kalerkantho


পাউরুটির জাদুঘর

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



পাউরুটির জাদুঘর

রুটি-পাউরুটির ইতিহাস ও প্রভাব নিয়ে এবার একটি গোটা জাদুঘর গড়ে তোলা হয়েছে অস্ট্রিয়ায়। দেশটির লিনৎস শহরের উপকণ্ঠে এক হাজার বর্গমিটার জায়গাজুড়ে অবস্থিত এ জাদুঘরের নাম ‘পানেউম’।

পেটার আউগেনডপলার তাঁর বেকিং কম্পানির দৌলতে হাজার হাজার কোটি টাকা আয় করছেন। পাউরুটির জন্য এমন এক ‘স্মৃতিস্তম্ভ’ তৈরি করা ছিল তাঁরই স্বপ্ন। সাধের এ জাদুঘরের জন্য তিনি এক অসাধারণ ভবন গড়তে চেয়েছিলেন। এ জন্য ভবনের নকশা করা হয়েছে ভিয়েনার আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন স্থপতি সংস্থা—কোয়প হিমেলবাউকে দিয়ে।

জাদুঘরের ভেতরে প্রদর্শনীর জিনিসগুলো শুধু কাচের কেসে বন্দি করে রাখা হয়নি, দেয়াল ও সিলিংয়েও শোভা পাচ্ছে বেশ কিছু ‘পাউরুটিকর্ম’। চতুর্থ তলায় জাদুঘরের মূল কামরা। জাদুঘরের জন্য আউগেনডপলার নিজেই কয়েক বছর ধরে প্রায় এক হাজার ২০০ বস্তু সংগ্রহ করেছেন।

আউগেনডপলার বলেন, ‘আমরা দর্শনার্থীদের দেখাতে চাই, রুটি কিভাবে বিগত ছয় থেকে আট হাজার বছর ধরে মানবজাতির ইতিহাসের ওপর প্রভাব রেখেছে। শুধু খাদ্য নয়, কৃষি, শিল্প, সংস্কৃতি, ধর্মসহ মানুষের জীবনের সব ক্ষেত্রেই এর ভূমিকা রয়েছে।’

প্রায় ৯ হাজার বছরের পুরনো ‘গ্রেন স্ল্যাব’ বা শস্যের ফলকের মাধ্যমে জাদুঘরে রুটির আদি যুগও ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। বিভিন্ন ধর্মীয় ঐতিহ্যে রুটিকে কিভাবে সম্মান দেওয়া হয়েছে, জাদুঘরে এরও দৃষ্টান্ত দেখা যায়। সূত্র : ডয়েচে ভেলে।



মন্তব্য