kalerkantho


সহজ প্রযুক্তি তৈরিতে অ্যাপল বা গুগলের সংগ্রাম

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩০ মার্চ, ২০১৬ ১৮:৪৩



সহজ প্রযুক্তি তৈরিতে অ্যাপল বা গুগলের সংগ্রাম

অসংখ্য মানুষ তাদের স্মার্টফোন ব্যবহারে খুব সামান্য সমস্যায় ভুগছে। বড় বড় প্রতিষ্ঠানগুলোও তাদের পণ্যগুলোর ফাংশন আরো সহজ করে ব্যাপক গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছে।

এ গবেষক তুলে ধরেছেন তার অভিজ্ঞতা ও বিশ্লেষণ।

একটা সময় ছিল যখন যন্ত্রের একটা বোতামে একটাই কাজ হতো। এভাবে একটি সফওয়্যার ব্যবহারের মাধ্যমে একটি বোতামে একটিমাত্র কাজের বিষয়টি অনেকের কাছে বেশ জটিল বলেই মনে হতো।

২০১৬ সালের অ্যাসেঞ্চারের এক গবেষণায় বলা হয়, ১৬ শতাংশ স্মার্টফোন ব্যবহারকারী য্ন্ত্রটাকে অতি জটিল বলে মনে করেন। এসব যন্ত্র ব্যবহার করে ১৮ শতাংশ মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করতেই পারেন না। ২০১৫ সালে জে ডি পাওয়ারস ইন্টারেকটিভ ভেহিকলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, স্মার্ট ড্যাশবোর্ড রয়েছে এমন গাড়ি ব্যবহারে জটিলতা অনুভব করেন এক-পঞ্চমাংশ মানুষ।

প্রযুক্তিগত যেকোনো উন্নয়নে যেসব ফিচার বানানো হয় তার প্রত্যেকটি তৈরিতে অনেক উদ্ভাবনী ক্ষমতার প্রয়োজন। কিন্তু সাধারণ মানুষ এসব ব্যবহারে হিমশিম খান।

স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিজাইন ফেলো এবং নাইকির জর্ডার গ্রুপের সাবেক প্রধান ডিজাইনার জেসন মেইডেন বলেন, আমরা এমন যুগে এসেছি যেখানে অনন্য এবং জটিল সব যন্ত্র ও পদ্ধতি তৈরি হচ্ছে।

এই কারণে দারুণ সব প্রযুক্তি ব্যবহার উপভোগ্য হয়ে উঠছে না মানুষের কাছে। সফটওয়্যাগুলোর ব্যবহারও কঠিন হচ্ছে দিন দিন।    

বছর ধরে অ্যাপল তাদের যন্ত্রের খুব সাধারণ ব্যবহার নিশ্চিত করতে চাইছে। প্রতিষ্ঠানটি জানায়, আমরা ৫-৮ বছর ধরে এ নিয়ে গবেষণা করে চলেছি। প্রযুক্তি ব্যবহার সহজ হতে হবে প্রথমেই।

প্রথমে কোনো টেলিভিশন প্রোগ্রাম বা সিনেমা অনলাইনে কেনা বা ডাউনলোড করার বিষয়টি অনেক সহজ ছিল। কিন্তু দিন দিন এতে কারিগরি ফলানো হচ্ছে। বিষয়টি এমন হচ্ছে যে, এক সময় প্রযুক্তি দৃষ্টিনন্দন ও আরামদায়ক বাঙলো ছিল। কিন্তু দিন দিন এতে গ্যারেজ বা টেরেস তৈরি করে দেওয়া হচ্ছে।

বর্তমানে অ্যাপল বা গুগলের মতো প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের প্রস্তাবগুলো বাস্তবে প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা চালাচ্ছে। তারা বিশেষ এক ধরনের হার্ডওয়্যার বা সফটওয়্যার না বানিয়ে কয়েকটির সমন্বয় করতে চাইছে।

গুগল বা আলফাবেট এখন আর কেবলমাত্র সার্চবার নয়। এটা সফটওয়্যার প্রোগ্রাম এবং যন্ত্র তৈরির ইকোসিস্টেম সৃষ্টি করতে চাইছে। তারা অতীতের সব যন্ত্রকে আরো বেশি সহজ করতে চাইছে।

যদিও প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো ক্রেতাদের আরো বেশি ফাংশনাল ডিভাইস দিতে চাইছে। কিন্তু এতে এমন কিছু তৈরি হচ্ছে যার অধিকাংশ ব্যবহার সম্পর্কে আমরা জানি না।

স্টিভ জবস বলেছিলেন, সরলতা সব সময়ের জন্যে চাহিদার শীর্ষে থাকবে। তবে খুব বেশি সহজ করে ফেলার মধ্যেও খারাপ কিছু লুকিয়ে আছে। এতে করে প্রযুক্তি থেকে নতুন কিছু শেখার থাকবে না।

তাই বর্তমানের প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো সময় হয়েছে নতুন করে তাদের সফটওয়্যার বা প্রযুক্তিকে ঢেলে সাজানোর। এমনটাই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। সূত্র : এনডিটিভি

 


মন্তব্য