kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আইফোন ৭ : এদিকের বাজারে দাম পড়বে অনেক বেশি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৯:৪৬



আইফোন ৭ : এদিকের বাজারে দাম পড়বে অনেক বেশি

আজই বিশ্ববাজারে মুক্ত হবে বহু প্রতীক্ষিত আইফোন ৭। সান ফ্রান্সিসকোর বিল গ্রাহাম সিভিক অডিটোরিয়ামে আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মোচন করা হবে অ্যাপলের সর্বাধুনিক ফোনটি।

সিইও টিম কুক দেখাবেন নতুন আইফোন।   কয়েক দিনের মধ্যেই বিশ্বের বাজারে ছড়িয়ে পড়বে এই ফোন।

আইফোনের ভক্ত নেই এমন স্থান পৃথিবীকে খুঁজে পাওয়া যাবে না। ইতিমধ্যে এ ফোন সম্পর্কে বিস্তারিত জেনেছেন প্রযুক্তিপ্রেমীরা। আরো বেশি উন্নত ও শক্তিশালী ফোন নিয়ে সবাই উত্তেজিত। কিন্তু ভারত ও এর আশপাশের আইফোন ভক্তদের জন্য রয়েছে একটি দুঃসংবাদ। তা হলো, ভারতীয় বাজারে এর দাম আমেরিকার বাজারের তুলনায় অনেক বেশি হবে। অর্থাৎ, বাংলাদেশেও এটি কিনতে বেশ অর্থ গুনতে হবে।

এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ৪.৭ ইঞ্চির ৩২ জিবি স্টোরেজ আইফোন ৭-এর দাম পড়বে আমেরিকার বাজারে ৬৪৯ ডলার। কিন্তু ভারতের বাজারে এর দাম পড়বে ৯০৩ ডলারের মতো যা প্রায় ৬০ হাজার রুপি। হিসাবে দেখাচ্ছে, ভারতের বাজারে এটি পেতে ৪০ শতাংশ দাম বেশি দিতে হবে।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল এক প্রতিবেদনে জানায়, এর কারণ হলো অ্যাপল ভারতের থার্ড-পার্টি খুচরা বিক্রেতার মাধ্যমে বিক্রি করবে। কাজেই বিক্রেতাদের লাভের অংশ ধরিয়ে দিতেই দাম বেশি পড়ছে। এ ছাড়া পণ্য বিক্রির ক্ষেত্রে স্থানীয় বাজারের ট্যাক্স ধরে নিচ্ছে অ্যাপল। এ ছাড়া ভারত ও এর আশপাশের বাজারে মুদ্রার মানের হেরফেরেও দাম এদিক-ওদিক হয়ে যাবে।

তবে ভারতীয় অংশেই দাম এমন বৃদ্ধি পাচ্ছে তা নয়। ব্রিটিনের মানুষকে প্রায় ৮০ শতাংশ বেশি দামে আইফোন ৭ কিনতে হবে। ৩২ জিবি স্টোরেজ সংস্করণের জন্য মার্কিন বাজারের তুলনায় ব্রিটিশদের এই বেশি দাম দিতে হবে।

তবে এই শেষবারের মতো ভারতের বাজারে এত বেশি দাম দিতে হব আইফোনের জন্য। সম্প্রতি ফরেন ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট রুলিংয়ের মাধ্যমে আইফোন সেদেশে নিজস্ব স্টোর খুলবে। তখন এর দাম খুব বেশি বাড়বে না বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়।

অ্যাপল নয়া দিল্লি, ব্যাঙ্গালোর এবং মুম্বাইসহ বিভিন্ন বড় বড় শহরে ১০ হাজার স্কয়ার ফুটের নিজস্ব স্টোর খুলতে চাইছে। আগামী বছরের শেষ নাগাদ এসব স্টোরে আইফোন বিক্রি করবে সরাসরি অ্যাপল। তবে এ সংক্রান্ত খুব বেশি তথ্য দেয়নি অ্যাপল। সূত্র : টিএনডাব্লিউ

 


মন্তব্য