kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


এবার হাত মেলাচ্ছে প্রযুক্তি দুনিয়ার পাঁচ দানব

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৪:৩০



এবার হাত মেলাচ্ছে প্রযুক্তি দুনিয়ার পাঁচ দানব

আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সের (এআই) বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার উত্থান ঘটছে। একে চূড়ায় নিতে এবার এক যুগান্তকারী ঘটনা ঘটতে চলেছে।

এইআই এবং মেশিন লার্নিং প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করতে একই প্লাটফর্মে আসছে বিশ্বের ৫টি জায়ান্ট প্রতিষ্ঠান। হাত মেলাচ্ছে ফেসবুক, আমাজন, গুগল, আইবিএম এবং মাইক্রোসফট। এরা এক ঐতিহাসিক পার্টনারশিপের ঘোষণা দিয়েছে।

এর অর্থ হলো, এআই'কে এগিয়ে নিতে কে কি গবেষণা করছে এবং তাকে কে কি ধরনের প্রযুক্তি উদ্ভাবন করছে ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা করবে এই প্রতিষ্ঠানগুলো। এমনকি সবাই মিলে সেরা পণ্য বানানোর বিষয়েও একমত হবে তারা। খুব শিগগিরই এসব কম্পানি থেকে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে অর্থ বিষয় সিদ্ধান্তগুলো আসতে থাকবে। শেয়ারহোল্ডাররা খুব দ্রুত এই দলে যোগ দেবেন। অর্থায়ন আরো বৃদ্ধি পাবে।

আলফাবেটের (গুগলের প্যারেন্ট কম্পানি) সাবসিডিয়ারি ডিপমাইন্ডের অ্যাপ্লাইড এআই বিভাগের প্রধান মুস্তাফা সুলেইমান জানান, এইআই প্রযুক্তি কারণে যে সকল কর্মীরা চাকরি হারিয়েছেন তাদেরও এখানে যুক্ত করা হবে।

এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ৫টি জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণের কাঠামো দাঁড় করানো হয়েছে। এখানে নন-কর্পোরেট গ্রপগুলো সমান সমান নেতৃত্বের মাধ্যমে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে যাবে।

আইবিএম এর এআই এথিকস গবেষক ফ্রান্সেকা রসি বলেন, প্রতিষ্ঠানে এআই এর ক্ষমতা ও প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে আমরা জানি। সমাজে বিস্তৃত পরিসরে আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সের উপকারিতা ছড়িয়ে দিতে হবে। আর তা করতে এর ওপর বিশ্বাস আনতে হবে আমাদের।

এআই-পাওয়ারর্ড রোবটগুলোই হবে পরবর্তী শক্তি। প্রযুক্তি যন্ত্র এবং আদের অ্যাপরের সঙ্গে মানুষের সংযোগ ঘটাতে কাজ করবে এসব এআই বোট। ইতিমধ্যে আমরা মাইক্রোসফটের সর্বসাম্প্রতিক উদ্যোগের সঙ্গে পরিচিত হয়েছি। আবার এইচপি তার ক্রেতার সঙ্গে এআই দিয়েই যোগাযোগ রক্ষা করছে। এসব বিষয়ে কথা বলেন মাইক্রোসফটের সিইও সত্যেয়া নাদেলা।

মাইক্রোসফটের ওয়াল্ডওয়াইড পার্টনার কনফারেন্সে নাদেলা বলেন, এআই চ্যাটবোটগুলো মানুষকে নতুন অভিজ্ঞতা দেবে। এর মাধ্যমে এক যুগান্তকারী পরিবর্তন আসতে চলেছে। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

 


মন্তব্য