kalerkantho


সড়কে ঝরল ১৮ প্রাণ

সোনারগাঁয় বাস-কাভার্ড ভ্যান সংঘর্ষে ১০ জন নিহত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



সোনারগাঁয় বাস-কাভার্ড ভ্যান সংঘর্ষে ১০ জন নিহত

ছবি : কালের কণ্ঠ

দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৯ জন নিহত হয়েছে। এসব ঘটনায় আহত হয়েছে আরো ১০০ জন। এর মধ্যে গতকাল সোমবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁর টিপুরদী এলাকার যাত্রীবাহী বাস ও কাভার্ড ভ্যান সংঘর্ষে ১০ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো অর্ধশতাধিক বাসযাত্রী। আহতদের মধ্যে অন্তত ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, চালকের বেপরোয়া গাড়ি চালানোর ফলে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পর বাসের চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছে। আহত বাস যাত্রীরা জানায়, দুর্ঘটনার কিছুক্ষণ আগে কাঁচপুর মোড় পার হওয়ার পরপরই একটি রিকশাকে ধাক্কা দিয়ে খাদে ফেলে দেয় বাসের চালক।

এদিকে ৯ জেলায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় আরো ৯ জন নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে রয়েছে শিশু, নারী, বৃদ্ধ, যুবক ও সিএনজি অটোরিকশা ও মোটরসাইকেলচালক। গতকাল সকালে নোয়াখালীর কবিরহাটে এক অটোরিকশাচালক প্রাণ হারিয়েছেন। কুমিল্লার লাকসামে ডেমু ট্রেনের ধাক্কায় আরেক অটোরিকশাচালক নিহত হন।

দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ট্রাকচাপায় এক মোটরসাইকেলচালক নিহত হয়েছেন। হবিগঞ্জে আরেক মোটরসাইকেলচালক নিহত হন। গোপালগঞ্জে মাইক্রোবাসচাপায় দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় এক বৃদ্ধ নিহত হন। ময়মনসিংহের ভালুকায় পৃথক ঘটনায় দুই পথচারী নিহত হয়েছে। গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বাস চাপায় এক ব্যাক্তি নিহত হয়। বিস্তারিত আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে—

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁর ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা সিডিএম ট্রাভেলসের একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফরাজি এন্টারপ্রাইজের একটি কাভার্ড ভ্যানকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে বাসটি দুমড়েমুচড়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থলে আটজন নিহত হয়। পরে গুরুতর আহত আরো দুজনের মৃত্যু হয়।

নিহতদের মধ্যে রয়েছে গার্মেন্টের শ্রমিক ইয়াসমিন (৩৫), অজ্ঞাতপরিচয় পুরুষ (৪০), অজ্ঞাতপরিচয় নারী (৬৫), অজ্ঞাতপরিচয় শিশু ছেলে (৫), অজ্ঞাতপরিচয় পুরুষসহ (৩৫) আটজন নিহত হয়েছে। এ সময় কমপক্ষে অর্ধশতাধিক যাত্রী আহত হয়। আহতদের মধ্যে আলমগীর হোসেন, মঞ্জুর হোসেন, নজরুল ইসলাম, ভগপতি ও অমল কান্তিসহ ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আহত বাসযাত্রী আলমগীর হোসেন বলেন, ‘তিনি কাঁচপুর থেকে চট্টগ্রাম যাওয়ার উদ্দেশে বাসটিতে উঠে বসেন। কাঁচপুর মোড় পার হওয়ার একটু পরেই একটি রিকশাকে সজোরে ধাক্কা দিয়ে পার্শ্ববর্তী খাদে ফেলে দেয় আমাদের গাড়ির চালক। এ সময় আমরা তাকে ধীরগতিতে গাড়ি চালাতে অনুরোধ করলেও সে তা অমান্য করে বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালাতে থাকে। টিপুরদী এলাকায় আসার পর গাড়িটি সামনে থাকা কাভার্ড ভ্যানকে ধাক্কা দেওয়ার পর এ দুর্ঘটনা ঘটে।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমার আশপাশের যাত্রী মারা গেছে। আমার পা ভেঙে গেলেও আমি বেঁচে আছি। দুর্ঘটনার পর জ্ঞান হারিয়ে ফেলি। বিকেল ৪টার দিকে জ্ঞান ফিরে দেখি সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছি।’

