kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


৭ প্রযুক্তিতে গুণে-মানে সেরা হবে ভবিষ্যত স্মার্টফোন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৬:৩৯



৭ প্রযুক্তিতে গুণে-মানে সেরা হবে ভবিষ্যত স্মার্টফোন

আমরা এমন স্মার্টফোনের অপেক্ষা করছি যার প্রযুক্তি ভবিষ্যত প্রযুক্তি সন্ধান দেবে। এখানে তুলে ধরা হয়েছে এমনই কিছু প্রযু্ক্তির কথা তুলে ধরা হয়েছে।

১. আরো ভালো ছবি : মোবাইল ফোনে যে ছবি তোলা হয় তার গুণগত মানে বিপ্লব ঘটে যেতে পারে। ইতিমধ্যে বড় বড় ব্র্যান্ডের মোবাইলগুলো পেছনে দ্বিতীয় ক্যামেরার সংযোগ ঘটাচ্ছে। একযোগে দুইটি ক্যামেরার মাধ্যমে তোলা ছবি আরো বেশি ঝকঝকে  হচ্ছে। দুটো ক্যামেরায় দুটো ছবি তুলে একটি দারুণ ছবির সমন্বয় করা হচ্ছে। ডুয়াল ক্যামেরার সেটগুলো কম আলোতে উন্নত মানের ছবি তুলতে সক্ষম। অনেকটা এসএলআর টাইপের ছবি উঠবে।

২. আরো উন্নত শব্দ : কেউ ক্যামেরার মান খোঁজেন। কেউ বা গানের মান ভালো চান। এ বৈশিষ্ট্য নিয়ে স্মার্টফোন আসছে বাজারে। বিশেষ করে মার্শাল অ্যাম্পস শব্দের মান বিবেচনা করছে। এ বছর ব্লুটুথ হেডসেটের গুণগত মান আরো বৃদ্ধি পাবে। এ ছাড়া ব্লুটুথের ব্যাটারির শক্তিও অনেক বৃদ্ধি পাবে। একে ১০-২০ ঘণ্টায় উন্নীত করা হবে। অন্যান্য হেডফোনের মানও অনেক উন্নতির দিকে নেওয়া হবে। এইচডি মিউজিক হবে ভবিষ্যতের প্রযুক্তির উৎকর্ষতা।

৩. বাটনবিহীন ফোন : পরের বছর সেরা ব্র্যান্ডের ফ্ল্যাগশিপ ফোনগুলোতে হয়তো কোনো বোতাম থাকবে না। সবকিছু পর্দার মাধ্যমেই করতে হবে। পর্দার স্পর্শ করলে বোতামে চাপ দেওয়ার অনুভূতিও থাকবে। ভাইব্রেশনের মাধ্যমে এ কাজটি করা যেতে পারে। ইতিমধ্যে বেশ কিছু ফোনে এ ব্যবস্থা করা হয়েছে।

৪. সব সময় চালু : গ্যালাক্সি এস৭ এবং এস৭ এজ মডেলে এই ফিচারকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। এতে অনেক সময় বাঁচে। ব্যবহার না হলে পর্দার আলো নিভে যাবে। কিন্তু মিস কল, টেক্সট মেসেজ বা সময় ইত্যাদি বোতাম চেপে আলো না জ্বেলেও দেখা যাবে। এ ব্যবস্থায় ব্যাটারির জীবন আরো বাঁচবে।

৫. ভার্চুয়াল রিয়েলিটি : আধুনিক স্মার্টফোনগুলো আসবে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি উপভোগের ব্যবস্থা নিয়ে। তবে এর জন্য বাড়তি ভিআর হেডসেট কিনতে হবে। এটা বেশ দামী প্রযুক্তি। একে উপভোগের জন্য উন্নত মানের স্মার্টফোন প্রয়োজন। তবে স্যামসাংয়ের গিয়ার ভিআর হেডসেটটি সাধারণ স্মার্টফোনকেও ভিআর সেটে পরিণত করে। তবে একে যদি গ্যালাক্সি এস৭-এর মতো কোনো সেটে দেখেন, তবে আসল মজা বোঝা যাবে।

৬. 'স্মার্টলেটস' : স্মার্টফোন, ট্যাব বা ফ্যাবলেটের কথা ভুলে যান। ভবিষ্যত প্রযুক্তি হতে পারে 'স্মার্টলেটস'। এটা এমন এক ফোন যার ভাঁজ খুলে ট্যাবে পরিণত করা যাবে। ইতিমধ্যে এমন ফোন বানানোর ক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে স্যামসাং- এমন গুজব ছড়িয়েছে। এ ধরনের ফোন বাজারে এলে তা হবে যুগান্তকারী ঘটনা। আগামী বছরেই হয়তো এমন স্মার্টফোন দেখা যাবে। এক সূত্র জানায়, ৫ ইঞ্চি লম্বা একটি স্মার্টফোনের ভাঁজ খুললেই হয়ে যাবে ৮ ইঞ্চির ট্যাব।

৭. আল্ট্রা এইচডি রেকর্ডিং : কিংবা ৪কে মূলত সিনেমা কোয়ালিটি মানের টেলিভিশন প্রযুক্তি। আপাতত ব্রিটিশদের ঘরেই এর প্রচলন শুরু হয়েছে। ফুল তারা ৪কে প্রযুক্তির ছবি দেখছেন। শ্বাসরুদ্ধকর বিষয় হলো, স্মার্টফোনেই এমন দৃশ্য দেখা যাবে। হাতের মুঠোয় ৪কে প্রযুক্তি থাকা আগামী বছরের বড় অর্জন হতে পারে। এখন অবশ্য সনি তাদের এক্সপেরিয়া জেড৫ আল্ট্রা হেডসেটে এ প্রযুক্তিকে অনেকটা এগিয়ে নিয়েছে। এ ছাড়া গ্যালাক্সি নোট ৭-এ কোয়াড এইচডি পর্দা যুক্ত হয়েছে। ধীরে ধীর এগোচ্ছে প্রযুক্তি। সূত্র : টেলিগ্রাফ

 


মন্তব্য