kalerkantho


দ্বিতীয় সন্তানের বাবা হচ্ছেন জাকারবার্গ, দুই মাসের ছুটি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ আগস্ট, ২০১৭ ১৯:৪৭



দ্বিতীয় সন্তানের বাবা হচ্ছেন জাকারবার্গ, দুই মাসের ছুটি

ফাইল ফটো

ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ দ্বিতীয়বারের মতো বাবা হচ্ছেন। নিজ ফেসবুক পেজে গত শুক্রবার এ কথা জানিয়েছেন তিনি।

আনন্দের এ খবরটি শেয়ার করার পাশাপাশি তিনি ফেসবুকের অন্য সব কর্মীদের মতোই একই নিয়মে দুই মাসের পিতৃত্বকালীন ছুটি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।

মার্ক জাকারবার্গের স্ত্রী প্রিসিলা চ্যানের গর্ভে এবারও কন্যা সন্তান রয়েছে বলে জানা গেছে। আর দ্বিতীয় সন্তানের জন্ম উপলক্ষে এ বছরেই তিনি আবার দুই মাসের ছুটি নিতে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।

এক পোস্টের মাধ্যমে জাকারবার্গ জানিয়েছেন, তার স্ত্রী প্রিসিলা চ্যানের (৩২) গর্ভে আসতে যাচ্ছে এক মেয়ে সন্তান।

কন্যা সন্তানের আগমনী সংবাদ জানালেও কবে নাগাদ বাবা হচ্ছেন তা জানাননি জাকারবার্গ।

এর আগে তাদের যখন প্রথম সন্তানের জন্ম হয় তখনো জাকারবার্গ দুই মাসের ছুটি নিয়েছিলেন। বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ একটি প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী হিসেবে এত দীর্ঘ ছুটি নেওয়ার ঘটনা বিরল। জাকারবার্গ তার গুরুত্বপূর্ণ কাজের পাশাপাশি পরিবারকেও যে সময় দিতে পারেন, সেজন্য বহু মানুষই তার প্রশংসা করছেন।

জাকারবার্গ জানিয়েছেন, তিনি দুই ধাপে এবারের ছুটি নেবেন।

ডিসেম্বরের দিকে এ ছুটি নিতে হতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি।

জাকারবার্গের প্রথম কন্যা সন্তানের নাম ম্যাক্সিমা বা সংক্ষেপে ম্যাক্স। তার একটি ছবি শেয়ার করেছেন জাকারবার্গ। এরপর তিনি সেই ফেসবুক পোস্টে বলেন, ‘যখন ম্যাক্সের জন্ম হয় তখন আমি দুই মাসের পিতৃত্বকালীন ছুটি নিয়েছিলাম। আমি সব সময় আনন্দিত যে আমি তার জন্মের প্রথম মাসে তাকে এত সময় দিতে পেরেছি।

আমাদের নতুন সন্তান আসছে শিগগিরই। আমি পরিকল্পনা করছি আবার দুই মাসের পিতৃত্বকালীন ছুটি নেওয়ার। এবার আমি ফেসবুকের দুই ভাবে বিভক্ত ছুটির সুবিধা নিচ্ছি। ’

এ প্রসঙ্গে ফেসবুকের মাতৃত্ব ও পিতৃত্বকালীন ছুটির নিয়মের কথাও মনে করিয়ে দেন তিনি। এ বিষয়ে জাকারবার্গ লিখেছেন, ‘ফেসবুকে আমরা চার মাসের মাতৃত্বকালীন ও পিতৃত্বকালীন ছুটি দিচ্ছি। কারণ গবেষণায় দেখা গেছে, যখন কর্মজীবী বাবা-মায়েরা তাদের নবজাতক সন্তানকে সময় দিলে তা পুরো পরিবারেরই উপকার করে। আমি নিশ্চিত যে, আমি যখন ফিরে আসব তখনো অফিস টিকে থাকবে। ’

সূত্র : ম্যাশেবল


মন্তব্য