kalerkantho


নাইক্ষ্যংছড়িতে ৪ তামাক চাষি অপহৃত

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান   

২১ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



নাইক্ষ্যংছড়িতে ৪ তামাক চাষি অপহৃত

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা থেকে চার তামাক চাষিকে অপহরণ করেছে এক দল অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী। গতকাল শনিবার ভোরে উপজেলার দোছড়ির লংগদুর মুখ এলাকার একটি খামারবাড়ি থেকে এই অপহরণের ঘটনা ঘটে।

অপহৃতরা হলেন আবু সৈয়দ (৪২), আব্দুল আজিজ (১৬), আব্দুর রহিম (২৫) ও শাহ আলম (৪০)। এর মধ্যে আব্দুল আজিজ স্থানীয় বাসিন্দা; অন্যরা রামু উপজেলার গর্জনিয়া এলাকায় বসবাস করেন।

নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ওসি শেখ আলমগীর কালের কণ্ঠকে জানান, ১০-১২ জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী ওই খামারবাড়িতে ঢুকে অস্ত্রের মুখে চার তামাক চাষিকে অপহরণ করে নিয়ে গেছে। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। অপহৃতদের উদ্ধারে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা আশপাশের পাহাড়ি এলাকাগুলোতে অভিযান শুরু করেছেন।

অপহৃত আব্দুল আজিজের বাবা নুরুল আলম জানান, গতকাল ভোরের পর থেকে তাঁর ছেলের কোনো খোঁজ পাচ্ছেন না। কোনো পক্ষ থেকে মুক্তিপণও দাবি করা হয়নি।

স্থানীয় একটি সূত্র জানায়, শুক্রবার গভীর রাতে উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের থ্রি স্টার রাবার বাগানেও সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়। সন্ত্রাসীরা বাগান পাহারাদার আব্দুল শুক্কুরকে মারধর করে ও বাগান থেকে মূল্যবান মালামাল নিয়ে চলে যায়।

দোছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ জানান, তামাক মৌসুমে আশপাশের বিভিন্ন এলাকা থেকে তামাক শ্রমিকরা দোছড়ি এলাকায় ঠিকায় কাজ নেয়। চাঁদা আদায়ের জন্য সন্ত্রাসীরা তাদেরই বেশি টার্গেট করে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি দোছড়ি ইউনিয়নের ছাগলখাইয়া এলাকা থেকে সন্ত্রাসীরা তিন কৃষককে অপহরণ করে। অপহরণের ৯ দিন পর মুক্তিপণের বিনিময়ে তারা ছাড়া পায়। বাঁকখালী, দোছড়ি ও ছাগলখাইয়া এলাকা থেকে গত তিন বছরে সন্ত্রাসীদের হাতে অন্তত ২০ জন অপহৃত হয়। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা অভিযান চালালেও মুক্তিপণ ছাড়া কাউকে উদ্ধার করা যায়নি।



মন্তব্য