kalerkantho


প্রযুক্তির বিড়ম্বনা : ১১ ঘণ্টা চেষ্টার পর হাইটেক কেটলিতে চা বানাতে পারলেন তিনি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ অক্টোবর, ২০১৬ ১১:২৭



প্রযুক্তির বিড়ম্বনা : ১১ ঘণ্টা চেষ্টার পর হাইটেক কেটলিতে চা বানাতে পারলেন তিনি

হাইটেক প্রযুক্তিপণ্য যে আমাদের শুধু সুবিধা দেয় তা নয়। এগুলো ব্যবহার করতে গিয়ে নানা ধরনের বিড়ম্বনার সম্মুখীনও হতে হয়।

এ ধরনের এক বিড়ম্বনার কথা বর্ণনা করলেন ডেটা স্পেশালিস্ট মার্ক রিটম্যান। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে গার্ডিয়ান।

মার্ক রিটম্যান সম্প্রতি একটি উচ্চপ্রযুক্তির কেটলি কিনেছেন। এ কেটলি ওয়াইফাই সংযোগের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা যায়।   মার্ক এ কেটলি ব্যবহার করে এক কাপ চা বানাতে চাইছিলেন।

ইংল্যান্ডের হোভে বসবাসকারী এ ডেটা স্পেশালিস্ট যে প্রযুক্তিগত বিষয়ে আনাড়ি, তা নয়। তার পরেও এক কাপ চা বানাতে গিয়ে তার যে সময় লেগেছে এ সময়ে সাধারণ কেটলিতে তিনি হেসেখেলে অসংখ্য কাপ চা বানাতে পারতেন।

মার্ক জানান, সকাল ৯টায় তিনি কেটলিতে পানি দিয়ে চা বানানোর জন্য তা গরম করার চেষ্টা করেন। কিন্তু এরপর থেকেই শুরু হয় ভোগান্তি। কেটলির নানা সেটিংস ঠিক করতে গিয়ে তিনি প্রথমেই তিন ঘণ্টা সময় ব্যয় করেন। এর পরও কেটলির সমস্যা দূর হয়নি।

তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে জ্ঞান থাকায় তিনি বুঝতে পারেন কেটলির সঙ্গে এর বেস স্টেশনের যোগাযোগের বিষয়টিই সবচেয়ে জটিল হয়ে উঠেছিল। আর এ কারণেই বহু সময় ব্যয় হয়। এরপরও অবশ্য নানা ঝামেলায় এটি কাজ শুরু করতে পারছিল না।

মার্ক তার কাজের অগ্রগতি টুইটারে আপডেট করছিলেন। আর এতেই দেখা যায় হাইটেক কেটলি সেটআপ করতে তার ঝামেলার বিষয়টি।

মার্ক জানান, হাইটেক কেটলিটির সঙ্গে যে সফটওয়্যার দেওয়া হয়েছে তা অন্যান্য ডিভাইসের সঙ্গে সংযুক্ত হওয়ার কথা। কিন্তু বিভিন্ন সমস্যার কারণে তা সঠিকভাবে সংযুক্ত হচ্ছিল না। আর এ কারণে বিভিন্ন জটিলতা তৈরি হয়। এতে তার চা পান করাও অসম্ভব হয়ে ওঠে।

বিভিন্নভাবে সফটওয়্যার ইনস্টলের চেষ্টা করতে করতে এক পর্যায়ে তিনি সফল হন এটি ভয়েসের মাধ্যমে চালু করতে। আর এতে তার সময় লেগে যায় প্রায় ১১ ঘণ্টা।


মন্তব্য