kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ওএলইডি কী এবং এটি আপনার জন্য কী করতে পারে?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ১৪:৫৫



ওএলইডি কী এবং এটি আপনার জন্য কী করতে পারে?

ওএলইডি টেলিভিশন উচ্চমূল্যে ব্যতিক্রমী ছবি উপহার দিচ্ছে। এলসিডি টিভি থেকে এর পার্থক্য কী? এর ভিন্ন প্রকৃতি কী করে ছবিগুলোকে দেখতে আরো উন্নত করে? এই টিভি এত ব্যয়বহুল কেন?

ওএলইডি মানে হলো অর্গানিক লাইট এমিটিং ডিয়োড।

ওএলইডি ডিসপ্লের প্রতিটি পিক্সেল এমন একটি উপাদানে তৈরি যা বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হলে দীপ্তি ছড়ায়। এটা অনেকটা কোনো টোস্টারের তাপ উপাদানের মতো। কিন্তু এতে তাপ কম এবং রেজ্যুলেশনও ভালো। এই ইফেক্টকে বলা হয় ইলেকট্রোলুমিনেসেন্স।

এই ইলেকট্রোলুমিনেসেন্সটিই হলো এর অর্গানিক অংশ। এতে রয়েছে, কার্বন এবং অন্যান্য আরো কিছু উপাদান। প্রতিটি রংয়ের একটি ভিন্ন অর্গানিক উপাদানের চাহিদা আছে।

ইফেক্টটি হলো, স্ক্রিনের প্রতিটি ক্ষুদ্র ওএলইডি পিক্সেল সরবরাহকৃত বিদ্যুতের পরিমাণের ওপর ভিত্তি করে আলো সৃষ্টি করে। যত বেশি বিদ্যুৎ তত বেশি আলো। কোনো বিদ্যুৎ নেই কোনো আলোও নেই। আর ওএলইডির চমৎকার গুণসমৃদ্ধ ছবির পেছনে এটি একটি প্রধান চাবিকাঠি।

ওএলইডি টিভিতে রয়েছে 'সীমাহীন' কনট্রাস্ট রেশিও। ওএলইডি যেহেতু নিখুঁত কালো রং উৎপাদন করতে পারে এবং এ থেকে কোনো আলো নির্গত হয় না সেহেতু এর কনট্রাস্ট রেশিও প্রয়োগিকভাবে সীমাহীন। ছবির গুণগত মানের ক্ষেত্রে কনট্রাস্ট রেশিও সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

ওএলইডি বনাম এলসিডি
ওএলইডি হলো একমাত্র প্রযুক্তি যা প্রতি পিক্সেলে খাঁটি কালো এবং সাদা রং উৎপাদনে সক্ষম। এলসিডি তা করতে পারে না। এমনকি সর্বজনপ্রিয় প্লাজমাও তা করতে সক্ষম নয়।

এলসিডি কেন তা উৎপাদন করতে পারে না? যে তরল স্ফটিকে এলসিডি তৈরি হয় তা শুধু এর ব্যাকলাইটে সৃষ্ট আলো প্রতিরোধ করে। অনেকটা একটি মোমবাতির সামনে একটি সানগ্লাস রাখার মতো। এমনকি সেরা এলসিডিগুলোও পুরোপুরি সব আলো প্রতিরোধ করতে পারে না। সুতরাং সিনেমা থিয়েটারের মতো কালিময় কালো উৎপাদনের জন্য ব্যাকলাইটটি বন্ধই করতে হবে।

এলসিডিতে পুরো ব্যাকলাইটটিই একটি একক আলো হিসেবে কাজ করে। যা পুরো স্ক্রিনকেই আলোকিত করে।

অন্যদিকে, ওএলইডি টিভির আলো প্রতি পিক্সেল ভিত্তিতে স্ক্রিন আলোকিতকরণের কাজ করে। একটি ফোর কে ওএলইডি টিভিতে ৮ মিলিয়নের বেশি আলোকিতকরণ অঞ্চল থাকে। ফলে ওএলইডি টিভিতে মোটামুটি মানসম্পন্ন থেকে উচ্চমানসম্পন্ন ফুটেজের টিভি শো বা সিনেমা দেখতে সত্যিই অদ্ভুত লাগে।

হলুদ যোগ নীল মিলে হয় সবুজ
বর্তমানে সব ওএলইডি টিভিই এলজি'র তৈরি। এলজি যেভাবে এই টিভি বানায় তা একটু ব্যতিক্রমই বটে। সব টিভিই আপনি যে ছবি দেখেন তা সৃষ্টিতে লাল, সবুজ এবং নীল রংয়ের ব্যবাহার করে বাকি সব রং সৃষ্টি করে।

এলজির ওএলইডি মাত্র দুটি রং ব্যবহার করে। নীল এবং হলুদ ওএলইডির একটি স্যান্ডউইচ। এরপর কালার ফিল্টার ব্যবহার করে লাল, সবুজ এবং নীল রং সৃষ্টি করা হয়। আর এর সঙ্গে আরেকটু উজ্জ্বলতা যুক্ত করতে একটি পরিষ্কার সাদা উপাদানও যুক্ত করা হয়।

জীবনকাল
এলজির মুখপাত্র বলেন, একটি ওএলইডি টিভিতে ৫০ হাজার ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে অনুষ্ঠান উপভোগ করা সম্ভব। প্রচলিত টেলিভিশন থেকে এই সময় অনেক বেশি দীর্ঘ। সুতরাং প্রতিদিন ৬ ঘণ্টা করে টিভি দেখলেও একটি ওএলইডি টিভি অন্তত ২২ বছর ব্যবহার করা যাবে।

অন্তত এর প্যানেলটি এই সময়কাল পর্যন্ত টিকে থাকবে। যেকোনো প্রযুক্তির বেশির ভাগ আধুনিক টিভিতে প্যানেলের আগে পাওয়ার সাপ্লাই নষ্ট হয়।
সূত্র : সি নেট ডটকম


মন্তব্য