kalerkantho

শুক্রবার । ২০ জানুয়ারি ২০১৭ । ৭ মাঘ ১৪২৩। ২১ রবিউস সানি ১৪৩৮।


যে কারণে গ্যালাক্সি এস৭ জনপ্রিয়তা নাও পেতে পারে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ মার্চ, ২০১৬ ১৪:০০



যে কারণে গ্যালাক্সি এস৭ জনপ্রিয়তা নাও পেতে পারে

দক্ষিণ কোরিয়ার বিশ্বখ্যাত প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা স্যামসাং তাদের ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭ নিয়ে বাজার মাত করবে এমনটাই অনেকের ধারণা। তবে বহু ক্রেতাই কিছু কারণ দেখিয়ে স্মার্টফোনটি কিনতে আগ্রহী হচ্ছেন না। এ লেখায় রয়েছে তেমন কিছু তথ্য। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে সিনেট।
রিমুভেবল ব্যাটারির অভাব
বর্তমানে বহু স্মার্টফোনেই এমনটা দেখা যাচ্ছে। ব্যাটারি স্মার্টফোনটির সঙ্গে এমনভাবে আটকে দেওয়া হয় যে, সাধারণ ব্যবহারকারীরা তা বের করতে পারেন না। এতে একাধিক ব্যাটারি ব্যবহারের সুযোগ পাওয়া যায় না। এ ছাড়া ব্যাটারি নষ্ট হলে তা পাল্টাতেও বহু ঝামেলা করতে হয়। এর পেছনে মূল কারণ হলো, বর্তমানে স্মার্টফোন হালকা আর পাতলা করার প্রবণতা সৃষ্টি হয়েছে। আর স্মার্টফোনে এ হালকা-পাতলা করার দৌড়ে চেসিসের সঙ্গে ব্যাটারিটি জুড়ে দেওয়া হচ্ছে। যদিও বহু ব্যবহারকারী এতে অসুবিধা বোধ করছেন।
কমদামের বিকল্প
অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের স্মার্টফোনগুলো এ ক্ষেত্রে অ্যাপলের আইফোনের থেকে ভিন্ন। অ্যান্ড্রয়েডে রয়েছে অসংখ্য স্মার্টফোন বাজার থেকে কেনার সুযোগ। এগুলোর কোনো কোনোটি অত্যন্ত কম দামের। আবার কোনোটি প্রায় একই মানসম্মত হলেও দাম কম। এ বিষয়টি এস৭ স্মার্টফোনের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। এস৭ যেখানে ৬৫০ থেকে ৬৯৫ ডলারে কিনতে হবে সেখানে তার চেয়ে কম দামেই অনুরূপ স্মার্টফোন পাওয়া যাবে। সে বিকল্প স্মার্টফোনে এস৭-এর প্রায় সব ফিচারই পাওয়া যাবে। এ বিকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে নেক্সাস ৬পি, সনি এক্সপেরিয়া জেড৫, মটোরোলা মটো এক্স পিওর এডিশন ইত্যাদি।
সফটওয়্যার আপডেটে দেরি
নেক্সাস ৬পি স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭-এর বিকল্প। তবে এস৭ নেক্সাসের চেয়ে পিছিয়ে রয়েছে সফটওয়্যার আপডেটের ক্ষেত্রে। কারণ নেক্সাস গুগলের পণ্য। গুগলের অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড আপডেট তাই সবার আগে নেক্সাসেই দেওয়া হয়। গুগলের অ্যান্ড্রয়েড এন তাই সবার আগে নেক্সাসেই দেওয়া হবে বলে জানা গেছে। এতে এস৭ স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা পিছিয়ে পড়ছেন।
মেমোরি কম
স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭-এর অভ্যন্তরীণ মেমোরি ধারণক্ষমতা হতে যাচ্ছে ৩২ জিবি। এটি অন্যান্য স্মার্টফোনের চেয়ে বড় কোনো ধারণক্ষমতা নয়। তাই ব্যবহারকারীরা বেশি স্টোরেজ আশা করলেও তা হচ্ছে না। ফলে ব্যবহারকারীদের জন্য এটিও বিব্রতকর একটি বিষয় হতে পারে।


মন্তব্য