আরেক আহত যাত্রী নজরুল ইসলাম বলেন, ‘গাড়িটিতে মোট ৬০ জন যাত্রী নিয়ে গাদাগাদি করে চালক চালাচ্ছিল। অতিরিক্ত যাত্রীর কারণেই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।’

সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক গোলম মোস্তফা ও হ্যাপি দাস বলেন, ‘আমাদের হাসপাতালে পাঁচজন আহত রোগীকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

৯ জেলায় আরো ৯ জন নিহত : গতকাল সকাল ৯টার দিকে নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের সামনে সিএনজিচালিত অটোরিকশা বিদ্যুতের খুঁটিতে ধাক্কা খেয়ে ঘটনাস্থলেই চালক নিহত হয়েছেন। তাৎক্ষণিক তাঁর পরিচয় জানা যায়নি। এ ঘটনায় আহত হয়েছে চারজন যাত্রী।

গতকাল কুমিল্লার লাকসামের ফতেপুর এলাকায় ডেমু ট্রেনের ধাক্কায় এক অটোরিকশার চালক (৩০) নিহত হয়েছেন। ওই লেভেলক্রসিংয়ে কোনো গেটম্যান না থাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তির তৎক্ষণাৎ পরিচয় পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় আরো তিন যাত্রী আহত হয়েছে। দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের কল্যাণপুরে বিজিবি ক্যাম্পের ৩ নম্বর গেট এলাকায় ট্রাকচাপায় আশরাফুল হক (৫৬) নামের এক মোটরসাইকেলচালক নিহত হয়েছেন। তাঁর বাড়ি পৌর এলাকার কল্যাণপুর ফকল্যান্ড মোড় মহল্লায়। রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। গতকাল সকাল ১১টার দিকে গোদাগাড়ীর রেলগেট বাইপাস মোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে মাইক্রোবাসচাপায় দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে। তার নাম জিহাদ (৮)। গতকাল দুপুর ১২টার দিকে মুকসুদপুর টেংরাখোলা নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। তাঁর নাম মো. আব্দুল ওয়াহাব ভূইয়া। ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের কুট্টাপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এদিকে আখাউড়ায় বাস খাদে পড়ে ১৫ জন শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। তারা কসবা উপজেলার গোপীনাথপুর আলহাজ শাহআলম কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। শিক্ষার্থীরা ওই বাসে শ্রীমঙ্গল লাউয়াছড়া শিক্ষা সফরে যাচ্ছিল।

ময়মনসিংহের ভালুকায় পৃথক ঘটনায় দুই পথচারী নিহত হয়েছে। এর মধ্যে উপজেলার হবিরবাড়ী ড্রাইভারপাড়ায় ঢাকাগামী বালুভর্তি ট্রাকচাপায় আবদুল কুদ্দুস (২৮) নামের এক যুবক প্রাণ হারান। এর আগে গত রবিবার রাতে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে ঢাকাগামী একটি বাসচাপায় জুবেদা খাতুন (৬৫) নামের এক নারী নিহত হয়েছেন। হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে ছিটকে পড়ে মোটরসাইকেলচালক নিহত হয়েছেন। তাঁর নাম মাসুক মিয়া (২২)। গতকাল বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার আমকান্দি এলাকায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় ইকবাল নামের এক মোটরসাইকেলের আরোহী আহত হয়েছে।

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বাস চাপায় অজ্ঞাতপরিচয় (৫০) এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। গতকাল সন্ধ্যায়  ঢাকা-টাঙ্গাইল সড়কের চন্দ্রা ত্রিমোড় এলাকায় রাস্তা পার হওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে। গতকাল রাতে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত নিহতের পরিচয় পাওয়া যায়নি।


মন্তব্য