kalerkantho


সবিশেষ

আইনস্টাইন বর্ণবাদী!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৫ জুন, ২০১৮ ০০:০০



আইনস্টাইন বর্ণবাদী!

বিখ্যাত পদার্থবিজ্ঞানী আইনস্টাইনের সদ্য প্রকাশিত ভ্রমণবিষয়ক ডায়েরিতে দেখা যাচ্ছে, তিনি অনেকটাই বর্ণবাদী ছিলেন এবং অন্য দেশের প্রতি তাঁর দৃষ্টিভঙ্গি ছিল বিদ্বেষপূর্ণ। আইনস্টাইন এ ডায়েরি লেখেন ১৯২২ সালের অক্টোবর থেকে ১৯২৩ সালের মার্চ পর্যন্ত। ওই সময় এশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্য সফরে গিয়েছিলেন তিনি।

ওই ডায়েরিতে আইনস্টাইন বিদেশিদের ব্যাপারে অনেক ‘নেতিবাচক’ এবং ‘নির্বিচার’ মন্তব্য করেন। যেমন চীনাদের তিনি বলেছেন, ‘পরিশ্রমী কিন্তু নোংরা ও স্থূলবুদ্ধির লোক’। আইনস্টাইন অবশ্য পরবর্তী জীবনে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে নাগরিক অধিকারের জন্য আন্দোলন করেন। আর তখন তিনি বর্ণবাদকে ‘শ্বেতাঙ্গ মানুষের ব্যাধি’ বলে বর্ণনা করেন।

মিসরের পোর্ট সাইদে পৌঁছানোর অভিজ্ঞতা বর্ণনা করতে গিয়ে আইনস্টাইন লিখেছেন, ‘এখানে চারিদিকে নানা রঙের লেভেনটাইনস, এদের যেন নরক থেকে উগরে দেওয়া হয়েছে।’ লেভেনটাইন বলতে বোঝায় একটি বিরাট অঞ্চল যার মধ্যে সাইপ্রাস, মিসর, ইরাক, ইসরায়েল, জর্ডান, লেবানন, প্যালেস্টাইন, সিরিয়া ও তুরস্ক পর্যন্ত দেশগুলোকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

শ্রীলঙ্কার কলম্বোর অভিজ্ঞতা বর্ণনা করতে গিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘এরা মাটির ওপর মারাত্মক নোংরা পরিবেশে এবং কটু গন্ধের মধ্যে থাকে। এরা কাজকর্ম করে সামান্যই, আর এদের চাহিদাও কম।’

তবে নামকরা এই পদার্থবিজ্ঞানী সবচেয়ে বাজে মন্তব্য করেছেন চীনাদের সম্পর্কে। তিনি চীনা ছেলে-মেয়েদের ‘উদ্যমহীন এবং ভোঁতাবুদ্ধির’ বলে বর্ণনা করেন। তিনি প্রশ্ন তোলেন, ‘এরা যদি আর সব জাতিকে ছাড়িয়ে যায়, তাহলে কী হবে?’ সূত্র : বিবিসি।



মন্তব্য