kalerkantho


সৌরগজত থেকে হারানো 'পৃথিবী', ওটা হতে পারে 'প্লানেট নাইন'!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ অক্টোবর, ২০১৭ ২০:৪২



সৌরগজত থেকে হারানো 'পৃথিবী', ওটা হতে পারে 'প্লানেট নাইন'!

এই সৌরজগতেই আছে 'প্লানেট নাইন'। আর এটাকে খুঁজে পেতে বন্ধপরিকর জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা।

নাসার নতুন এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, অদেখা বিষয়গুলো দেখা ছাড়া আমাদের সৌরজগত সম্পর্কে সম্যক ধারণা পাওয়া অনেক কঠিন বিষয়।  

প্লানেট নাইন বলে কিছু একটা আছে বলে ধারণা করেন বিজ্ঞানীরা। তাদের বিশ্বাস, ওটার আয়তন পৃথিবীর চেয়ে ১০ গুন বড়। এই গ্রহটির অবস্থান অন্ধকারে। সৌরজগতের জানা অংশের ঠিক বাইরেই হয়তো এর অবস্থান। নেপচুর সূর্য থেকে যত দূরে অবস্থিত, সেই দূরত্বের ২০ গুন দূরে রয়েছে প্লানেট নাইন। এই রহস্যময় জায়গাটি এখনও আবিষ্কৃত হয়নি। আমাদের সৌরজগকের কিছু অদ্ভুত ঘটনার কথা বলেছেন মহাকাশচারীরা। এদের ব্যাখ্যায় গ্রহণযোগ্য সমাধান দিতে পারে একমাত্রা প্লানেট নাইন।

 

ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিটিউট অব টেকনলজির প্লানেটারি অ্যাস্ট্রোফিজিসিস্ট কনস্টেইটাইন বাতিজিন বলেন, প্লানেট নাইনের অস্তিত্বের সত্যতা নিশ্চিত করতে ৫ ধরনের ভিন্ন ভিন্ন পর্যবেক্ষণমূলক প্রমাণপত্র আমাদের হাতে রয়েছে। যদি এই গ্রহটি নেই বলে ধরে নেন, তবে সমাধানের চেয়ে সমস্যা বেশি লেগে যায়। আমাদের কাছে থাকা পর্যবেক্ষণগুলো কোনো পাজলে মেলাতে পারলেই বাকিটা বেরিয়ে আসবে। সেই সঙ্গে তাদের ব্যাখ্যায় ৫ ধরনের গ্রহণযোগ্য ব্যাখ্যা উপস্থিত করতে হবে।  

২০১৬ সালে বাতিজিন এবং আরেক মহাকাশচারী মাইক ব্রাউন এক গবেষণাপত্র প্রকাশ করেন। তাতে বলা হয়, নেপচুন থেকে সৌরজগতের বাইরের দিকে বরফাচ্ছাদিত একটি অঞ্চল রয়েছে যার নাম কিউপার বেল্ট। ওখানকার চেনা ৬টি বস্তু উপকৃত্তাকার কক্ষপথে সৌরজগতের গ্রহগুলোর উল্টোপথে ঘোরে। ওগুলো সৌরজগতের গ্রহগুলোর তুলনায় ৩০ ডিগ্রি নিচু হয়ে অবস্থান করছে। এদের মধ্যে ৫টির খবর মিলেছে।  

তারা প্লানেট নাইনের অস্তিত্বসহ একটি কম্পিউটার সিম্যুলেশন তৈরি করেছেন। সেখানে দেখা গেছে, প্লানেট নাইন থাকলে সৌরজগতের বেশ কিছু বিতর্কিত বিষয়ে গ্রহণযোগ্য ধারণা পাওয়া যায়।  

সেই থেকে বিজ্ঞানীরা এই গ্রহটির অস্তিত্বে প্রমাণ পেতে উঠেপড়ে লেগেছেন। সৌরজগতের চেনা গ্রহগুলোর কক্ষপথের সঙ্গে ওটার কিছু ভিন্নতা হয়তো আছে। এ কারণে সৌরজগত থেকে বাইরের দিকে চলে গেছে।  

বিবৃতিতে বাতিজিন বলেন, বহু সময় পেরোনোর পর প্লানেট নাইট গোটা সোলার-সিস্টেমকে এলোমেলো করে দিতে পারে।  

অবশেষে বিজ্ঞানীর এ ধারণায় উপনীত হয়েছেন যে, প্লানেট নাইন আসলে কিউপার বেল্টের বস্তুগুলোর কক্ষপথের উল্টো আচরণ ব্যাখ্যা করতে পারে।  

বাতিজিন আরো বলেন, তাদের ওই মডেলই এমন বেঁকে থাকা কক্ষপথের অদ্ভুত বিষয়ের সেরা ব্যাখ্যা দিয়েছে। কিউপার বেল্টের বস্তুগুলোর এমন আচরণের সুযোগ করে দিয়েছে প্লানেট নাইন। আর সৌরজগত থেকে ওদের বেরিয়ে যেতে সহায়তা করেছে নেপচুন। সূত্র : ফক্স নিউজ


মন্তব্য