সবিশেষ

শুধু হাওয়া খেয়ে ৭০ বছর!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২১ জুন, ২০১৮ ০০:০০



শুধু হাওয়া খেয়ে ৭০ বছর!

‘যাও, হাওয়া খেয়ে বাঁচো’—রাগের বশে প্রিয় কাউকে এই কথা বলে শাসিয়ে থাকে অনেকে। সত্যিই কি মানুষ শুধু হাওয়া খেয়ে বাঁচতে পারে? ভারতের গুজরাটের এক যোগী দাবি করেছেন, ৭০ বছর ধরে শুধু হাওয়া খেয়ে বেঁচে আছেন তিনি!

প্রহ্লাদ জৈন নামের গুজরাটের মহসেনার চারোদ গ্রামের এই যোগীর বয়স ৮৮ বছর। তাঁর দাবি, মাত্র ১৮ বছর বয়স থেকে তিনি সব ধরনের খাওয়া-দাওয়া বন্ধ করে দেন। এলাকায় তিনি মাতাজি নামে পরিচিত। তাঁকে দেখতে দূর-দূরান্ত থেকে আসে মানুষ।

একাধিক বিজ্ঞানী প্রহ্লাদের এই হাওয়া খেয়ে বেঁচে থাকার রহস্য উন্মোচনের চেষ্টাও করেছেন। তিনি সত্যি বলছেন কি না, তা জানার জন্য একাধিকবার ডাক্তারি পরীক্ষাও করা হয়েছে। এমনকি ভারতের প্রয়াত রাষ্ট্রপতি বিজ্ঞানী এ পি জে আব্দুুল কালামও তাঁকে নিয়ে গবেষণা করেছেন।

২০১০ সালে প্রহ্লাদ জৈনের ওপর পর্যবেক্ষণ শুরু করে ইনস্টিটিউট অব সাইকোলজি এবং অ্যাপলায়েড সায়েন্স। টানা ১৬ দিন ধরে তাঁর কার্যকলাপের ওপর নজরদারি চালানো হয়। পাশাপাশি তাঁর শরীরের এমআরআই, আল্ট্রাসনোগ্রাফি, এক্স-রেও করা হয়। সেই সঙ্গে তাঁর নিত্যদিনের কর্মব্যস্ততার ছবিও ভিডিও রেকর্ডিং করা হয়। যাবতীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেও এখন পর্যন্ত প্রহ্লাদের দাবি খারিজ করার মতো কোনো সূত্র বের করতে পারেননি বিজ্ঞানীরা। বিজ্ঞানীদের অনেকে মনে করছেন, প্রহ্লাদ জৈন চরম পর্যায়ের অনাহার এবং পানি সংযম করেই বেঁচে আছেন।

তবে প্রহ্লাদ জৈন ওরফে মাতাজির দাবি, তিনি আম্বাজির সাধক। শুধু ধ্যান করেই কাজের শক্তি  পান। কোনো ধরনের প্রণামি না নিয়েই তিনি ভক্তদের সঙ্গে দেখা করেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি থেকে শুরু করে অনেক বড় বড় রাজনীতিক একবার দেখা করার জন্য তাঁর বাড়িতে যান। সূত্র : আজকাল।

 



মন্তব্য