kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


অনলাইনে নিরাপত্তায় কী করবেন, কী করবেন না? জেনে নিন ১২ করণীয়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৯:২৯



অনলাইনে নিরাপত্তায় কী করবেন, কী করবেন না? জেনে নিন ১২ করণীয়

১. আপনার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম অ্যাকাউন্ট ও ইমেইলে শক্তিশালী পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন। পাসওয়ার্ডে অক্ষর, সংখ্যা ও চিহ্ন ব্যবহার করে তা শক্তিশালী করা যায়।


২. আপনি যে বিষয়টি সবার সঙ্গে শেয়ার করতে চান না তা কোনোভাবেই অনলাইনে আপলোড করবেন না। অনলাইনে যতই প্রাইভেসি থাকুক না কেন, হ্যাকিংয়ের ঘটনা প্রতিনিয়তই ঘটছে।
৩. সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শুধু পরিচিতদেরই বন্ধু করুন।
৪. সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কখনোই অন্যের মূল্যবোধে আঘাত দেয় এমন কোনো বিষয় পোস্ট করবেন না।
৫. পাবলিক হটস্পট থেকে অনলাইন অ্যাকাউন্ট ব্যবহারের সময় বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করুন। নিরাপদ ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়া ব্যাংকে আর্থিক লেনদেন কিংবা গুরুত্বপূর্ণ কাজে লগইন করবেন না।
৬. অনলাইনে যে কারো সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য বিনিময় করার আগে তার পরিচয় নিশ্চিত হয়ে নিন। অনলাইনে প্রায়ই ছদ্মবেশী বন্ধুদের দ্বারা হ্যাকিংয়ের ঘটনা ঘটে।
৭. অনলাইনে কোনো বন্ধু টাকা কিংবা গুরুত্বপূর্ণ কোনো তথ্য চাইলেও তা দেবেন না। টেলিফোন কিংবা অন্য কোনো উপায়ে তার সঙ্গে কথা বলুন।
৮. একই পাসওয়ার্ড বিভিন্ন স্থানে ব্যবহার করবেন না। প্রয়োজনে পাসওয়ার্ড পাল্টে নিন।
৯. সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রয়োজনের অতিরিক্ত তথ্য দেবেন না। হ্যাকাররা আপনার এসব তথ্য ব্যবহার করতে পারে।
১০. ছুটিতে যাওয়ার সময় তা অনলাইনে জানাবেন না। একইভাবে আপনার সঠিক অবস্থান ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ তথ্য অনলাইনে জানাবেন না।
১১. অনলাইনে অটো-জিওট্যাগিং ফিচার চালু থাকলে আপনার অবস্থান স্বয়ংক্রিয়ভাবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত হতে পারে। এটি নিরাপত্তার জন্য মারাত্মক হুমকি হওয়ায় তা বন্ধ করে রাখুন।
১২. ভার্চুয়াল বিশ্বে আপনি যাই আপলোড করুন না কেন, তা কখনোই আর লুকানো সম্ভব নয়। তাই আগেই সতর্ক হোন।
--হিন্দুস্তান টাইমস অবলম্বনে ওমর শরীফ পল্লব


মন্তব্য