kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কয়েকটি উচ্চমানের হাইব্রিড বাইসাইকেলের খবর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৫:৫৬



কয়েকটি উচ্চমানের হাইব্রিড বাইসাইকেলের খবর

বাইসাইকেলের জনপ্রিয়তার কথা আলাদাভাবে আর বলার দরকার নেই। আমাদের দেশে চলাচলে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে রয়েছে ভালোমানের বাইসাইকেল।

বিভিন্ন বৈশিষ্ট্যের হাইব্রিড দ্বিচক্রযান রয়েছে। কোনোটি পাথুরে ভূমিতে আবার কোনোটি পিচঢালা রাস্তায় চলাচলের উপযোগী করে বানানো হয়। এখন হাইব্রিড বাইসাইকেলগুলো বেশ চাহিদা সৃষ্টি করেছে। এদের দুই ভাগে ভাগ করা যায়। এক, এতে আছে ফ্রন্ট সাসপেনসন। দুই, এদের এমনটা নেই। এখানে কিছু সেরা মানের বাইসাইকেলের কথার জানান দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। বাংলাদেশের বাজারে এদের নির্দিষ্ট বাজারদর পাওয়া যায়নি। ভারতীয় বাজারের দর দেওয়া হলো।

১. ক্যানোনডেল কুইক কার্বন১ ২০১৫ : বিখ্যাত মার্কিন নির্মাতা। এরা ভারতের বাজারে টি১ সাইকেল সরবরাহ করছে। উচ্চমানের যান। সবচেয়ে ওপরের খাঁজে ডিরেইল্যুর প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। একই ডিরেইল্যুর ব্যবহৃত হয়েছে সামনে ও পেছনে। কোনো সাসপেনসন নেই। কার্বন ফাইবারের ফ্রেমের কারণে সাইকেলটি দারুণ হালকা এবং দ্রুতগামী। রয়েছে ২০টি গিয়ার। এর দাম ভারতীয় বাজারে ১ লাখ ৪২ হাজার রুপি।

 

২. ট্রেক ৮.৩ডিএস (মাই২০১৫) : ট্যুর ডি ফ্রান্সসহ বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক মানের ইভেন্টে অংশ নেয় সাইকেলটি। ফায়ারফক্সের সঙ্গে জোট বেঁধে ভারতের বাজারে এসেছে। আমেরিকার সেরা ব্র্যান্ডগুলোর একটি। হাইব্রিড সাইকেলের বাজারে এরা অনেক আগে প্রবেশ করেছে। ৮.৩ডিএস মেলে ডিস্ক ব্রেক ব্যবহৃত হয়েছে। সামনের সাসপেনসনটি ৬৩ মিলিমিটার। পেছনে মাঝারি ডেরেইল্যুর দেওয়া হয়েছে। দাম পড়বে ৪৮ হাজার ৫৫০ রুপি।

 

৩. ফায়ারফক্স মোমেন্টাম ৭০০সি : মূল্য অনুয়ায়ী দারুণ এক সাইকেল। ভ্রমণের জন্য ৬৩ মিলিমিটার সাসপেনসন রয়েছে। ভালো রাস্তা ছাড়াও এবড়ো-থেবড়ো রাস্তায় চলার উপযোগী। মোমেন্টাম ৭০০সি-এর পেছনে রয়েছে ডিরেইল্যুর। দাম পড়বে ২৪ হাজার ৫৯০ রুপি।

 

৪. জায়ান্ট রম জিরো ডিস্ক : এই তাইওয়ানিজ নির্মাতা পৃথিবীর বৃহত্তম বাইসাইকেল নির্মাতা হিসাবে পরিচিত। ক্ষমতাসম্পন্ন সাইকেল বানায় জায়ান্ট। আন্তর্জাতিক বেশ কয়েকটি রেসিং দলের স্পন্সর তারা। রম জিরো ডিস্ক হাইব্রিড সাইকেল। সামনের সাসপেনসনটি ৬৩ মিলিমিটার। সামনে ও পেছনে হাই-এন্ড ডিরেইল্যুর দেওয়া হয়েছে। রয়েছে ডিস্ক ব্রেক। দাম ৭৮ হাজার ৯৯০ রুপি।

 

৫. মনগুজ আর্টেরি কম্প ২০০৫ : অনেক পুরনো মার্কিন নির্মাতা মনগুজ। মাউন্টেন বাইক এবং বিএমএস মডেলের জন্য বিখ্যাত। আর্টেরি কম্প অন্যান্য হাইব্রিড থেকে আলাদা হয়েছে তার নান্দনীকতার জন্য। দেখতে দারুণ এক বাইসাইকেল। এতে আছে ৮X৩ গিয়ারিং, সামনে-পেছনে ডিরেইল্যুর আর দারুণ গতি। দাম পড়বে ৩১ হাজার ৪০০ রুপি।

 

৬. মাই বাইক : ফ্রেঞ্চ ক্রীড়াসামগ্রী নির্মাতা ডেক্যাথলনের তৈরি বাইসাইকেল। দেখতে সাধারণ, কিন্তু নান্দনিক। স্টিলের ফ্রেমে রয়েছে দুটো শক্তিশালী হুইল। সিঙ্গেল স্পিড সেটআপ। গতানুগতিক বাইক। দাম অনেক কম, মাত্র ৪৪৯৯ রুপি।

 

৭. টের্ন লিঙ্ক সি : তাইওয়ানিজ নির্মাতার বানানো উচ্চমানের বাইসাইকেল। আমাদের পরিবেশে দারুণ বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। শহুরে বাইসাইকেলের ডিজাইন চোখে পড়ে। ছোটখাটো এক সাইকেল যা সবার পছন্দের তালিকায় থাকে। দূরের পথে ভ্রমণে দারুণ এক বাইক। দাম ৩০ হাজার ৯৯০ রুপি।

 

সূত্র : ম্যানসওয়ার্ল্ড ইন্ডিয়া

 


মন্তব্য