kalerkantho


তনু হত্যাকাণ্ড

খুনি গ্রেপ্তার ও সুষ্ঠু বিচার দাবিতে আজ আধাবেলা হরতাল

কুমিল্লায় মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

২৫ এপ্রিল, ২০১৬ ০০:০০



খুনি গ্রেপ্তার ও সুষ্ঠু  বিচার দাবিতে আজ আধাবেলা হরতাল

এক মাসেও কুমিল্লার কলেজ ছাত্রী সোহাগী জাহান তনুর খুনিরা গ্রেপ্তার না হওয়ার প্রতিবাদে এবং অবিলম্বে খুনিদের গ্রেপ্তার ও সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে আজ সোমবার সারা দেশে আধাবেলা হরতাল ডেকেছে বাম ছাত্রসংগঠনের দুটি জোট প্রগতিশীল ছাত্রজোট ও সাম্রাজ্যবাদবিরোধী ছাত্র ঐক্য। হরতালের সমর্থনে গতকাল রবিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় মশাল মিছিল হয়েছে।

একই দাবিতে গতকাল বিকেলে কুমিল্লা শহরের কান্দিরপাড় পূবালী চত্বরে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে প্রগতিশীল ছাত্রজোট। এদিকে তনুর দ্বিতীয় ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন কবে দেওয়া যাবে, তা নিশ্চিত করে জানাতে পারেননি কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজের দায়িত্বরত চিকিৎসকরা।

আজকের এ হরতাল সফল করতে বাম ছাত্রসংগঠনগুলোর পাশাপাশি বাংলাদেশ নারী মুক্তি কেন্দ্র, নারী সংহতি, বিপ্লবী নারী ফোরাম, শ্রমজীবী নারী মৈত্রী, হিল উইমেন্স ফেডারেশন, বিপ্লবী নারী মুক্তিসহ প্রগতিশীল বিভিন্ন সংগঠন দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

গতকাল সন্ধ্যায় বাম ছাত্রদের দুই জোটের মশাল মিছিলটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে শুরু হয়ে শাহবাগ মোড় দিয়ে এলিফ্যান্ট রোড, সায়েন্স ল্যাবরেটরি মোড় ও নিউ মার্কেট মোড় হয়ে আবার টিএসসিতে এসে শেষ হয়। মিছিলে ‘আমার বোন মরল কেন, প্রশাসন জবাব চাই’, ‘তনু হত্যার প্রতিবাদে, সোমবার হরতাল, যোগ দিন সফল করুন’—এ রকম নানা স্লোগান দেওয়া হয়।

গত ৭ এপ্রিল তনু হত্যার বিচার দাবিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচি শেষে এ হরতালের ঘোষণা দিয়েছিলেন দুই জোটের সমন্বয়ক ও ছাত্র ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল আলম সোহেল। সেদিন তিনি বলেছিলেন, ‘২৪ এপ্রিলের মধ্যে খুনিকে গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় না আনলে ২৫ এপ্রিল সোমবার হরতাল পালিত হবে।’

গত ২০ মার্চ কুমিল্লার ময়নামতি ক্যান্টনমেন্টের অলিপুর এলাকায় একটি কালভার্টের কাছ থেকে পুলিশ ভিক্টোরিয়া কলেজের ইতিহাস বিভাগের ছাত্রী তনুর লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় বিক্ষোভে ফেটে পড়ে সারা দেশের মানুষ। ঘটনার এক মাস পার হলেও পুলিশ এখনো খুনিদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনের খবর নেই : তনুর দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন গতকালও প্রদান করা হয়নি। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন প্রদানের জন্য গঠিত কমিটির প্রধান কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. কামদা প্রসাদ সাহা কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন করে দিতে পারব, এখনো ঠিক বলতে পারছি না।’

এদিকে তনু হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গাজী মো. ইব্রাহিম গতকাল ঢাকায় সিআইডি কার্যালয়ে গেছেন বলে জানা গেছে। তাঁকে তদন্ত সহায়ক দলের প্রধান বিশেষ পুলিশ সুপার আবদুল কাহহার আকন্দ কোনো কোনো বিষয়ে দিকনির্দেশনা দিয়েছেন বলে সূত্র জানালেও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

জানতে চাইলে কুমিল্লা-নোয়াখালীর সিআইডির পুলিশ সুপার ড. নাজমুল করিম খান কালের কণ্ঠকে বলেন, তনু হত্যা মামলা প্রসঙ্গে কোনো কিছু বলা সম্ভব নয়।

সিআইডির একটি সূত্র জানিয়েছে, এরই মধ্যে বেশ কিছু ব্যক্তির মোবাইলের কললিস্ট সংগ্রহ করে খতিয়ে দেখছে সিআইডি। এসব ব্যক্তির মধ্যে তনুর আত্মীয়স্বজন, বন্ধু-বান্ধব, সন্দেহভাজনসহ অনেকেই রয়েছে।



মন্তব্য