kalerkantho


পটুয়াখালীতে বাড়ি বাড়ি ফল

পটুয়াখালী প্রতিনিধি   

১২ জুন, ২০১৮ ০০:০০



কোনো বাড়িতে লিচু, কোনো বাড়িতে আঙুর। কারো কারো বাড়িতে ড্রাগন, মাল্টা, পেয়ারা ও কমলার চাষ। এতে পরিবারের চাহিদা মেটে ভালোভাবেই। অনেকে আবার বাগানে রোপণ করা গাছ বিক্রি করেও লাভবান হচ্ছে। ক্রমশ এ চাষ পদ্ধতি সম্প্রসারিত হচ্ছে পটুয়াখালীতে। আর এসবের পেছনে কাজ করছে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের (বারি) আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত্ব গবেষণাকেন্দ্র। সদর উপজেলার দক্ষিণ বিরাজলা গ্রামের মো. ইউসুফ আলী মৃধা প্রায় দেড় একর জমিতে বিভিন্ন প্রজাতির আম, থাই পেয়ারা (অফ সিজনে হয় যেটি) এবং লেবুর বাগান করেছেন। তা দিয়ে নিজের পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনের চাহিদা মিটিয়ে এখন বাণিজ্যিকভাবে লাভবান হচ্ছেন তিনি। বাউফল উপজেলার খাজুরবাড়িয়া ইউনিয়নের সাইদুর রহমান রিপন ড্রাগনসহ নানা প্রজাতির আম, লেবু, পেয়ারা ও লিচুর বাগান করেছেন। রিপন বলেন, ‘ফলে নানা জাতের রাসায়নিক পদার্থ ব্যবহার করায় ফল কিনে খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছি। এখন নিজের বাগানের ফ্রেশ ফল খাই। শুধু নিজেরাই না, আত্মীয়-স্বজনকেও এ ফল দিয়ে থাকি।’ বারির প্রকল্প পরিচালক ড. আবু তাহের মাছুদ বলেন, ‘এ অঞ্চলে আমাদের উদ্ভাবিত বিভিন্ন জাতের ফল চাষে কৃষকদের আগ্রহ দিন দিন বাড়ছে। তারা ভালো ফলন পাচ্ছেন।’



মন্তব্য