kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


স্মার্টফোনের ব্যাটারিতে শতাধিক বিষাক্ত গ্যাস!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ অক্টোবর, ২০১৬ ১২:৪৮



স্মার্টফোনের ব্যাটারিতে শতাধিক বিষাক্ত গ্যাস!

স্মার্টফোনের ব্যাটারি স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। নতুন এক গবেষণায় বলা হয়েছে, ফোনের ব্যাটারি থেকে ১০০ রকমেরও বেশি ধরনের মারাত্মক গ্যাস নির্গত হয়।

গবেষণায় বলা হয়, লিথিয়াম ব্যাটারি থেকে ১০০টিরও বেশি বিষাক্ত গ্যাস বের হয় হয়। কার্বন মনোক্সাইডসহ আরো অনেক বিষাক্ত গ্যাস রয়েছে এ তালিকায়। বিশ্বের কোটি কোটি স্মার্টফোন থেকে এসব গ্যাস বের হয়। এসব গ্যাসে ত্বক, চোখ এবং নাসারন্ধ্রে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। পরিবেশের জন্যেও দারুণ ক্ষতিকর।

বিশেষজ্ঞরা রিচার্জেবল ব্যাটারি লিথিয়াম-আয়ন নিয়ে গবেষণা করেন। প্রতিবছর প্রায় ২ বিলিয়ন ফোনে এই ব্যাটারি স্থান করে নেয়।

ইনস্টিটিউট অব এনবিসি ডিফেন্স এর প্রফেসর এবং প্রধান গবেষক জাই সান বলেন, আধুনিক যুগে লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি গোটা বিশ্বে জনপ্রিয় হয়েছে। এই ব্যাটারি গ্রহণ করে নিয়েছেন সবাই। মোবাইল থেকে শুরু করে ইলেকট্রিক যানেও এই ব্যাটারি ব্যবহার করা হচ্ছে। লাখ লাখ পরিবার এই ব্যাটারি ব্যবহার করছে। তাই মানুষের এর ক্ষতিকর দিক সম্পর্কে জানা দরকার।

সান এবং তার সহকর্মীরা এসব ব্যাটারি থেকে কোনো গ্যাস বের হয় কিনা তা বের করা চেষ্টা করেন। অর্ধেক চার্জ হওয়া ব্যাটারি অপেক্ষা পুরোপুরি চার্জ দেওয়া লিথিয়াম ব্যাটারি থেকে অনেক বেশি গ্যাস নির্গত হয়। এসব ব্যাটারিতে যেসব রাসায়নিক পদার্থ ব্যবহার করা হয়, তার ওপর নির্ভর করে কি ধরনের গ্যাস নির্গত হবে। কাজেই নির্মাতাদের এ বিষয়ে সচেতন হতে হবে। গ্যাস নির্গমনের মাত্রা অনেক কমিয়ে আনতে হবে। কিংবা ভিন্ন ধরনের ব্যাটারি তৈরিতে নজর দিতে হবে।

এ গবেষণায় ২০ হাজার ব্যাটারিকে এমন তাপে উত্তপ্ত করা হয় যেন তা বিস্ফোরিত হয়। বিস্ফোরণের সঙ্গে এসব ব্যাটারি থেকে প্রচুর বিষাক্ত গ্যাস বের হয়েছে।

এখন গবেষকরা এমন এক পদ্ধতি বের করতে চাইছেন যার মাধ্যমে এসব গ্যাসের ক্ষতির মাত্রা শনাক্ত করা যাবে।

আশা করছি লিথিয়াম ব্যাটারি নির্মাতারা এই পণ্যের ভয়াবহতা আরো গভীরভাবে উপলব্ধি করবে এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে, আশা প্রকাশ করেন সান।
সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

 


মন্তব্য