kalerkantho


কলকাতায় শুরু কাল

নিজস্ব প্রতিবেদক, কলকাতা   

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



কলকাতায় শুরু কাল

ভারতের কলকাতায় আগামীকাল শুক্রবার শুরু হচ্ছে ছয় দিনব্যাপী ‘বাংলাদেশ বিজয় উৎসব-২০১৭’। প্রতিবছরের মতো এবারও এই আয়োজন করেছে কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাস। গত তিন বছর এই আয়োজন হয়েছে কলকাতার নেতাজি ইনডোরে। এবার আবার পুরনো জায়গায় পার্ক

সার্কাস এলাকার বঙ্গবন্ধু সরণির বাংলাদেশ উপদূতাবাস চত্বরেই আয়োজন করা হয়েছে এই উৎসবের।

সূত্র জানায়, উৎসবের সূচনা ও সমাপ্তিতে বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় রাজনীতিক ও মন্ত্রীদের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। থাকবেন পশ্চিমবঙ্গের কয়েকজন সিনিয়র মন্ত্রীও। এ ছাড়া উৎসবে দুই বাংলার শীর্ষস্থানীয় শিল্পীদের দেখা যাবে উৎসবের বিভিন্ন দিনের সাংস্কৃতিক আয়োজনে।

গতকাল বুধবার উপদূতাবাসের নিজস্ব সভাকক্ষে বিজয় উৎসবের প্রস্তুতি নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করে আয়োজক কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাস। এতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের উপরাষ্ট্রদূত তৌফিক হাসান, কনস্যুলার ভিসা মনছুর আহমেদ বিপ্লব, কনস্যুলার (পলিটিক্যাল) বি এম জামাল হোসেন ও প্রথম সচিব (প্রেস) মোফাকখারুল ইকবাল।

লিখিত বক্তব্যে তৌফিক হাসান জানান, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক আগামীকাল বিজয় উৎসবের উদ্বোধন করবেন। এদিন অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পশ্চিমবঙ্গের উচ্চশিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। সমাপ্তি অনুষ্ঠান হবে ১৯ ডিসেম্বর। সেদিন অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বিশেষ অতিথি থাকবেন পশ্চিমবঙ্গের পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়।

আয়োজকরা জানান, বিজয় উৎসবে প্রতিদিন বাংলাদেশ ও ভারতীয় শিল্পীদের উপস্থিতিতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান থাকছে। থাকবে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক একাধিক তথ্য ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনী। আর শেষ দিনের অনুষ্ঠানে কুমার বিশ্বজিৎ, মমতাজ ছাড়াও এপার বাংলার কবীর সুমনকে দেখা যাবে মঞ্চে।

বিজয় উৎসবে মিনি বাণিজ্য মেলাও বসে প্রতিবছর। এবার অবশ্য আয়োজকরা মেলায় বেচাকেনার ওপর রাশ টেনেছেন। উপরাষ্ট্রদূত জানান, মেলায় যথারীতি বাংলাদেশি পণ্যের স্টল বসবে। তবে সেখানে শুধুই প্রদর্শনীর জন্য রাখা হবে দেশীয় পণ্য।

 


মন্তব্য