kalerkantho


এ বছরের সেরা স্মার্টফোনগুলো চিনে নিন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৫:৫৭



এ বছরের সেরা স্মার্টফোনগুলো চিনে নিন

বছরটা চলে যাচ্ছে। আর কিছু দিন বাদেই শুরু হবে নতুন বছর। এ বছরটা প্রযুক্তি দুনিয়ায় উজ্জ্বল হয়ে থাকবে। ভার্চুয়ার রিয়েলিটি, আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্টসহ স্মার্টফোন দুনিয়ায় দারুণ কিছু ঘটনা ঘটেছে। আজ এখানে বিভিন্ন বিচারে সেরা কিছু স্মার্টফোনের কথা বলেছেন বিশেষজ্ঞরা। নানা দিক থেকে এ বছর এরাই শীর্ষস্থান দখল করেছে। 

১. যদি পয়সা সমস্যা না হয় তবে আইফোন এক্স
অ্যাপলের আইফোনের ১০ বছর পূর্তিতে এই ফোনটি বাজারে আনা হয়। এতে ভবিষ্যত প্রযুক্তি জুড়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়। অতি উচ্চমানের বলে দামটাও সবার ধরাছোঁয়ার বাইরে। এর দামই শুরু হয়েছে ১০০০ ডলার থেকে। ৫.৮ ইঞ্চি ওলেড পর্দার ফোনটি বেজেল-লেস। এর ফেসিয়াল আইডি প্রযুক্তি নিয়ে বহু আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে। তবে সবাই বলছেন, কেউ যদি পয়সার দিকে চিন্তা না করেন, তো আইফোন এক্স সেরা ফোন নিঃসন্দেহে। 

২. যদি সেরা মানের স্ক্রিন চান তবে গ্যালাক্সি নোট ৮ 
স্যামসাং নোট সিরিজের আগের ফোনটি নিয়ে ব্যাপক বিড়ম্বনায় পড়ে। তবে তা চাপা দিতে পেরেছে গ্যালাক্সি নোট ৮। এর দামও মন্দ নয়। তবে ব্যবহারকারীরা দারুণ খুশি। এর কার্ভড স্ক্রিন পুরো ফ্রেমজুড়েই রয়েছে। এর ৬.৩ ইঞ্চির অ্যামোলেড ডিসপ্লের প্রেমে পড়েছেন সবাই। এটাকে সেরা স্ক্রিন বলে মনে করেন অনেকে। 

৩. যদি আইফোন না চান তবে গ্যালাক্সি এস৮
সবাই তো আইফোন পছন্দ করেন না। অনেকে অ্যান্ড্রয়েডের ভক্ত। যদি কেউ দামি ফোন কিনতে চান তো স্যামসাংয়ের এই ফ্ল্যাগশিপ অনায়াসে নিতে পারেন। অ্যামোলেড কার্ভড ডিসপ্লে তো আছেই। গুণগত মানের দিক থেকেও দারুণ শক্তিশালী এক ফোন। এর ডিজাইন অসাধারণ। দামটাও নেহাত কম নয়। তাই ভালো দামের ভালো ফোন গ্যালাক্সি এস৮। 

৪. যদি অ্যান্ড্রয়েডের মজা পেতে চান তবে পিক্সেল ২ এক্সএল
গুগলের নিজস্ব ফোন। পিক্সেল বাজারে এসেই দুনিয়া মাত করে দিয়েছে। পিক্সেল ২ ইতিমধ্যে সেরা ফোনগুলোর মধ্যেও শীর্ষস্থানীদের একটি বলে মত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। বিশেষ করে পিক্সেল ২ এক্সএল-কে অনেকেই আইফোনের প্রতিযোগী বলে মনে করেন। এর ডিসপ্লে দারুণ। ক্যামেরাও অসাধারণ। সবমিলিয়ে অসাধারণ ফোন। আর গুগলের বলে অ্যান্ড্রয়েডের আসল মজা এতে সবার আগে মিলবে। 

৫. যদি কমের মধ্যে সেরাটা চান তো ওয়ানপ্লাস ৫টি 
এই চাইনিজ নির্মাতা ইতিমধ্যে তাদের ফোনগুলো দিয়ে ব্যবহারকারীদের আস্থা অর্জন করেছে। ইতিমধ্য গোটা বিশ্বে খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এই ব্র্যান্ড। ভালোমানের স্পেসিফিকেশন নিয়েও এ তালিকার অন্যান্য ফোনের চেয়ে বেশ কম দাম নিয়েই বাজারে এসেছে। কাজেই যারা অন্যান্য ব্র্যান্ডের ফ্লাগশিপের মতোই কোনো ফোন একটু কম দামে পেতে চান, তারা নির্দ্বিধায় বেছে নিতে পারেন ওয়ানপ্লাস ৫টি। 

৬. যদি সঙ্গীতপ্রেমী হন তবে এলজি ভি৩০ 
এই কোরিয়ান নির্মাতা স্যামসাংয়ের বেশ শক্ত প্রতিযোগী। এলজি সব সময় অ্যাডভান্সড প্রযুক্তির জন্যে বিখ্যাত। তাদের ভি৩০ ফোনটি নিঃসন্দেহে সেরাদের তালিকায় স্থান করে নিয়েছে। এর ওলেড ডিসপ্লেটি সেরাগুলোর একটি। আরেকটি দিকে সবার চেয়ে এগিয়ে গেছে এই ফোন। তা হলো অডিও। এর কোয়াড-ড্যাক (ডিএসি) বা ডিজিটাল-টু-অডিও কনভার্টার এমন এক প্রযুক্তি যা গান শোনার জন্যে সেরা ফোন বানিয়েছে এলজি ভি৩০-কে। 
সূত্র : ইয়াহু 


মন্তব্য